শাওমি ও রেডমি ফোনের মধ্যে পার্থক্য জানুন

অনেকে শাওমি ও রেডমি ফোনগুলোকে একই মনে করে থাকেন। আসলে শুনতে একই মনে হলেও শাওমি ব্র্যান্ডের ফোন ও রেডমি ব্র্যান্ডের ফোনগুলোর মধ্যে যথেষ্ট পার্থক্য রয়েছে। এই পোস্টে আমরা শাওমি ও রেডমি ফোনের মধ্যে পার্থক্য সম্পর্কে জানবো। 

ব্র‍্যান্ড ও সাবব্র‍্যান্ড

শাওমি একটি চীনের মোবাইল কোম্পানি, সেটা কমবেশি হয়ত সকলে জানেন। ২০১০ সালে সফটওয়্যার কোম্পানি হিসেবে যাত্রা শুরু করা কোম্পানিটি বর্তমানে অ্যাপল, স্যামসাং এর মত কোম্পানির সাথে প্রতিযোগিতায় টিকে আছে। শুরুটা কাস্টম অ্যান্ড্রয়েড রম তৈরির মাধ্যমে হলেও শাওমি বা এমআই (Mi) বর্তমানে বিশ্বের বৃহত্তম ইলেক্ট্রনিকস ম্যানুফ্যাকচারারগুলোর মধ্যে একটি।

অন্যদিকে রেডমি কিন্তু স্বাধীন কোনো ব্র‍্যান্ড নয়, বরং এটি শাওমি’র একটি সাবব্র‍্যান্ড মাত্র। ২০১৩সালে রেডমি’র প্রথম ফোনের মাধ্যমে যাত্রা শুরু করে এই সাব-ব্র‍্যান্ডটি। শাওমি ও রেডমি, উভয় কোম্পানি অনেক ধরনের ইলেক্ট্রনিক প্রোডাক্ট তৈরী করে থাকে।

স্মার্টফোন সিরিজ

এমআই বা শাওমি স্মার্টফোনগুলোর সাথে রেডমি এর মূল পার্থক্য তাদের স্মার্টফোন সিরিজে। স্যামসাং ফোনের ক্ষেত্রে যেমনঃ “S” সিরিজ ও “A” সিরিজের মত আলাদা লাইন-আপের ফোন রয়েছে তেমনি শাওমি (পূর্বে Mi) ও রেডমি নামে এই দুইটি ব্র‍্যান্ড এর ফোনগুলো আলাদা করা হয়েছে। রেডমি’র পাশাপাশি পোকো ফোন এর মত আলাদা ব্র‍্যান্ডের সাথেও তাদের ফোন এর ফিচার শেয়ার করে শাওমি। অর্থাৎ রেডমি ফোন হলো শাওমি ফোন এর একটি সিস্টার কোম্পানি মাত্র, যেখানে শাওমি এর স্মার্টফোন তৈরীর ক্যাটালগ বেশ বিশাল।

দাম

রেডমি ও শাওমি মোবাইল ফোনের পার্থক্যের তালিকায় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে এদের দাম। রেডমি এর ফোনগুলো মূলত কম দামে সেরা ফিচার প্রদানের চেষ্টা করে। অন্যদিকে শাওমি বা এমআই ফোনগুলো সাধারণত প্রিমিয়াম সেগমেন্টের হয়ে থাকে। শাওমি ব্র‍্যান্ডেড ফোনগুলো আইফোন, স্যামসাং মোবাইলওয়ানপ্লাস ব্র‍্যান্ডের ফ্ল্যাগশিপ ফোনগুলোর সাথে সরাসরি প্রতিযোগিতা করে। অর্থাৎ শাওমি ফ্ল্যাগশিপ ফোন তৈরী করে আর রেডমি বাজেট ফোন। তবে অনেক সময় শাওমি ব্র‍্যান্ডের অনেক ফোন রেডমি ব্র‍্যান্ড এর আদলে বাজারে আসতে দেখা যায়। 

রেডমি ও শাওমি ব্র‍্যান্ড এর ফোনগুলোর ম্যানুফ্যাকচারিং কস্ট এর মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। শাওমি ব্র‍্যান্ডের ফোনগুলো ফ্ল্যাগশিপ গ্রেডের হওয়ায় এগুলোর দামও স্বভাবতই বেশি।

অন্যদিকে রেডমি মূলত বাজেট অরিয়েন্টেড ডিভাইস হওয়ার কারণে এগুলোর দাম কম হয়ে থাকে। আমাদের দেশের মি বা শাওমি ব্র‍্যান্ডের ফোনগুলোর দাম বেশি হওয়ার কারণে এগুলো তেমন একটা বিক্রি হয়না। অন্যদিকে রেডমি ব্র‍্যান্ডেড ফোনগুলো বাজেট ফোন হওয়ার কারণে এই ফোনগুলো দেশের বাজারে খুব বেশি বিক্রি হয়। হিসাব করলে হয়ত দেখা যাবে রেডমি ব্র‍্যান্ডের ফোনগুলো আমাদের দেশে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয়ে থাকে।

👉 শাওমি মোবাইল দাম বাংলাদেশ

শাওমি ও রেডমি ফোনের মধ্যে পার্থক্য জানুন

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

সফটওয়্যার

শাওমি ও রেডমি এর ফোনগুলো একই মিইউআই অপারেটিং সিস্টেম দ্বারা চললেও উভয় ফোনের সফটওয়্যার এর ফিচারে অনেক ব্যবধান দেখা যায়। ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস হওয়ার দরুণ শাওমি ব্র‍্যান্ডের ফোনগুলোতে অসাধারণ সব সফটওয়্যার ফিচার দেখা যায়। অন্যদিকে রেডমি ব্র‍্যান্ডের ফোনগুলো বাজেট ফোন হওয়ার কারণে এগুলোর সফটওয়্যার ফিচার তুলনামূলক বেসিক। আর প্রসেসরের পার্থক্যের কারণে ফোনগুলোর পারফরম্যান্স এর দিক দিয়ে অবশ্যই শাওমি ব্র‍্যান্ডের ফোনগুলো এগিয়ে থাকবে।

ফিল

রেডমি ব্র‍্যান্ডেড ফোনগুলো ও শাওমি ব্র‍্যান্ডেড ফোনগুলোর মধ্যে হ্যান্ড ফিলেও বেশ পার্থক্য রয়েছে। শাওমি ফোনগুলো যেখানে বেশ প্রিমিয়াম ম্যাটেরিয়াল দ্বারা তৈরী, রেডমি ব্র‍্যান্ডের ফোনগুলো তেমন নয়। অধিকাংশ রেডমি ব্র‍্যান্ডেড ফোনগুলো প্লাস্টিকের তৈরী, যেখানে শাওমি ব্র‍্যান্ডেড ফোনগুলোতে গ্লাসের পাশাপাশি লেদার ও অন্যান্য প্রিমিয়াম ম্যাটেরিয়াল ব্যবহার হয়। এছাড়াও শাওমি ব্র‍্যান্ডের ফ্ল্যাগশিপ ফোনগুলোতে কোনো না কোনো মাথানষ্ট ফিচার থাকবেই যা একে বাজারের অন্য সব ফোন থেকে আলাদা করে।

👉 রেডমি ও পোকো ফোনের মধ্যে পার্থক্য কী? জানুন এখানে

👉 শাওমি ফোনের দারুণ কিছু ফিচার যা সবার জানা উচিত

ক্যামেরা

ক্যামেরার দিক দিয়ে বিশাল পার্থক্য রয়েছে শাওমি ও রেডমি ফোনগুলোর মধ্যে। তবে এই পার্থক্য থাকা বেশ স্বাভাবিক। যেহেতু রেডমি ফোনগুলো অপেক্ষাকৃত দাম কম ও হার্ডওয়্যার দূর্বল, তাই শাওমি ফোনগুলো অবশ্যই ক্যামেরার দিক দিয়ে বেশ শক্তিশালী। হাই ক্যামেরা রেজ্যুলেশন, সেরা ডায়নামিক রেঞ্জ, সব মিলিয়ে অসাধারণ কোয়ালিটির ছবি প্রদান করে শাওমি ক্যামেরা ফোন গুলো। অন্যদিকে রেডমি ফোনগুলো সাধারণ বাজেট ফোন, যেগুলো সকল ফিচার মোটামুটি ভালোভাবে প্রদানের চেষ্টা করে থাকে।

আপনি কি শাওমি ও রেডমি ব্র‍্যান্ডের ফোনগুলোর এসব পার্থক্য জানতেন? আমাদের জানান কমেন্ট সেকশনে।

👉 ভিডিওঃ আইফোন ১৪ প্রো এবং ১৪ প্রো ম্যাক্স সম্পর্কে বিস্তারিত

👉 আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করে সাথেই থাকুন। এখানে ক্লিক করে সাবস্ক্রিপশন কনফার্ম করুন!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,422 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

1 Comment

  1. Saidul Islam Reply

    Redmi 10C I am used right now.But, i feel it’s very powerful device.I love much more redmi brand.♥️

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.