শাওমি হাইপার ওএস কি? ফিচার, সাপোর্টেড ডিভাইস ও আরো তথ্য জানুন

ডিভাইস ক্যাটালগ বড় হওয়ার দরুণ একাধিক ডিভাইসকে একই ছাদের নিচে আনার প্রয়োজন ছিলো শাওমির। সকল প্ল্যাটফর্মে একই অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করার মাধ্যমে অ্যাপল এর মত একটি ইউনিফাইড ইকোসিস্টেম তৈরীর প্রয়োজন ছিলো চীনা কোম্পানিটির। এরই সূত্র ধরে ২০১৭ সালে নতুন একটি অপারেটিং সিস্টেম নিয়ে কাজ শুরু করে শাওমি যা তাদের সকল ডিভাইসে ব্যবহৃত হবে। 

২০২৩ সালে এসে HyperOS এর সাথে বিশ্ববাসীকে পরিচয় করিয়ে দেয় শাওমি। এই পোস্টে হাইপার ওএস কি, কিভাবে কাজ করে, এর ফিচারগুলো এবং যেসব ডিভাইসে এই নতুন ওএস আসছে, সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানবেন। 

Xiaomi HyperOS কি?

হাইপারওএস হলো শাওমির তরফ থেকে একটি নতুন এন্ড্রয়েড-ভিত্তিক অপারেটিং সিস্টেম যা প্রথমে ব্যবহারকারীর কথা মাথায় রেখে তৈরী করা হয়েছে এবং কার, স্মার্ট হোম, ইত্যাদিকেও অন্তর্ভুক্ত করা হবে এই সিস্টেমে। ডিভাইসের হার্ডওয়্যার ক্যাপাবিলিটিকে পুনরায় ঢেলে সাজানোর মাধ্যমে স্মুথ পারফরম্যান্স ও ইফেক্টিভ রিসোর্স শেডিউলিং সুবিধা দিবে এই তথাকথিত “লাইটওয়েট” ওএস।

কন্টিনিউয়াস পারফরম্যান্স ও অপেক্ষাকৃত কম স্টোরেজ ব্যবহার করার মাধ্যমে লাইটওয়েট ফাইল সিস্টেম ব্যবহার করে হাইপারওএস। এছাড়া ওটিএ আপগ্রেড এর ক্ষেত্রে কম্প্যাটিবিলিটি বেড়েছে, যার কল্যাণে অনেক ফাইল সিস্টেম ও প্রসেসরে এটি সাপোর্ট করবে। “Alive Design Philosophy” এর উপর ভিত্তি করে তৈরী এই HyperOS যা কম্ফোর্টেবল, ফ্লুইড ও ডাইভার্স গ্রাফিক্স সাবসিস্টেম রিস্ট্রাকচারিং, হাই-কোয়ালিটি রেন্ডারিং ও ডায়নামিক ভিজ্যুয়াল দ্বারা পরিপূর্ণ। এছাড়া এই ওএস এন্ড-টু-এন্ড সিকিউরিটিতেও ফোকাস করে যাতে হার্ডওয়্যার-লেভেল প্রটেকশন, সেল্ফ-ডেভলপড ট্রাস্টেড এক্সিকিউশন এনভায়রনমেন্ট, এবং শক্তিশালী সিস্টেম অ্যাপ সিকিউরিটির মত ফিচার রয়েছে।

হাইপারওএস কবে মুক্তি পায়?

শাওমি ১৪ সিরিজ এর হাত ধরে চীনে ২০২৩ সালের অক্টোবর মাসে মুক্তি পায় হাইপার ওএস।

MIUI এর চেয়ে HyperOS ভিন্ন কিভাবে?

শাওমির পূর্বের মিইউআই এর চেয়ে বেশ ভিন্ন এই নতুন হাইপারওএস। হাইপারওএস তৈরী করা হয়েছে ওপেন সোর্স এন্ড্রয়েড প্রজেক্ট, AOSP ও শাওমির Vela সিস্টেম এর উপর ভিত্তি করে। অন্য কারো উপর নির্ভর করা ছাড়াই নিজেদের একাধিক ক্যাটাগরির ডিভাইসে স্মুথ পারফরম্যান্স প্রদান করার লক্ষ্যে এই অপারেটিং সিস্টেম তৈরী করেছে শাওমি।

এন্ড্রয়েড-১৪ ভিত্তিক হাইপারওএস এর সাথে দেখা মিলবে ইম্প্রুভড পারফরম্যান্স, ফাস্টার বুট টাইম ও স্মুথ ব্যাকগ্রাউন্ড অপারেশন। শাওমি ইকোসিস্টেম ডিভাইস এর বিশাল ক্যাটালগও সাপোর্ট করবে এই ওএস যাতে স্মার্টফোন এর পাশাপাশি রয়েছে স্মার্টওয়াচ, টিভি, এমনকি কারও।

HyperOS এর ফিচারসমূহ

হাইপারওএস এর সাথে অনেক নতুন ফিচার এসেছে, যুক্ত হয়েছে অনেক উন্নতি। চলুন জেনে নেওয়া যাক হাইপারওএস এর ফিচারসমূহ সম্পর্কে বিস্তারিত।

ডিজাইন

মিইউআই এর মত প্রায় একই ডিজাইন থাকলেও হাইপারওএস অধিক রিফাইনড ও ক্লাস্টার-ফ্রি ইন্টারফেস অফার করছে। অপেক্ষাকৃত কম প্রি-ইন্সটলড অ্যাপ ও ব্লোটওয়্যার থাকছে এখানে যা ক্লিনার ও অধিক স্ট্রিম-লাইনড ইউজার এক্সপেরিয়েন্স প্রদান করবে।

এনিমেশন

হাইপারওএস-এ রয়েছে অধিক স্মুথ ও রিফাইনড এনিমেশন, যা মিইউআই এর ডায়নামিক স্টাইলের উপর আরো রিফাইনমেন্ট যোগ করেছে।

কাস্টমাইজেশন

মিইউআই-এ যথেষ্ট কাস্টমাইজেশন এর অপশন থাকলেও হাইপারওএস এক্ষেত্রে অনেক অনেক এগিয়ে। সিস্টেম সেটিংস থেকে শুরু করে প্রতিটি অ্যাপে রয়েছে অসংখ্য কাস্টমাইজেশনের সুযোগ। উদাহরণস্বরুপ: ছবিতে ট্যাপ করে ধরে রেখে উক্ত ছবির নির্দিষ্ট অংশকে স্টিকার হিসেবে ব্যবহার করার কিংবা কপি করার মত ফিচার থাকছে যা আমরা আইওএস-এ প্রথম দেখেছিলাম। এরকম ছোটো থেকে বড় অসংখ্য কাস্টমাইজেশন ফিচারে ভর্তি হাইপারওএস।

ডায়নামিক আইল্যান্ড এর মত ফোন চার্জিং এনিমেশন রয়েছে হাইপারওএস-এ। ইম্প্রুভড ফ্লোটিং উইন্ডো ও স্প্লিট-স্ক্রিন ফাংশনালিটির সাথে মাল্টিটাস্কিং-এ দারুণ উন্নতি এসেছে হাইপারওএস-এ। এছাড়া বেশ কাস্টমাইজেবল ও অসংখ্য স্টাইল ও ইফেক্টে ভর্তি হাইপারওএস এর লকস্ক্রিন।

xiaomi hyperos

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

পারফরম্যান্স

মিইউআই এর চেয়ে অনেক বেশি স্টোরেজ-এফিসিয়েন্ট হাইপারওএস, যা মিইউআই ১৪ এর চেয়ে ৩০% কম স্টোরেজ ব্যবহার করে। এর ফলে অধিক স্মুথ ও ফ্লুইড পারফরম্যান্স প্রদান করবে এই নতুন ওএস।

র‍্যাম ইউটিলাইজেশন এর ক্ষেত্রেও উন্নতি এসেছে এখানে যার ফলে অ্যাপগুলো লম্বা সময় ধরে একটিভ থাকবে ও প্রতিনিয়ত অ্যাপ রিলোড এর সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

এছাড়াও অপটিমাইজড রিসোর্স এলোকেশন ও পাওয়ার ম্যানেজমেন্ট এর মত এডভান্সড ফিচার রয়েছে এখানে যার ফলে ব্যাটারি লাইফে উন্নতি আসবে।

এআই-ভিত্তিক ফিচার

কাটিং-এজ এআই ফিচারে ভর্তি হাইপারওএস, যার মধ্যে রয়েছে ছবি থেকে এআই-এনহেন্সড টেক্সট রেকগনিশন, এডভান্সড স্পিচ জেনারেশন, ও ইন্টেলিজেন্ট ইমেজ সার্চ।

শাওমির হাইপারকানেক্ট ও হাইপারমাইন্ড টেকনোলজি ব্যবহার করে ডিভাইস ইন্টারকানেকটিভিটি উন্নত করবে হাইপারওএস যার ফলে শাওমি ইকোসিস্টেমে থাকা স্মার্টফোন, স্মার্টওয়াচ এবং স্মার্ট হোম ডিভাইস এর ফাংশনালিটিতে উন্নতি আসবে।

সিমলেস ডিভাইস সুইচিং, রিমোট ডাটা ও অ্যাপ অ্যাকসেস, এবং ফাস্টার অ্যাপ লোডিং টাইমের মত ফিচারও অফার করছে হাইপারওএস। 👉 স্টক এন্ড্রয়েড কি? এর সুবিধা ও অসুবিধা জানুন

যেসব ডিভাইস HyperOS আপডেট পাবে

হাইপারওএস আপডেট পাবে এমন শাওমি ও রেডমি ডিভাইসগুলোর তালিকা নিচে দেওয়া হলো:

  • শাওমি ১১ সিরিজ, ১১টি সিরিজ, ১১এক্স সিরিজ, ১১আই সিরিজ, ১২ সিরিজ, ১২টি সিরিজ, ১২এস সিরিজ, ১৩ সিরিজ, ১৩টি ২০২৪ এর প্রথম কোয়ার্টারে আপডেট পেতে পারে
  • শাওমি ১৪ সিরিজে হাইপারওএস প্রি-ইন্সটলড রয়েছে
  • শাওমি মিক্স ফোল্ড ও Civi সিরিজে ২০২৪ এর প্রথম কোয়ার্টারে আপডেট আসবে
  • শাওমি প্যাড ৬ সিরিজে ২০২৪ এর জানুয়ারী থেকে আপডেট আসা শুরু হয়েছে, প্যাড ৫ সিরিজ প্রথম কোয়ার্টারে আপডেট পাবে
  • রেডমি কে৪০ সিরিজ, কে৫০ সিরিজ, কে৬০ সিরিজ, এবং ১১ সিরিজেও প্রথম কোয়ার্টারে আপডেট আসবে
  • রেডমি ১১ প্রাইম, ১২ সিরিজ ও নোট ১২ সিরিজে, রেডমি ১২সি হাইপারওএস আপডেট আসবে শীঘ্রই
  • রেডমি নোট ১৩ সিরিজেও শীঘ্রই আপডেট আসতে চলেছে
  • রেডমি প্যাড ও প্যাড এসই-তেও প্রথম কোয়ার্টারে আপডেট আসতে চলেছে
  • পোকো এম৬ প্রো ৫জি-ও শীঘ্রই হাইপারওএস আপডেট পাবে
  • পোকো সি৫১ ও সি৫৫ এর পাশাপশি পোকো এক্স, এফ ও এম সিরিজের অন্যান্য ডিভাইসেও আপডেট আসতে যাচ্ছে চলতি বছরের প্রথম কোয়ার্টারে
  • পোকো এফ৫ ইতিমধ্যে হাইপারওএস আপডেট পেয়েছে

যেহেতু ইতোমধ্যে অনেক ডিভাইসে এই আপডেট পৌঁছে যাচ্ছে বা যাবে, তাই সকল ডিভাইসের তালিকা এখানে প্রদান করা সম্ভব হয়নি। 👉 অ্যান্ড্রয়েড ফোন আপডেট করার নিয়ম

HyperOS সম্পর্কে যত প্রশ্ন

হাইপারওএস কি?

হাইপারোএস হলো শাওমির লেটেস্ট অপারেটিং সিস্টেম, যা লিনাক্স ও শাওমি Vela এর উপর ভিত্তি করে তৈরী। এতে কম্প্যাক্ট ফার্মওয়্যার সাইজ ও হিউম্যান-সেন্ট্রিক ডিজাইন, স্মার্ট ইকোসিস্টেম রয়েছে।

হাইপারওএস কি মিইউআই এর চেয়েও ভালো?

হাইপারওএস-এ ক্লিন ডিজাইন ও পারফরম্যান্স অধিক গুরুত্ব পেয়েছে, যেখানে মিইউআই ফিচার ও কাস্টমাইজেশনে ভর্তি ছিলো। তাই কোনটি অধিক ভালো তা সম্পূর্ণ নির্ভর করছে আপনার পছন্দের উপর।

পুরোনো শাওমি ডিভাইসগুলো হাইপারওএস আপডেট পাবে কি?

পুরোনো ডিভাইসগুলোর জন্য ২০২৪ সালের দ্বিতীয় কোয়ার্টারে এন্ড্রয়েড ১৩-ভিত্তিক হাইপারওএস রিলিজ করার প্ল্যান করছে শাওমি। তবে বলে রাখা ভালো হাইপারওএস এর সকল ফিচার হয়ত থাকবেনা এসব ডিভাইসে।

হাইপারওএস সম্পর্কে আপনার জিজ্ঞাসা, মতামত, ইত্যাদি বাংলাটেক এর পাঠকদের সাথে শেয়ার করতে পারেন কমেন্ট সেকশনে।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,585 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *