স্টক এন্ড্রয়েড কি? এর সুবিধা ও অসুবিধা জানুন

স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা মূলত যে এন্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করেন সেই এন্ড্রয়েডের বিভিন্ন রকম ভার্শন থাকে যেমন স্টক এন্ড্রয়েড, এন্ড্রয়েড ওয়ান, এন্ড্রয়েড গো ইত্যাদি। আপনারা অনেকেই হয়তো স্টক এন্ড্রয়েড কি এ সম্পর্কে জানেন আবার অনেকেই জানেন না।

তবে আপনি আপনার এন্ড্রয়েড ফোনে কোন ধরনের এন্ড্রয়েড ভার্সন ব্যবহার করছেন সেটি জানা আপনার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের আজকের এই আর্টিকেলে আমরা স্টক এন্ড্রয়েড কি, এর সুবিধা বা অসুবিধা কিংবা আপনার ফোনে এই স্টক এন্ড্রয়েড আছে কি না এটি কিভাবে চেক করবেন সে ব্যাপারে বিস্তারিত আলোচনা করবো। 

স্টক এন্ড্রয়েড কি?

স্টক এন্ড্রয়েড বলতে মূলত এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের একটি ভার্সনকে বোঝানো হয়। এই স্টক এন্ড্রয়েডকে কোনো ধরনের মডিফিকেশন করা হয় না। একে সাধারণত পিওর এন্ড্রয়েডও বলা হয়। সর্বপ্রথম গুগল নেক্সাস ফোনে স্টক এন্ড্রয়েড ব্যবহার করা হয়েছিল। তবে বর্তমান সময়ে নানা স্মার্টফোন কোম্পানি তাদের ডিভাইসে স্টক এন্ড্রয়েড ব্যবহার করছে। 

উদাহরণস্বরূপ, সনি ফোনগুলি অ্যান্ড্রয়েডের স্টক সংস্করণের কাছাকাছি চলে, কিন্তু তারা তাদের নির্দিষ্ট ডিজাইন পূরণ করতে অপারেটিং সিস্টেম পরিবর্তন করে (রি-স্কিন)। স্যামসাং এর গ্যালাক্সি নোট ১০ এবং S10 ফোনের আরেকটি উদাহরণ যা ওয়ান ইউয়াই নামে একটি কাস্টম ওএসের সাথে আসে। শাওমি তার নিজস্ব কাস্টম অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করে যার নাম হাইপারওএস।

যেহেতু অ্যান্ড্রয়েড একটি ওপেন সোর্স প্রজেক্ট, তাই ক্যারিয়ার এবং ওইএম (মূল সরঞ্জাম প্রস্তুতকারক) অপারেটিং সিস্টেমের মূল কার্যকারিতাগুলির সাথে অসাধারণ স্বাধীনতা নেয়৷ যদিও বেশিরভাগ স্মার্টফোন নির্মাতারা এখনও অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমেরএকটি কাস্টম সংস্করণ ব্যবহার করছে। স্টক এন্ড্রয়েড মূলত গুগল তৈরি করে থাকে এবং অন্যান্য যে কোনো ধরনের স্মার্টফোন কোম্পানি এটিকে নিজের ফোনে ব্যবহার করে থাকে। 

android

তাছাড়া স্টক এন্ড্রয়েড গুগল কর্তৃক তৈরি করা হয়ে থাকে তাই গুগলের সমস্ত রকম সফটওয়্যার বা অ্যাপস এই অপারেটিং সিস্টেমের মাধ্যমে খুব সহজে এবং সাবলীল ভাবে ব্যবহার করা যায়। স্টক এন্ড্রয়েড পরিচালিত স্মার্টফোন গুলিতে কোনো ধরনের অপ্রয়োজনীয় সফটওয়্যার কিংবা অ্যাপ পাওয়া যায় না। এর ফলে স্টক এন্ড্রয়েড ফোনগুলো ব্যবহার করার ক্ষেত্রে খুব স্মুথ অভিজ্ঞতা পাওয়া সম্ভব হয়। 

স্টক এন্ড্রয়েড এর সুবিধা সমূহ

স্টক এন্ড্রয়েড এর অনেক সুবিধা রয়েছে যার মধ্যে কয়েকটি নিচে আলোচনা করা হলো।

  • স্টক এন্ড্রয়েড একটি সহজ ইউজার ইন্টারফেস প্রদান করে, যা ব্যবহারকারীদের জন্য আদর্শ যারা একটি মিনিমাল ডিজাইন পছন্দ করেন। ইন্টারফেসটি নেভিগেট করা সহজ, এটি এমন মানুষের জন্য একদম আদর্শ যারা মোবাইল ফোন আরামে ব্যবহার করতে চান।
  • স্টক এন্ড্রয়েড দ্রুত গতির হওয়ার জন্য পরিচিত, কারণ এতে বাইরের কারো দ্বারা যোগ করা কোনো অতিরিক্ত ফিচার বা স্কিন নেই।
  • গুগল নিয়মিত এন্ড্রয়েড এর জন্য নিরাপত্তা আপডেট প্রকাশ করে এবং একটি স্টক এন্ড্রয়েড ইউআই সহ, এই আপডেটগুলি সাধারণত ডিভাইসে সরাসরি বিতরণ করা হয়। এগুলো ডিভাইসটিকে সুরক্ষিত রাখতে এবং সর্বশেষ নিরাপত্তা প্যাচের সাথে আপ টু ডেট রাখতে সাহায্য করে।
  • স্টক এন্ড্রয়েড ডিভাইসে সাধারণত আগে থেকেই ইনস্টল করা কোনো অ্যাপ আসে না, যা ব্লোটওয়্যার নামেও পরিচিত। এর মানে হল ব্যবহারকারীদের তাদের ডিভাইসে কোন অ্যাপ ইনস্টল করা থাকবে তার উপর আরও বেশি নিয়ন্ত্রণ থাকব এবং তাদের কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অ্যাপগুলি বেছে নিতে পারবে।
  • স্টক এন্ড্রয়েড ডিভাইসে সাধারণত অন্যান্য ডিভাইসের চেয়ে কম স্টোরেজ ব্যবহৃত হয়। কেননা অন্যান্য ইউজার ইন্টারফেসে অনেক অ্যাপ ও স্কিন আগে থেকেই ইন্সটল করা থাকে। এবং কিছু অতিরিক্ত ফিচারও সাথে থাকায় তাদের আরও বেশি স্টোরেজের দরকার হয়।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

স্টক এন্ড্রয়েড ফোনের অসুবিধা?

স্টক এন্ড্রয়েডের যেমন সুবিধা রয়েছে তেমনি কারো কারো মতে এর কিছু অসুবিধাও রয়েছে। যেমনঃ

  • ব্যবহারকারী কর্তৃক স্টক এন্ড্রয়েডের কাস্টমাইজেশন করার ক্ষমতা অনেক সীমিত। তাই এমন ব্যবহারকারীদের জন্য অসুবিধা হতে পারে যারা তাদের ডিভাইস প্রচুর পরিমাণে কাস্টোমাইজ করে থাকেন বা করতে পছন্দ করেন।
  • বাইরের কোম্পানির ইউজার ইন্টারফেসে বেশ কিছু এক্সট্রা ফিচার থাকে যা স্টক এন্ড্রয়েডে অনুপস্থিত অথবা উপস্থিত হলেও অন্যান্য ইন্টারফেসের মত সুবিধা জনক না। যেমন অ্যাপ ক্লোন করার সুবিধা বা স্প্লিট স্ক্রীনে একই সময়ে একাধিক অ্যাপ ব্যবহার করা।

এন্ড্রয়েডের ভার্শন এবং আপডেট কিভাবে চেক করতে হয়?

আপনি কোন এন্ড্রয়েড ভার্শন ব্যবহার করছেন এটি চেক করা খুবই সহজ। এজন্য আপনার এন্ডয়েড ফোনে নিম্নলিখিত উপায় গুলো অনুসরণ করুন-

  • ফোনের স্ক্রিন সোয়াইপ ডাউন করে প্রথমে নোটিফিকেশন প্যানেল নামিয়ে নিন। এবার এখান থেকে গিয়ার আইকনে ট্যাপ করে এন্ড্রয়েড সেটিংস অপশনে প্রবেশ করুন। আপনি এটি অ্যাপ ড্রয়ারের সেটিংস অ্যাপেও করতে পারেন।
  • সেখানে যাবার পরে নিচের দিকে স্ক্রল ডাউন করে এবাউট ফোন অপশনে ট্যাপ করুন।
  • এখান থেকে নিচের দিকে সামান্য স্ক্রল ডাউন করলে আপনি আপনার স্মার্টফোনের এন্ড্রয়েড ভার্শন দেখতে পারবেন।

👉 এন্ড্রয়েড ফোন আপডেট করার নিয়ম

যদি দেখতে পান আপনার এন্ড্রয়েড অনেক পুরাতন ভার্শন ব্যবহার করছে তাহলে হয়তো আপনার জন্য কোনো আপডেট উপলুব্ধ থাকতে পারে। স্টক এন্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের এন্ড্রয়েড আপডেট চেক করার জন্য নিম্ন লিখিত উপায় গুলি অনুসরণ করতে হবে –

  • ফোনের স্ক্রিন সোয়াইপ ডাউন করে প্রথমে নোটিফিকেশন প্যানেল নামিয়ে নিন। এবার এখান থেকে গিয়ার আইকনে ট্যাপে করে এন্ড্রয়েড সেটিংস অপশনে প্রবেশ করুন। আপনি এটি অ্যাপ ড্রয়ারের সেটিংস অ্যাপেও করতে পারেন।
  • এবার নিচের দিকে স্ক্রল ডাউন করে সিস্টেম অপশন এ ট্যাপ করুন।
  • সিস্টেম পেজে থাকা সিস্টেম আপডেট অপশনে ট্যাপ করুন। 
  • আপনার জন্য কোন আপডেট বরাদ্দ আছে কিনা এটি জানার জন্য চেক ফর আপডেট বাটনে ট্যাপ করুন।

আপনার ফোন যদি পুরাতন ভার্সনের এন্ড্রয়েড ব্যবহার করে থাকে এবং আপনি এখানে কোন আপডেট খুঁজে না পান তাহলে আপনার ফোন নতুন আপডেটের জন্য যথেষ্ট পুরাতন হয়ে গিয়েছে। তবে এমনটিও হতে পারে যে নতুন আপডেট আপনার ফোনের জন্য এখনো অ্যাভেইলেবল হয়ে পারেনি। এক্ষেত্রে আপনার ফোন তৈরিকারী কোম্পানির কাছ থেকে আপনি আরো বেশি তথ্য পেতে পারেন। 👉 এন্ড্রয়েড ফোন ফ্যাক্টরি রিসেট করার নিয়ম

কিছু সেরা স্টক অ্যান্ড্রয়েড ফোনের তালিকা

যেহেতু অ্যান্ড্রয়েড অত্যন্ত কাস্টমাইজযোগ্য, এটি মোবাইল ফোন নির্মাতাদের অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের মৌলিক কাঠামো পরিবর্তন করার স্বাধীনতা দেয়। তারা তাদের স্মার্টফোনকে একটি অনন্য এবং আকর্ষণীয় ইন্টারফেস প্রদান করে। সব ব্র্যান্ডের স্মার্টফোন নির্মাতারই ইউজার-ইন্টারফেস থাকে। চলুন দেখে নেওয়া যাক সেরা কিছু স্টক অ্যান্ড্রয়েড ফোন:

  • গুগল পিক্সেল 4 সিরিজ
  • গুগল পিক্সেল 3 সিরিজ
  • শাওমি এমআই A3
  • ইনফিনিক্স নোট 5
  • নোকিয়া 7.1
  • মটোরোলা ওয়ান ভিশন 

স্টক এন্ড্রয়েড সম্পর্কিত আমাদের আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাদের কাছে কেমন লেগেছে তা আমাদের কমেন্ট এর মাধ্যমে জানিয়ে দিতে পারেন। এছাড়াও নিত্য নতুন টেকনোলজি বিষয়ক নানা ধরনের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য এবং প্রয়োজনীয় সকল ধরনের টিপস এন্ড ট্রিকস পেতে চোখ রাখুন আমাদের এই ওয়েবসাইটে। 

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,585 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *