বিকাশে ফিঙ্গারপ্রিন্ট বা ফেস আইডি লগিন চালু করার নিয়ম

সম্প্রতি বিকাশ নিয়ে এসেছে বায়োমেট্রিক লগিন সিস্টেম। অর্থাৎ ফিংগারপ্রিন্ট বা ফেস আইডি ব্যবহার করে বিকাশ অ্যাপে লগিন করার অসাধারন ফিচার চলে এসেছে। এই সুবিধা বিকাশে যুক্ত হওয়ার ফলে প্রতিবার বিকাশ অ্যাপে লগিনের সময় বিকাশ পিন প্রদান করতে হবেনা।

বায়োমেট্রিক লগিন সুবিধা বিকাশে যুক্ত হওয়ার মাধ্যমে প্রথমত অ্যাপে প্রবেশ করার প্রক্রিয়া বেশ সহজ হয়ে যাবে। আবার বায়োমেট্রিক লগিন ফিচারের কল্যাণে পাওয়া যাবে শক্তিশালী নিরাপত্তা। সকল বিকাশ গ্রাহক বিকাশ অ্যাপ আপডেট করে উক্ত নতুন লগিন সিস্টেম উপভোগ করতে পারবেন। এই পোস্টে আমরা বিকাশ অ্যাপে ফিংগারপ্রিন্ট বা ফেস আনলক ব্যবহার করে লগিন সেটআপের নিয়ম জানবো, সাথে ফিচারটির সুবিধা অসুবিধাও জানবো।

বিকাশ বায়োমেট্রিক লগিন কি নিরাপদ?

প্রথমত আলোচনা করা যেতে পারে বিকাশ ফিংগারপ্রিন্ট বা ফেস আইডির মাধ্যমে লগিনের সুবিধাগুলো সম্পর্কে:

  • বিকাশ গ্রাহকগণ দ্রুত বিকাশ অ্যাপে লগিন করতে পারবে
  • বিকাশ অ্যাপে লগিন এর ক্ষেত্রে পিন কোড প্রদান করার বাধ্যবাধকতা থাকছেনা
  • গ্রাহক নিজে ছাড়া অন্য কেউ অ্যাপে লগিন করতে পারবেনা
  • বিকাশ পিন ভুলে গেলেও অ্যাপে লগইন করা যাবে (যদিও এরপরেও লেনদেনের জন্য পিন দরকার হবে)

তবে এই নতুন ফিচারের কিছু অসুবিধাও রয়েছে, যেমন:

  • বর্তমানে এআই বা আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স বেশ শক্তিশালী হয়ে  গিয়েছে যার ফলে ফেস ভেরিফিকেশন এর মত নিরাপদ প্রযুক্তিকেও ম্যানিপুলেট করা সম্ভব হতে পারে
  • গ্রাহকের অগোচরে যেকেউ চালাকি করে গ্রাহকের ফেস আনলক বা ফিংগারপ্রিন্ট এর ব্যবহার করে অ্যাপে প্রবেশ করতে পারবে

এইতো জানলেন বিকাশ এর নতুন ফিচার এর সুবিধা-অসুবিধা সম্পর্কে। ব্যাপারগুলো জানার পর সিদ্ধান্ত সম্পূর্ণ আপনার, আপনি এই ফিচার ব্যবহার করবেন কি করবেন না। তবে সহজ ভাষায় বলতে গেলে ফিংগারপ্রিন্ট বেশ নিরাপদ একটি প্রযুক্তি হলেও আপনি ঘুমিয়ে পড়লে বা অচেতন থাকলেও এটি ব্যবহার করে যেকেউ বিকাশ অ্যাপে লগিন কিন্তু করতে পারবে। তাই সবসময় নিজের বিকাশ একাউন্ট লগিন করা ডিভাইসের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ভুলবেন না। অনেক তো হলো নতুন ফিচার এর ভালোমন্দের আলাপ। এবার চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে বিকাশ অ্যাপে ফিংগারপ্রিন্ট বা ফেস আনলক লগিন ফিচার চালু করবেন।

বিকাশ অ্যাপে বায়োমেট্রিক লগিন ফিচার চালু করার নিয়ম

বিকাশ অ্যাপে ফিংগারপ্রিন্ট বা টাচ আইডি এবং ফেস আইডি বা ফেস আনলক ব্যবহার করে বিকাশ বায়োমেট্রিক লগিন ফিচার সেটাপ করা যাবে। চলুন জেনে নেওয়া যাক বিকাশ অ্যাপে ফেস আনলক বা ফিংগারপ্রিন্ট ব্যবহার করে লগিন ফিচার চালু করার নিয়ম। প্রথমে প্লে স্টোর বা অ্যাপ স্টোর থেকে বিকাশ অ্যাপ আপডেট করে নিন লেটেস্ট ভার্সনে।

এরপর বিকাশ অ্যাপ ওপেন করুন, অ্যাপে প্রবেশ করে বিকাশ পিন এর পাশে থাকা বায়োমেট্রিক ফিংগারপ্রিন্ট আইকনে ট্যাপ করুন।

bkash app login page

ফিংগারপ্রিন্ট আইকনে ট্যাপ করার পর নিচে দেখানো স্ক্রিনটি দেখতে পাবেন যাতে টাচ/ফেস আইডি সম্পর্কে তথ্য দেখতে পাবেন। পরবর্তী অপশনে ট্যাপ করে এগিয়ে যান

bkash app info safety page

এরপর বিকাশ একাউন্টের পিন প্রদান করতে হবে। বিকাশ অ্যাপের পিন প্রদান করে নিশ্চিত করুন ও এগিয়ে যান

bkash app pin input page

এরপর আপনার ফোনে ফিংগারপ্রিন্ট বা ফেস আনলক – যে সিকিউরিটি অপশন চালু আছে সেটি পপ-আপ হিসেবে প্রদর্শিত হবে। ফেস আইডি বা ফিংগারপ্রিন্ট ব্যবহার করে ভেরিফাই করলে বিকাশ অ্যাপে ফেস আইডি বা টাচ আইডি যুক্ত হয়ে যাবে।

bkash app biometric page

এভাবে বেশ সহজে বিকাশ অ্যাপে ফেস আইডি বা টাচ আইডি ফিচার যোগ করা যাবে। সঠিকভাবে বিকাশ অ্যাপে বায়োমেট্রিক লগিন যুক্ত করতে পারলে পরবর্তীবার লগিন এর ক্ষেত্রে এগুলো ব্যবহার করেই লগিন করা যাবে।

সফলভাবে বিকাশ অ্যাপে ফেস আইডি বা টাচ আইডি লগিন ফিচার যুক্ত করার পর অভিনন্দন লেখা দেখতে পাবেন।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

bkash app biometric success page

বলে রাখা ভালো যে বিকাশ পিন পরিবর্তন করলে বা মোবাইল ফোন পরিবর্তন করলে বা নতুন ফোনে বিকাশ একাউন্ট লগিন করলে সেক্ষেত্র বায়োমেট্রিক লগিন রিসেট হয়ে যাবে ও নতুন করে এই ফিচার সেটাপ করতে হবে।

আপনি কি বিকাশ অ্যাপে বায়োমেট্রিক ফিচার যুক্ত করবেন? এই ফিচারটি সম্পর্কে আপনার মতামত বাংলাটেক এর পাঠকদের সাথে শেয়ার করতে পারেন কমেন্ট সেকশনে।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,585 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *