এইচটিসি ওয়ান সংশ্লিষ্ট পেটেন্ট মামলায় নকিয়ার জয়

HTC_Oneনেদারল্যান্ডের একটি আদালতে এইচটিসি বনাম নকিয়ার মধ্যে মেধাস্বত্ব সঙ্ক্রান্ত একটি মামলায় ফিনিশ মোবাইল নির্মাতা বিশাল জয় পেয়েছে। এইচটিসি ওয়ান ফ্ল্যাগশিপ হ্যান্ডসেটে নকিয়ার মাইক্রোফোন প্রযুক্তির লাইসেন্সবিহীন ব্যবহারের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ডাচ কোর্ট তাইওয়ানিজ কোম্পানিটির উপর উক্ত উপাদান সংযুক্তির ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। বিবিসি জানাচ্ছে, এই রায় খুচরা যন্ত্রাংশ সংকটে ভুগতে থাকা স্মার্টফোন প্রস্তুতকারী কোম্পানিটির উপর চাপ বৃদ্ধি করবে।

নকিয়া বলছে, তারা এইচটিসি ওয়ান ফোন পরীক্ষা করে এর মধ্যে তাদের উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন শব্দ-গ্রাহক প্রযুক্তির মত অবিকল ব্যবস্থা দেখতে পেয়েছে। কোর্টের ঘোষণায় এইচটিসি বিব্রত হয়েছে এবং তাৎক্ষণিকভাবে বিকল্প উপায় খুঁজতেও শুরু করেছে বলে প্রতিষ্ঠানটির এক বিবৃতি থেকে জানা যায়।

উক্ত রায় নেদারল্যান্ডের অ্যামস্টারডম ডিসট্রিক্ট কোর্টে ঘোষিত হয়েছে যা ২০১৪ সালের মার্চ মাস পর্যন্ত বলবৎ থাকবে; ফলে অভিযুক্ত কম্পোনেন্টটির বিক্রেতা এসটি মাইক্রো তা নেদারল্যান্ডে এইচটিসির নিকট বিক্রয় করতে পারবে না।

আদালতের নিরীক্ষণে প্রশ্নবিদ্ধ প্রযুক্তিটি নকিয়ার উদ্ভাবন বলে প্রমাণিত হয়েছে এবং এগুলো ফিনিশ ফার্মটির মোবাইল ডিভাইসের জন্যই বিশেষভাবে প্রস্তুত করা হয়ে থাকে। নকিয়া বলেছে, তাদের উক্ত প্রযুক্তি বা মাইক্রোফোন ব্যবহারের জন্য এইচটিসির কাছে কোন লাইসেন্স/ অনুমতি নেই।

তবে এই রায় কেবলমাত্র নেদারল্যান্ডের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য হবে। অন্য দেশে এইচটিসির বিরুদ্ধে উক্ত প্রযুক্তি নিয়ে লড়াই করতে চাইলে নকিয়াকে প্রত্যেক দেশে আলাদা আলাদা মামলা করতে হবে। অবশ্য ইউরোপের মধ্যে যেকোন দেশের আদালত ডাচ কোর্টের সিদ্ধান্তটি বিবেচনায় রাখবে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,265 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.