Advertisements

একীভূত হতে বিটিআরসির অনুমতি চেয়েছে রবি ও এয়ারটেল

By -

robi-airtel img

সেপ্টেম্বরের শুরু দিকে হয়ত জেনেছেন যে বাংলাদেশের দুই মোবাইল ফোন অপারেটর রবি আজিয়াটা লিমিটেড ও এয়ারটেল বাংলাদেশ লিমিটেড এক হয়ে যাওয়ার আলোচনা শুরু করেছে। এর আগে কিছুদিন ধরে গুঞ্জন হচ্ছিল যে বাংলাদেশ থেকে ব্যবসা গুটিয়ে নেয়ার চিন্তা করছে ভারতী এয়ারটেল। এরই মধ্যে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে রবি ও এয়ারটেল এর পক্ষ থেকে তাদের ব্যবসা এক করার আলোচনার কথা জানানো হয়েছে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 1,148 other subscribers

এখন সংবাদপত্রের প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে যে, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা (বিটিআরসি) এর নিকট চিঠি দিয়েছে রবি ও এয়ারটেল। এই দুই মোবাইল ফোন অপারেটর কর্তৃক যৌথভাবে পাঠানো ঐ চিঠির মাধ্যমে এয়ারটেল ও রবি পরস্পর একীভূত হওয়ার অনুমতি চেয়েছে বিটিআরসির কাছে। বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের খবর।

খবরে প্রকাশ, ওই চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, একীভূত হওয়ার পর মালয়েশিয়া ভিত্তিক আজিয়াটা গ্রুপ ও এনটিটি ডকোমার কাছে থাকবে ৭৫ শতাংশ শেয়ার আর ভারতি এয়ারটেলের কাছে থাকবে বাকি ২৫ শতাংশ শেয়ার। দুই কোম্পানির ব্যবসা একীভূত করার পর ০১৬ দিয়ে শুরু এয়ারটেলের গ্রাহকদের নম্বর অপরিবর্তিত থাকবে। ৩ বছর পর ০১৬ দিয়ে আর কোনো নতুন সিম বিক্রি হবেনা।

বাংলাদেশে মোট মোবাইল ফোন গ্রাহক সংখ্যা ১৩ কোটি, যার মধ্যে ২ কোটি ৭৯ লাখ রবির এবং ৯০ লাখ এয়ারটেলের।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, আজিয়াটা গ্রুপ বারহাড, মালয়েশিয়া এবং এনটিটি ডোকোমো ইনকরপোরেটেড, জাপান এর একটি যৌথ প্রতিষ্ঠান রবি আজিয়াটা লিমিটেড। রবি আজিয়াটা আগে টেলিকম মালয়েশিয়া ইন্টারন্যাশনাল (বাংলাদেশ) নামে পরিচিত ছিল। এ্যাকটেল ব্র্যান্ড হিসেবে ১৯৯৭ সালে বাংলাদেশে এর যাত্রা শুরু হয়। ২০১০ সালের ২৮ মার্চ, এই সেবাটি ‘রবি’ ব্র্যান্ড হিসেবে অভিহিত হয়, এবং প্রতিষ্ঠানটি রবি আজিয়াটা লিমিটেড নামে পরিচিত হয়। আর এয়ারটেল বাংলাদেশ লিমিটেডের মালিক ভারতের টেলিকম জায়ান্ট ভারতী এয়ারটেল, যারা বাংলাদেশে ওয়ারিদ টেলিকমের ব্যবসা কিনে নিয়েছিল।

Advertisements

Comments

Leave a Reply