ওয়ানপ্লাস ১২ আসছে নতুন ফ্লাগশিপ অভিজ্ঞতা নিয়ে

চীনের বাজারে মুক্তি পেলো ওয়ানপ্লাস, যা নিকট ভবিষ্যতে বিশ্বব্যাপী লঞ্চ হতে যাচ্ছে। এই ফোন হতে পারে ওয়ানপ্লাস এর নতুন বিকল্প ফ্ল্যাগশিপ। চলুন জেনে নেওয়া যাক কেমন হলো ওয়ানপ্লাস এর নতুন ফ্ল্যাগশিপ ফোন।

ডিসপ্লে

ওয়ানপ্লাস ১২ ফোনটিতে বিশাল ৬.৮২ ইঞ্চি কোয়ালএইচডি+ ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। ৪৫০০ নিটস পর্যন্ত পিক ব্রাইটনেস সাপোর্ট করবে ফোনটির ডিসপ্লে। স্পেসিফিকেশন শুনে হয়ত বুঝতেই পারছেন কাগজে কলমে বাজারের সবচেয়ে উজ্জ্বল ডিসপ্লে হতে যাচ্ছে এটি। কিছুদিন আগে মুক্তি পাওয়া শাওমি ১৪ প্রো তে ৩০০০ নিটস ব্রাইটনেস ডিসপ্লে ছিলো।

নতুন প্রযুক্তি

ওয়ানপ্লাস ১২ এর অসাধারণ একটি সুবিধা হলো বৃষ্টির মধ্যেও কোনো ধরনের সমস্যা ছাড়াই এই ফোন ব্যবহার করা যাবে, যা মূলত ওয়ানপ্লাস এর ইন-হাউস “রেইনওয়াটার টাচ” প্রযুক্তির ফসল। ওয়ানপ্লাস এইচ ২ প্রো এর সাথে মুক্তি পাওয়া এই ফিচার মূলত ভেজা অবস্থাতেও ফোনকে ব্যবহারের সুবিধা প্রদান করে। মূলত বর্ষাকালে এই ফিচারটি বেশি কাজে আসবে যখন ফোনে অল্প পানি লাগলেই স্ক্রিন আর কাজ করতে চায়না।

পারফরম্যান্স

সদ্য মুক্তি পাওয়া ওয়ানপ্লাস ১২ ফোনটিতে কোয়ালকম এর লেটেস্ট স্ন্যাপড্রাগন জেন ৩ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে যার দেখা মিলবে ২০২৪ এর সকল ফ্ল্যাগশিপ ফোনে। আইকো ১২ সহ মাত্র কয়েকটি ফোনে প্রিমিয়াম এই চিপসেট এর দেখা মিলেছে ইতিমধ্যেই যা থেকে নতুন মাত্রার পারফরম্যান্স পাওয়া যাবে। সাথে থাকছে  LPDDR5X র‍্যাম ও ইউএফএস ৪.০ স্টোরেজ সল্যুশন যা রিড ও রাইট স্পিডে অনন্য মাত্রা যুক্ত করবে।

ক্যামেরা

ওয়ানপ্লাস ওপেন এর মত একই ধরনের ক্যামেরা সেটাপ থাকছে ওয়ানপ্লাস ১২ তে। প্রথমবারের মত নিজেদের ফোনে ৬৪ মেগাপিক্সেল পেরিস্কোপ ক্যামেরা যুক্ত করেছে ওয়ানপ্লাস। এফ/২.৬ এপার্চার এর ওয়াইড লেন্স রয়েছে এই ফোনে যা লো লাইটেও অসাধারণ ছবি প্রদান করতে ফোনটিকে সাহায্য করবে। ৫০ মেগাপিক্সেল মেইন ক্যামেরা থাকছে ওয়ানপ্লাস ১২ তে। ৬এক্স অপটিক্যাল জুম থাকায় এই ফোন থেকে অসাধারণ পোরট্রেইট ছবি আশা করা যায়। এখানে আরো ব্যবহার করা হয়েছে ১৩-চ্যানেল মাল্টি স্পেকট্রাম কালার সেন্সর যা আরো ভালো কালার অ্যাকুরেসি প্রদান করবে। ৪৮ মেগাপিক্সেল আলট্রাওয়াইড ক্যামেরার পাশাপাশি ফোনের ফ্রন্টে ৩২ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরাও রয়েছে যা ৩০এফপিএস ৪কে ভিডিও রেকর্ডে সক্ষম।

oneplus 12

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

ব্যাটারি

ফ্ল্যাগশিপ ফোনগুলোতে যেখানে ছোট ব্যাটারি থাকে সেখানে ওয়ানপ্লাস ১২ এর ক্ষেত্রে উল্টোপথে হেঁটেছে ওয়ানপ্লাস। ৫৪০০ মিলিএম্প এর ব্যাটারি থাকছে ওয়ানপ্লাস ১২ ফোনটিতে যা এর ফাস্ট পারফরম্যান্সকে ব্যাকাপ প্রদান করবে। ১০০ ওয়াট ওয়্যারড চার্জিং এর সাথে ৫০ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিং ফিচার পাওয়া যাবে এখানে।

দাম

পোস্টের শুরুতে আমরা উল্লেখ করেছি বিকল্প ফ্ল্যাগশিপ হতে পারে ওয়ানপ্লাস এর এই নতুন ফোন। অন্য কোম্পানিগুলোর ফ্ল্যাগশিপ ফোনগুলোর দাম যেখানে হাজার ডলারের বেশি হয়ে যাচ্ছে, সেখানে ওয়ানপ্লাস ১২ এর দাম যথেষ্ট কমের দিকেই রাখার চেষ্টা করেছে ওয়ানপ্লাস।

সর্বোচ্চ ২৪ জিবি র‍্যাম ও ১ টেরাবাইট স্টোরেজ ভ্যারিয়ান্টে ফোনটি পাওয়া যাবে। মজার ব্যাপার হলো এই মাথানষ্ট মেমোরি ভ্যারিয়ান্ট এর দাম পড়বে ৫,৭৯৯ ইউয়ান বা মাত্র ৮১৮ ডলার। বাজারে এই দামে এত অসাধারণ অফারিং আগে আমরা দেখিনি। 👉 ওয়ানপ্লাস ফোনের সেরা কিছু ফিচার

ওয়ানপ্লাস ১২ এর বেস ভ্যারিয়ান্ট ১২ জিবি র‍্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজ মডেলে পাওয়া যাবে যার দাম ৪২৯৯ ইউয়ান্ন বা ৬০৬ ডলার। বিশ্বব্যাপী যদি এই ফোনের দাম ৬০ থেকে ৭০ হাজার টাকার মধ্যে থাকে তবে খুব সহজে বাজারের সকল ফ্ল্যাগশিপ থেকে এগিয়ে থাকবে ফোনটি।

এছাড়া ১৬ জিবি র‍্যাম ও ৫১২ জিবি স্টোরেজ মডেলেও ফোনটি পাওয়া যাবে যার দাম ৪৭৯৯ ইউয়ান বা ৬৭৭ ডলার। ১৬ জিবি র‍্যাম ও ১ টেরাবাইট স্টোরেজ এর একটি মডেলও রয়েছে যার দাম পড়বে ৫২৯৯ ইউয়ান বা ৭৪৭ ডলার।

ওয়ানপ্লাস ১২ কি নতুন বিকল্প ফ্ল্যাগশিপ হতে যাচ্ছে নাকি এতসব হাইপ কোনো কারণ ছাড়াই? ফোনটি সম্পর্কে আপনার মতামত বাংলাটেক এর পাঠকদের সাথে শেয়ার করতে পারেন কমেন্ট সেকশনে।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,585 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *