হারানো আইফোন খুঁজে পাওয়ার উপায়

অ্যান্ড্রয়েড ফোন হোক বা আইফোন, ফোন হারিয়ে যাওয়া দুঃখজনক তো বটেই, আবার এটা নতুন কোনো ব্যাপারও নয়। আর হারানো ফোন খুঁজে পাওয়া বেশ কঠিন একটি প্রক্রিয়া বটে। তবে বর্তমানের ফোনসমূহের প্রযুক্তির কারণে হারানো ফোন খুঁজে পেতে তেমন বেগ পেতে হয়না। হারানো আইফোন খুঁজে পাওয়া যাবে বেশ সহজে, যদি নির্দিষ্ট কিছু বিষয় মেনে চলা হয়।

চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে হারানো আইফোন খুঁজে বের করবেন ও ফোনের সুরক্ষা কিভাবে নিশ্চিত করবেন সে সম্পর্কে বিস্তারিত। এছাড়াও হারিয়ে গেলে খুব সহজে যাতে আপনার আইফোন খুঁজে পান, সে বিষয় সম্পর্কেও জানতে পারবেন।

হারানো আইফোন খুঁজে পাওয়ার পূর্বশর্ত

“ফাইন্ড মাই” সকল অ্যাপল ডিভাইসের একটি টুল, যা ব্যবহার করে হারানো বা চুরি হয়ে যাওয়া অ্যাপল ডিভাইস বেশ সহজে খুঁজে পাওয়া যায়। আপনার হারানো আইফোনে এই ফিচার চালু করা থাকলে তবেই হারানো বা চুরি হওয়া আইফোন খুঁজে বের করতে পারবেন।

ভালো ব্যাপার হচ্ছে হারিয়ে যাওয়ার পরও আপনার আইফোনের লোকেশন খুঁজে দিতে সক্ষম ফাইন্ড মাই ফিচারটি। কেননা এই ফিচার চালু থাকলে ফোনে ব্যাটারি লো হওয়ার আগে লাস্ট লোকেশন পিং করে ফাইন্ড মাই টুল। যার ফলে হারানো আইফোন বা অন্য কোনো অ্যাপল ডিভাইস বন্ধ থাকলেও এর শেষ অবস্থান সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যায়।

তাই হারানো আইফোন খুঁজে পেতে অবশ্যই “ফাইন্ড মাই আইফোন” ফিচারটি চালু থাকা একান্ত জরুরি। ফাইন্ড মাই আইফোন ফিচারটি চালু করতেঃ

  • আইফোনের সেটিংসে প্রবেশ করুন
  • আপনার নামের উপর ট্যাপ করুন
  • Find My এ ট্যাপ করুন
  • Find My iPhone এ ট্যাপ করুন
  • ভেতরের অপশনগুলো অন করে দিন

এই ফিচারটি চালু থাকলে ফোনের ব্যাটারি লো থাকলে অটোমেটিক লোকেশন সেভ করে রাখবে অ্যাপল একাউন্টে, যার ফলে চার্জ না থাকলেও আইফোনের শেষ লোকেশন জানা যাবে।

আপনার কাছে যদি অ্যাপল ওয়াচ থাকে এবং ফাইন্ড মাই ফিচার সেটাপ করে রাখতে পারেন, তাহলে এটি আপনার আইফোন সম্পর্কে আপনাকে এলার্ট করবে। ফোনের পাশাপাশি যেকোনো ডিভাইস বা আইটেমের জন্য অ্যাপল ওয়াচ এলার্ট সেট করা যাবে।

হারানো আইফোন খুঁজে পাওয়ার উপায়

আইফোনের চার্জ শেষ হওয়ার আগে যখন লো ব্যাটারি থাকে, তখন এর লোকেশন পিং হয়। যার ফলে আইফোনের শেষ লোকেশন সম্পর্কে একটি ধারণা পাওয়া যায়। আবার ফোন যদি চালু থাকে ও ইন্টারনেটে যুক্ত ও না থাকে, তবুও নিকটবর্তী অ্যাপল ডিভাইসসমূহের সাহায্যে আইফোনের বর্তমান লোকেশন খুঁজে পাওয়া সম্ভব।

এবার জেনে নেওয়া যাক কিভাবে ফাইন্ড মাই অ্যাপ ও আইক্লাউড ব্যবহার করে হারানো আইফোন খুঁজে পাওয়া যাবে।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

অ্যাপল ডিভাইস ব্যবহার

আপনার কাছে যদি আইপ্যাড বা ম্যাক থাকে, কিংবা ফ্যামিলি শেয়ারিং গ্রুপে ইতিমধ্যে লোকেশন শেয়ারের অপশন চালু রাখেন, সেক্ষেত্রে গ্রুপ মেম্বারদের অ্যাপল ডিভাউস ব্যবহার করে হারানো আইফোন বেশ সহজে খুঁজে বের করতে পারবেন। অন্য অ্যাপল ডিভাউস ব্যবহার করে হারনো আইফোন খুঁজে পেতেঃ

  • আইফোনের ফাইন্ড মাই অ্যাপে প্রবেশ করুন
  • Devices ট্যাবে ট্যাপ করুন
  • Find My সার্ভিস চালু থাকা ডিভাইসসমূহের তালিকাসহ একটি ম্যাপ দেখতে পাবেন
  • হারানো আইফোনটি খুঁজে বের করে লোকেশন জেনে নিন
find my iphone

আইক্লাউড ব্যবহার

কম্পিউটার বা যেকোনো ব্রাউজার থেকে আইক্লাউড ডট কমে প্রবেশ করে হারানো আইফোন খুঁজে বের করতে পারবেন। আইক্লাউড ব্যবহার করে হারানো আইফোন খুঁজে পেতেঃ

  • যেকোনো ব্রাউজার থেকে icloud.com এ প্রবেশ করুন
  • হারানো ডিভাউসে লগিন থাকা অ্যাপল আইডি ও পাসওয়ার্ড প্রদান করে লগিন করুন
  • টু-ফ্যাক্টর অথোরাইজেশন সম্পন্ন করে লগিন এপ্রুভ করুন
  • Find iPhone এ ক্লিক করুন
  • টপে থাকা All Devices সিলেক্ট করুন ও তালিকা থেকে হারানো আইফোন খুঁজে নিন
  • ম্যাপে আপনার হারানো আইফোনের লেটেস্ট এভেইলেবল লোকেশন দেখতে পাবেন

👉 আইফোন এর স্টোরেজ খালি করার উপায়

অন্য আইফোন ব্যবহার

আপনার অ্যাপল আইডি কি একাধিক আইফোন বা অ্যাপল ডিভাইসে লগিন করা আছে? সেক্ষেত্রে হারানো আইফোন খুঁজে পাওয়া বেশ সহজ হতে পাতে। অন্য আইফোন বা অ্যাপল ডিভাইসে হারানো আইফোনের অ্যাপল একাউন্ট লগিন থাকলে খুব সহজে হারানো আইফোন খুঁজে পেতে পারেন। Find My অ্যাপ থেকে Me ট্যাবে প্রবেশ করলেই আপনার হারানো ফোনের লোকেশন দেখতে পাবেন।

আবার আপনার বন্ধুর কাছে আইফোন থাকলে সেক্ষেত্রেও হারানো আইফোন খুঁজে পেতে পারেন। এই পদ্ধতিতে হারানো আইফোন খুঁজে পেতেঃ

  • ফোনের ফাইন্ড মাই অ্যাপে প্রবেশ করুন
  • Me ট্যাবে প্রবেশ করুন
  • নিচের দিকে স্ক্রল করে Help A Friend সিলেক্ট করুন
  • এরপর আইক্লাউড একাউন্টে লগিন করতে বলা হলে Use Different Apple ID সিলেত করুন ও হারানো ফোনে লগিন থাকা অ্যাপল একাউন্টে লগিন করুন
  • হারানো আইফোন খুঁজে পেতে ডিভাইসের তালিকা থেকে আপনার ডিভাইসটি খুঁজে বের করুন
  • স্ক্রিনে একটি সার্কেল দেখতে পাবেন, যেখানে আপনার আইফোন সর্বশেষ লোকেটেড হয়েছিলো।

👉 আইক্লাউড কি? অ্যাপল আইক্লাউডের সুবিধা কি?

লোকেশন পাওয়ার পর হারানো আইফোন খুঁজে বের করা

উল্লেখ্য যে ফোন হারিয়ে যাওয়া বা চুরি হয়ে যাওয়া কিন্তু একই বিষয় নয়। আপনার ডিভাইস যদি চুরি হয়েছে বলে মনে করে থাকেন, তাহলে অবশ্যই স্থানীয় কতৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করুন। ফোন চুরি হয়ে গেলে সেক্ষেত্রে নিজ থেকে রিকভার করার চেষ্টা না করে আইনী সহায়তা নেওয়া শ্রেয়।

আপনার আইফোনের যদি হারিয়ে যাওয়ার পর ব্যাটারি শূন্য হয়ে যায় কিংবা ফোন বন্ধ থাকে, সেক্ষেত্রে ফাইন্ড মাই অ্যাপে উক্ত ফোনের স্ক্রিন কালো দেখাবে। এছাড়াও আপনার ফোনের লাস্ট লোকেশন যেখানে সেভ হয়েছে তা লাল লেখায় সাইডবারে দেখতে পাবেন।

হারানো আইফোন যদি চালু থাকে, তবে ফাইন্ড মাই অ্যাপের ম্যাপে উক্ত ফোন কালারফুল হোমস্ক্রিনের সহিত প্রদর্শিত হবে, পাশাপাশি উক্ত ফোনের ব্যাটারি চার্জও প্রদর্শিত হবে। হারানো আইফোন চালু হলে সেক্ষেত্রে ম্যাপ থেকে Directions এ ট্যাপ করে সরাসরি আপনার আইফোন কোথায় আছে, সে লোকেশনে পৌছে যেতে পারেন। আবার ফোন চালু আছে কিন্তু অফলাইন রয়েছে, এমন হলে ফোনের আশেপাশে পৌঁছালে Play Sound অপশনে ট্যাপ করুন যা উক্ত ফোনে একটি বিপ সাউন্ড প্লে করবে যা ফোনটি খুঁজে পেতে সাহায্য করবে।

👉 আইফোন কেন এত দামি ও জনপ্রিয়?

যদি আইফোনে চার্জ না থাকে, সেক্ষেত্রে সাইডবারে সোয়াইপ করে Notify When Found অপশনটি চালু করে দিন। এতে যখনই আপনার হারানো আইফোন চালু হবে ও আইফোনের লোকেশন আপডেট হবে, তা সম্পর্কে অন্য অ্যাপল ডিভাইসে নোটিফিকেশন পাবেন।

আবার Lost Mode ব্যবহার করে রিমোটলি আপনার অ্যাপল ডিভাইস লক করে দিতে পারবেন। সাথে একটি কাস্টম মেসেজ ও আপনার ফোন নাম্বার ও যুক্ত করে দিতে পারবেন হারানো ফোনে যা কেউ হারানো ফোন খুঁজে পেলে আপনাকে ফেরত দিতে সাহায্য করবে।

আপনার আইফোন যদি খুঁজে পাওয়ার কোনো আশাই না থাকে, তবে Erase iPhone ফিচারটি ব্যবহার করতে পারেন। এতে আপনার ফোনে থাকা সকল ডাটা মুছে যাবে ও আপনার ব্যাক্তিগত তথ্য অন্য কারো হাতে যাবেনা।

👉 আইফোন ফ্যাক্টরি রিসেট করার নিয়ম

👉 হারানো এন্ড্রয়েড ফোন খুঁজে পাওয়ার সহজ উপায়

ফাইন্ড মাই আইফোন ছাড়া খুঁজে বের করা

দূর্ভাগ্যবশত ফাইন্ড মাই আইফোন ফিচার এনাবেল করা না থাকলে হারানো আইফোন খুঁজে পেতে বেশ সমস্যা হতে পারে। আপনি যদি আইফোনে গুগল ম্যাপ নিয়মিত ব্যবহার করে থাকেন, সেক্ষেত্রে গুগল ম্যাপস এর টাইমলাইন ফিচার ব্যবহার করে আপনার আইফোনের লোকেশন হিস্টোরি দেখতে পারেন। ফাইন্ড মাই আইফোন ফিচার চালু না থাকলে ফোনের লোকেশন সম্পর্কে সম্যক ধারণা প্রদানে সক্ষম গুগল ম্যাপস। তবে এক্ষেত্রেও Google Maps Location History ফিচারটি চালু থাকা জরুরি, যা বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ডিফল্টভাবে চালু থাকে।

গুগল ম্যাপস এর লোকেশন হিস্টোরি ফিচারটি ব্যবহার করে হারানো আইফোন খুঁজে বের করতেঃ

  • google.com/maps/timeline লিংকে প্রবেশ করুন
  • গুগল একাউন্টে লগিন করুন
  • আপনার আইফোন যেদিন হারিয়ে গিয়েছে তার ডেট সিলেক্ট করুব
  • আইফোনের সর্বশেষ লোকেশন চেক করুন

আপনি যদি আইফোন হারানোর আগে এই পোস্ট পড়ে থাকেন, তবে এখনই আপনার আইফোনের ফাইন্ড মাই আইফোন ফিচারটি চালু করে রাখেন। কথায় আছে, “প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধ উত্তম।” তাই ফোন হারানোর আগে সকল প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়ে রাখা বুদ্ধিমানের কাজ।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 6,274 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.