ফেসবুক চেক ইন ও গুগল ম্যাপে “ফেলানী রোড”…

Felani.....ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের গুলিতে নিহত কিশোরী ফেলানী হত্যার অভিযুক্ত আসামী হাবিলদার অমিয় ঘোষকে নির্দোষ বলে বিএসএফের বিশেষ আদালত যে রায়টি দিয়েছিল তাতে বাংলাদেশ জুড়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া ও সমালোচনার সৃষ্টি হয়। বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকেও ঐ রায়ে অসন্তোষ প্রকাশের পর রায়টি পুনর্বিবেচনার কথা জানায় ভারত।

উক্ত ঘটনা বাংলাদেশী ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মধ্যে ব্যাপক আলোড়ন তোলে। অল্প সময়ের মধ্যেই “ঢাকায় ইন্ডিয়ান হাই কমিশনের সামনের রাস্তার নাম “ফেলানী রোড” করা হোক” নামে একটি ফেসবুক পেজ খোলা হয় এবং কয়েক ঘণ্টার মধ্যে এতে ২৫,০০০+ ‘লাইক’ পড়ে। একই দাবীতে একাধিক পেজ ওপেন করা হয় ফেসবুকে।

একটি পেজ থেকে বলা হয়, “কোন সরকার দিক আর না দিক গুলশানে ইন্ডিয়ান হাই কমিশনের রাস্তা সহ পুরো এলাকা আজ থেকে ফেলানী রোড। কেউ না ডাকলে আমি ডাকব, আপনি ডাকবেন, আমার আপনার বাড়ির লোকেরা ডাকবে, আমাদের বন্ধুবান্ধবরা ডাকবে। নাটক সরণিকে বেইলী রোড আর কুদরত-ই-খুদা সড়ককে এলিফেন্ট রোড ডাকতে পারলে গুলশানের ঐ এলাকাকে ফেলানী রোড ডাকা যাবে না কেন?”

শুক্রবার রাত থেকে ভারতীয় হাই কমিশন ও ব্রাজিল দূতাবাসের মধ্যবর্তী সড়কের (Road 142) নাম গুগল ম্যাপে ইংরেজিতে ফেলানী রোড (Felani Rd) দেখা যাচ্ছিল বলে জানিয়েছে প্রিয়টেকবিডিনিউজ ২৪ ডটকম। অবশ্য আজ শনিবার সন্ধ্যায় উক্ত সড়কের নাম পুনরায় “Road 142” হিসেবেই দেখা যাচ্ছে। তবে ফেসবুক চেক-ইনে “Felani Road, Gulshan, Dhaka” লিখে সার্চ করলে স্থানটি ফেলানি রোড নামেই পাওয়া যাচ্ছে।

google maps felani rdকুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার দক্ষিণ রামখানা ইউনিয়নের বানার ভিটা গ্রামের কিশোরী ফেলানী ২০১১ সালে অনন্তপুর সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে নিহত হন। বর্ডারের কাঁটাতারের বেড়ার সঙ্গে ৫ ঘন্টা ঝুলেছিল ফেলানীর লাশ। সেই ছবি বিভিন্ন দেশি-বিদেশি মিডিয়ায় প্রকাশিত হলে তা ব্যাপক সমালোচিত হয়। ঢাকার বারবার আহ্বান ও আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলোর দাবির পর ফেলানী হত্যাকাণ্ডের বিচারের উদ্যোগ নিয়েছিল বিএসএফ। গত ৬ সেপ্টেম্বর ঘোষিত এর রায়ে আসামী অমিয় ঘোষকে নির্দোষ বলে উল্লেখ করা হয়।

এখানে  গুলশানস্থ ভারতীয় হাই কমিশন ও ব্রাজিল দূতাবাসের মধ্যবর্তী সড়কের গুগল ম্যাপ ফ্রেম এমবেড করা হল। ফ্রেমের বামদিকে থাকা জুম বারটি এডজাস্ট করে (যদি স্বয়ংক্রিয়ভাবেই ম্যাপটি দেখা না যায়) আপনিও সেই ১৪২ নাম্বার রাস্তার বর্তমান নাম দেখে নিতে পারেন।

 

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,069 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.