কিছু উইন্ডোজ কিবোর্ড শর্টকাট যা প্রত্যেকের জানা দরকার

By -

সকল অপারেটিং সিস্টেম ও প্রায় সব প্রোগ্রামেই দ্রুত কাজ করার জন্য কিবোর্ড শর্টকাট দেয়া থাকে। সচরাচর ব্যবহারকারীরা মাত্র গুটিকয়েক কিবোর্ড শর্টকাট মনে রাখেন। কিন্তু কাজের সুবিধার্থে দরকারী কিছু কিবোর্ড শর্টকাট মুখস্থ করে রাখলে জীবন অনেকটাই সহজ হয়ে যায়। তাই এই পোস্টে আপনাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি উইন্ডোজ কিবোর্ড শর্টকাট ও সেগুলোর কাজ জানাচ্ছি, যা আপনার কম্পিউটারে কাজের গতি অনেক গুণ বাড়িয়ে দেবে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 1,614 other subscribers

Ctrl+Z

উইন্ডোজ কম্পিউটারে কাজ করার সময় হঠাত ভুলে যদি কোনো ফাইল ডিলিট করে রিসাইকেল বিনে পাঠিয়ে দেন, তাহলে সাথে সাথে Ctrl এবং Z বাটন একত্রে চাপ দিন। এতে আপনার সেই মুছে যাওয়া ফাইল আগের স্থানে ফিরে আসবে। মাইক্রোসফট অফিস, ব্রাউজার সহ বেশিরভাগ প্রোগ্রামের সাথে (যেখানে ব্যবহারকারীর কিছু লেখা দরকার হয়) এই শর্টকাটটি কাজ করে। এটি মূলত সর্বশেষ সম্পন্ন কাজটিকে আনডু করে দেয়। Ctrl+Z যে কাজ করে, সেটিকে আনডু করতে Ctrl+Y চাপ দিতে পারেন।

Ctrl+W

এই কিবোর্ড শর্টকাটটি আপনার চালু থাকা উইন্ডো বন্ধ করে দেবে। আপনি যদি কোনো অফিস ডকুমেন্টে কাজ করতে থাকেন, তাহলে Ctrl+W চাপ দিলে প্রথমে আপনার ডকুমেন্টটি সেইভ করতে বলবে এবং তারপর এটি ক্লোজ করা যাবে।

Alt+F4

এটি চালু থাকা অ্যাপ বন্ধ করে দেবে। Alt+F4 শর্টকাটটি এক্টিভ উইন্ডোকেও ক্লোজ করে দেয়। তবে বোনাস হিসেবে, আপনি যদি ডেস্কটপের খালি জায়গায় ক্লিক করে Alt+F4 চাপ দেন তাহলে এটি পিসি বন্ধ, স্লিপ, হাইবারনেট, রিস্টার্ট প্রভৃতি করার অপশন দেখাবে।

Ctrl+A

নিশ্চয়ই জানেন, এই শর্টকাটটি এক্টিভ উইন্ডোতে থাকা সকল কনটেন্ট সিলেক্ট করে। তারপর আপনি Ctrl+S চাপ দিয়ে সেইভ, Ctrl+C চাপ দিয়ে কপি Ctrl+X চাপ দিয়ে কাট এবং Ctrl+V চাপ দিয়ে অন্য উইন্ডোতে গিয়ে পেস্ট করতে পারেন।

Win+D

উইন্ডোজ বাটন এবং D একত্রে প্রেস করলে আপনার ওপনে থাকা সকল উইন্ডো মিনিমাইজ বা হাইড হয়ে পিসির ডেস্কটপ চলে আসবে। পুনরায় Win+D চাপ দিলে প্রথমবার হাইড করা উইন্ডোগুলো আবার ফিরে আসবে।

Alt+Tab

এই শর্টকাট প্রেস করলে স্ক্রিনে আপনার সকল চালু থাকা অ্যাপের প্রিভিউ দেখা যাবে। সেখান থেকে দ্রুত কোনো একটা অ্যাপে ক্লিক করে সেটাতে কাজ করতে পারেন। Win+Tab শর্টকাটও প্রায় একই কাজ করে, তবে এখানে কীবোর্ড চাপ দিয়ে ছেড়ে দিলেও প্রিভিউগুলো থেকে যায়।

F2

কোনো ফাইল বা ফোল্ডারের ওপর একটি ক্লিক করে তারপর F2 বাটন চাপ দিলে ঐ ফাইল বা ফোল্ডারের নাম পরিবর্তন করার অপশন আসবে।

F5

ইন্টারনেট ব্রাউজ করার সময় একটি পেজ রিফ্রেশ বা পুনরায় লোড করতে চাইলে F5 চাপ দিন।

Win+L

এটি আপনার পিসির স্ক্রিন লক করে দেবে। ফলে পিসি আবার ব্যবহার করতে চাইলে পাসওয়ার্ড এন্টার করে আনলক করে নিতে হবে। পাসওয়ার্ড আগে থেকে দেয়া না থাকলে শুধু সাইন-ইন বাটনে ক্লিক করে এন্টার দিলেই হবে।

Win+PrtScn

এই শর্টকাট আপনার পিসির পুরো স্ক্রিনের স্ক্রিনশট নিয়ে সি ড্রাইভের পিকচার্স ফোল্ডারে একটি ইমেজ আকারে সেইভ করে রাখবে। আর ক্লিপবোর্ডেও ছবিটি থাকবে, যা পেইন্ট প্রোগ্রাম ওপেন করে পেস্ট করে এডিট করতে পারবেন।

Ctrl+Alt+Del

পিসি হ্যাং করলে এই বিখ্যাত শর্টকাটটি চেপে উইন্ডোজের টাস্ক ম্যানেজার প্রোগ্রাম চালু করার অপশন পাবেন। সেখান থেকে হ্যাং হওয়া অ্যাপ বন্ধ করা যাবে। এছাড়া পিসি লক করা, বন্ধ করা কিংবা সাইনআউটের অপশনও পাওয়া যাবে।

আশা করি এই শর্টকাটগুলো আপনার কাজে লাগবে। আপনি কি এই শর্টকাটগুলো আগে জানতেন?

★ সোফিয়া রোবট সম্পর্কে সকল তথ্য

       
প্রযুক্তির সব তথ্য জানতে ভিজিট করুন www.banglatech24.com সাইট। নতুন পোস্টের নোটিফিকেশন ইমেইলে পেতে এই লিংকে গিয়ে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

 

Comments

Leave a Reply