উইন্ডোজ পিসিতে স্টোরেজ খালি করার উপায়

হার্ড ড্রাইভ এর সাইজ দিনদিন বেড়েই চলেছে, আর তারই সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে এর ব্যবহারও। চাইলে ডেস্কটপ কম্পিউটারে সহজেই বাড়তি হার্ড ড্রাইভ এড করে বাড়তি স্টোরেজ যোগ করা যায়, তবে ল্যাপটপ এর ক্ষেত্রে সেই সুযোগ নেই। আবার অনেক সময় কম ধারণক্ষমতার হলে এসএসডি খুব দ্রুত পূর্ণ হয়ে যায় যেকোনো ধরনের কম্পিউটারে। আপনি কি এর সমাধান খুঁজছেন? উইন্ডোজ পিসিতে স্টোরেজ খালি করার বিভিন্ন কার্যকরী উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন এই পোস্টে।

ডিস্ক ক্লিনআপ

উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমে একটি বিল্ট-ইন টুল রয়েছে যা টেম্পরারি ফাইলস ও অন্যান্য অপ্রয়োজনীয় ডাটা খুব সহজে ডিলিট করতে সাহায্য করে। এই টুল ব্যবহার করতে যেকোনো ড্রাইভের উপর রাইট ক্লিক করুন ও Properties অপশন সিলেক্ট করুন।

এরপর Disk Cleanup অপশনে ক্লিক করুন। যেসব ফাইল ডিলিট করতে চান, সেগুলো সিলেক্ট করে OK তে ক্লিক করুন। এখানে টেম্পরারি ফাইলস, লগ ফাইলস, রিসাইকেল বিন ফাইলস ও অন্যান্য অপ্রয়োজনীয় ফাইল সিলেক্ট করতে পারবেন যা সিলেক্ট করে খুব সহজে ডিলিট করে দেওয়া যাবে।

উল্লেখিত উপায় ছাড়াও সরাসরি Disk Cleanup লিখে সার্চ করার মাধ্যমে উক্ত টুল ব্যবহার করতে পারবেন। একই টুল ব্যবহার করে সিস্টেম ফাইলও ক্লিন করা যাবে যা সরাসরি প্রদর্শন করেনা। সিস্টেম ফাইলস ডিলিট করতে চাইলে Clean up system files বাটনে ক্লিক করুন। এরপর More options বাটনে ক্লিক করে System Restore এর নিচে থাকা Clean Up বাটনে ক্লিক করুন। এর মাধ্যমে সম্প্রতি তৈরী সিস্টেম রিস্টোর পয়েন্ট ছাড়া অন্যসব সিস্টেম রিস্টোর পয়েন্ট মুছে যায়।

অ্যাপ আনইন্সটল

প্রোগ্রাম আইইন্সটল করে কম্পিউটারে স্টোরেজ খালি করা যাবে। কন্ট্রোল প্যানেল এর Programs and Features অপশন থেকে অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ আনইন্সটল করা যাবে। কোনো অ্যাপ কি পরিমাণ স্পেস দখল করে আছে, তা দেখা যাবে। Start Menuu থেকে “Uninstall programs” সার্চ করে খুব সহজে এই অপশন খুঁজে বের করতে পারবেন। কোনো অ্যাপ কি পরিমাণ স্টোরেজ দখল করেছে তা প্রদর্শন না করলে Revo Uninstaller এর মত থার্ড-পার্টি টুল ব্যবহার করতে পারেন।

আপনি যদি উইন্ডোজ ১০ ব্যবহারকারী হন, তবে কম্পিউটারের সেটিংসে প্রবেশ করে System থেকে Apps & features অপশনে প্রবেশ করে একই রকম টুল দেখতে পাবেন। এখান থেকে উইন্ডোজ স্টোর থেকে ইন্সটল করা অ্যাপ ও সাধারণ অ্যাপ আনইন্সটল করা যাবে। এছাড়া কন্ট্রোল প্যানেল থেকেও আগের নিয়মে অ্যাপ আনইন্সটল করা যাবে।

এনালাইজ ডিস্ক স্পেস

আপনার হার্ড ড্রাইভে স্পেস কিভাবে ব্যবহৃত হচ্ছে, তা হার্ড ডিস্ক এনালাইসিস প্রোগ্রাম এর মাধ্যমে খুঁজে বের করতে পারবেন। এসব প্রোগ্রাম আপনার হার্ড ডিস্ক স্ক্যান করবে ও কোন ফাইলস ও ফোল্ডার কি পরিমাণ স্পেস দখল করে আছে তা প্রদর্শন করবে। তবে ডিস্ক স্পেস এনালাইজ করার জন্য সেরা ফ্রি একটি টুল হলো WinDirStat। 

এই টুলটি আপনার কম্পিউটারের সকল ড্রাইভ বা নির্দিষ্ট ড্রাইভ স্ক্যান করে কোন ফাইল বা ফোল্ডার কি পরিমাণ স্টোরেজ দখল করে আছে তা প্রদর্শন করে৷ এখান থেকে অপ্রয়োজনীয় ফাইলসমূহ বেশ সহজে ডিলিট করে দিতে পারেন। তবে কোনো ধরনের গুরুত্বপূর্ণ সিস্টেম ফাইল ডিলিট করা থেকে বিরত থাকুন। আবার কোনো প্রোগ্রামের ফোল্ডার যদি অধিক স্পেস গ্রহণ করে, তবে Control Panel থেকে সঠিকভাবে উক্ত অ্যাপ আনইন্সটল করুন।

টেম্পরারি ফাইলস ক্লিন

উইন্ডোজ ডিস্ক ক্লিনআপ টুল বেশ কাজের একটু টুল, কিন্তু এটি অন্য প্রোগ্রাম দ্বারা তৈরিকৃত টেম্পরারি ফাইলস প্রদর্শন করেনা। যেমনঃ এটি ক্রোম ব্রাউজার বা ফায়ারফক্স এর ক্যাশ ডাটা ক্লিয়ার করবেনা, যা কিন্তু অনেক স্টোরেজ দখল করে থাকে। আপনার কম্পিউটারে যদি একদমই স্টোরেজ না থাকে ও ব্যাপারটি আপনার বিরক্তির কারণ হয়ে থাকে, তবে CCleaner এর মত থার্ড-পার্টি ক্লিনিং টুল ব্যবহার করতে পারেন। এটি উইন্ডোজ ডিস্ক ক্লিনআপ এ প্রদর্শন না করা সকল টেম্পরারি ফাইলস প্রদর্শন করে ও ক্লিনিং এর কাজ সহজ করে দেয়।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

উইন্ডোজ পিসিতে স্টোরেজ খালি করার উপায়

👉 উইন্ডোজ ১১ অটো আপডেট বন্ধ করার নিয়ম

ডুপ্লিকেট ফাইলস খোঁজা

যেকোনো ডুপ্লিকেট ফাইল ফাইন্ডার অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে আপনার কম্পিউটারের হার্ড ড্রাইভ ডুপ্লিকেট ফাইলের জন্য স্ক্যান করতে পারবেন। এরপর অপ্রয়োজনীয় এসব ফাইল বেশ সহজে ডিলিট করতে পারবেন। ViciPics এর মত ফ্রি টুল ব্যবহার করে ডুপ্লিকেট ছবি খুঁজে বের করে ডিলিট করা যাবে। আবার AllDup ব্যবহার করে কম্পিউটারে থাকা ডুপ্লিকেট ফাইল খুঁজে বের করে ডিলেট করা যাবে সহজে।

সিস্টেম রিস্টোর স্টোরেজ

উইন্ডোজ কম্পিউটারে সিস্টেম রিস্টোর পয়েন্ট প্রচুর পরিমাণে স্টোরেজ দখল করে থাকে। এলোকেটেড স্পেস কমিয়ে রাখার মাধ্যমে সিস্টেম রিস্টোর পয়েন্ট এর স্টোরেজ ব্যবহার কমানো যায়। তবে এই স্টোরেজ কমিয়ে রাখলে কম সিস্টেম রিস্টোর পয়েন্ট পাবেন। এই ব্যাপারটি যদি আপনার কাছে সমস্যার মনে না হয়, তবে আপনার স্টোরেজ খালি করতে পারেন সিস্টেম রিস্টোর এর জন্য এলোকেটেড স্পেস কমিয়ে।

উইন্ডোজ কি ও R কি প্রেস করে Run ওপেন করুন ও sysdm.cpl টাইপ করে এন্টার চাপুন। System Properties ট্যাব দেখতে পাবেন। এরপর System Protection ট্যাবে ক্লিক করুন ও Configure অপশনে ক্লিক করুন। Disk Space Usage এর নিচে থাকা স্লাইডার কমানো বাড়ানোর মাধ্যমে সিস্টেম রিস্টোর পয়েন্ট এর জন্য বরাদ্দকৃত স্পেস কমাতে বা বাড়াতে পারবেন। কাজ শেষে Apply তে ক্লিক করে সেটিংস সেভ করুন।

👉 উইন্ডোজ পিসির সাথে এন্ড্রয়েড ফোন সংযুক্ত করার উপায়

কেমন লাগল কৌশলগুলো? আপনি উইন্ডোজের কোন ভার্সন ব্যবহার করেন? আপনার অভিজ্ঞতা কমেন্টে জানান!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 6,953 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.