ইনফিনিক্স নোট ৩০ সিরিজ এলো সুলভ দামে দুর্দান্ত পারফরমেন্স নিয়ে

নতুন তিনটি ফোন নিজেদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে লঞ্চ করেছে ইনফিনিক্স। ইনফিনিক্স নোট ৩০, নোট ৩০ ৫জি ও নোট ৩০ প্রো, এই তিনটি নতুন ডিভাইসেই রয়েছে ইনফিনিক্স এর অল-রাউন্ডার ফাস্টচার্জ প্রযুক্তি যার বদৌলতে এই নোট ৩০ সিরিজে ওয়্যারড ও ওয়্যারলেস চার্জিং উভয়ই পাওয়া যাবে। ইনফিনিক্স জানিয়েছে তিনটি ফোনেরই দাম ৩০০ মার্কিন ডলারের কম থাকবে। নোট ৩০ এর দাম বলা হয়েছে ২৩০ ডলার। সুতরাং ফোনগুলো মধ্যম দামেই পাওয়া যাবে। চলুন এবার জেনে নেওয়া যাক ইনফিনিক্স নোট ৩০ সিরিজ সম্পর্কে বিস্তারিত।

ইনফিনিক্স নোট ৩০

এই সিরিজের ভ্যানিলা ভার্সনে হেলিও জি৯৯ চিপসেট ও ৮ জিবি র‍্যাম থাকছে। ফোনের ফ্রন্টে থাকছে ৬.৭৮ ইঞ্চি এলসিডি স্ক্রিন রয়েছে যাতে ১২০ হার্জ রিফ্রেশ রেট রয়েছে। আরো রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা।

ইনফিনিক্স নোট ৩০ এর ব্যাকে রয়েছে ৬৪মেগাপিক্সেল মেইন ক্যামেরা, পাশাপাশি একটি ২মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ও আরেকটি অজানা রেজ্যুলেশনের এআই ক্যামেরা রয়েছে। স্বভাবতই এখানে মেইন সেন্সরই ফোনের অধিকাংশ ফটোগ্রাফিতে সাহায্য করবে।

এই ফোনের মূল সেলিং পয়েন্টই হলো এর ফাস্ট চার্জিং। নোট ৩০ ফোনটিতে ৪৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং রয়েছে ও ব্যাটারি রয়েছে ৫০০০ মিলিএম্প এর। এখানে আরো রয়েছে রিভার্স ওয়্যারলেস চার্জিং ও এটি পিডি ৩.০ চার্জিংও সাপোর্ট করে। ইনফিনিক্স হট ৩০ ফোনটিতে JBL এর তৈরী ডুয়াল স্পিকার রয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড ১৩ এর পাশাপাশি এই ফোনের আরো কিছু অসাধারণ ফিচার হলো এনএফসি সাপোর্ট, ৩.৫মিমি. হেডফোন জ্যাক ও ডেডিকেটেড মাইক্রোএসডি কার্ড ট্রে। নোট ৩০ পাওয়া যাবে ম্যাজিক ব্ল্যাক, ইন্টারস্টেলার ব্লু ও সানসেট গোল্ড, এই তিনটি কালারে। ১২৮ জিবি ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়ান্টে ফোনটি পাওয়া যাবে।

Infinix Note 30
Infinix Note 30

ইনফিনিক্স নোট ৩০ ৫জি

ইনফিনিক্স নোট ৩০ ৫জি ফোনটিতে মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৬০৮০ চিপসেট ও সাধারণ ভ্যায়রিয়ন্টের মত স্ক্রিন রয়েছে। স্টোরেজ অপশন এখানেও একই থাকলেও ৪জিবি র‍্যাম ও ৮জিবি র‍্যাম এর অপশন থাকছে। নন-৫জি ভার্শন এর মেইন ক্যামেরা এখানে পরিবর্তন করা হয়েছে, এখানে মেইন ক্যামেরা হিসেবে রয়েছে ১০৮ মেগাপিক্সেল আইসোসেল এইচএম৬ সেন্সর। পাশাপাশি হেল্পিং ক্যামেরা ডুয়ো এখানেও রয়েছে। ফোনের পাঞ্চ-হোলে রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা। 

৫০০০ মিলিএম্প এর ব্যাটারি রয়েছে ইনফিনিক্স নোট ৩০ ৫জি ফোনটিতে, চার্জিং এখানে পেয়ে যাবেন ৪৫ওয়াট পর্যন্ত। তবে চার্জিং আর্কিটেকচারে এখানে কিছুটা পার্থক্য থাকছে। নোট ৩০ এর সকল ফিচারের পাশাপাশি এখানে এফএম রেডিও রয়েছে, থাকছে একই কালার অপশনসমূহ।

Infinix Note 30 5G
Infinix Note 30 5G

ইনফিনিক্স নোট ৩০ প্রো

ইনফিনিক্স ৩০ প্রো ফোনটির স্পেসিফিকেশন স্বাভাবিকভাবেই অন্য দুইটি ফোনের চেয়ে ভালো। এখানে ৫জি নেই, রয়েছে হেলিও জি৯৯ চিপসেট। ৬৮ওয়াট এর ফাস্ট চার্জিং এর পাশাপাশি এখানে ওয়্যারলেস চার্জিং। এমনকি রিভার্স ওয়্যারলেস চার্জিং সুবিধাও পাওয়া যাবে। এই দামে এই ধরনের সুবিধা এই প্রথম বলে দাবি ইনফিনিক্সের।

ইনফিনিক্স নোট ৩০ প্রো ফোনটিতে ১২০ হার্জ রিফ্রেশ রেটের এমোলেড ডিসপ্লে থাকছে। ১০৮ মেগাপিক্সেল এর মেইন ক্যামেরার পাশাপাশি এখানে ৩২ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ফেসিং ক্যামেরা রয়েছে।

এই ফোনে কুলিং এর জন্য ভ্যাপর চেম্বার রেখেছে ইনফিনিক্স, যাতে রয়েছে ১০ লেয়ারের কুলিং ম্যাটেরিয়াল যা ২,০০০ স্কয়ার মি.মি. পর্যন্ত পৌঁছাতে পারে। এখানেও জেবিএল এর ডুয়াল স্পিকার, এনএফসি, হেডফোন জ্যাক, ইত্যাদি ফিচার রয়েছে। ব্ল্যাক ও ভ্যারিয়েবল গোল্ড কালারে পাওয়া যাবে ফোনটি।

Infinix Note 30 Pro
Infinix Note 30 Pro

আপনার কাছে কেমন লেগেছে ইনফিনিক্স নোট ৩০ সিরিজ (1,2,3)? আমাদের জানাতে পারেন কমেন্ট সেকশনে।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,560 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *