বিদেশ থেকে বিকাশে টাকা পাঠানোর ও আনার উপায়

আমাদের দেশের জনসংখ্যার একটি উল্লেখ্যযোগ্য অংশ কর্মসূত্রে দেশের বাহিরে বাস করেন। তবে তাদের অর্জিত অর্থ দেশে পাঠানোর প্রক্রিয়া নিয়ে প্রথম প্রথম সবার মনেই অনেক প্রশ্ন জাগে। অনেকেই হয়ত মনে করেন যে এটা বেশ কঠিন। সে কথা মাথায় রেখে, ২০১৬ সালে ওয়েস্টার্ন ইউনিয়ন এবং মাস্টারকার্ড এর সাথে এক হয়ে বর্ডার-ক্রস মানি ট্রান্সফার সুবিধা চালু করে বিকাশ

বিকাশ এর সহজলভ্যতার কারণে প্রত্যন্ত অঞ্চলের বিকাশ ব্যবহারকারীগণও এই সুবিধা ভোগ করতে পারেন।

দেশের বাহির থেকে টাকা পাঠানোর এই প্রক্রিয়াতে বিদেশী ব্যাংক, মানি ট্রান্সফার অরগানাইজেশন (এমটিও) এবং মানি এক্সচেঞ্জ হাউসগুলোর সাথে একসাথে হয়ে কাজ করে বিকাশ। চলুন জেনে নেয়া যাক, দেশের বাইরে থেকে কীভাবে বিকাশে টাকা পাঠানো বা আনা যায়।

দেশের বাহির থেকে বিকাশে টাকা পাঠানোর নিয়ম

বিকাশের মাধ্যমে দেশের বাহির থেকে বিকাশ ইন্টারন্যাশনাল রেমিটেন্স আনতে নিচের ধাপগুলো অনুরসণ করুনঃ

  • অথোরাইজড ও পার্টনারড ব্যাংকের শাখা বা মানি এক্সচেঞ্জ কিংবা এমটিও এজেন্ট এর কাছে যান।
  • বেনিফিশিয়ারি বিকাশ একাউন্ট নাম্বার এবং বিকাশ একাউন্ট যে নামে খোলা হয়েছিল, সেটি জানান।
  • অর্থ এবং বাকি তথ্য ব্যাংক/মানি এক্সচেঞ্জ কিংবা এমটিও এজেন্টকে প্রদান করে প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করুন।

দেশের বাহির থেকে ব্যাংক/মানি এক্সচেঞ্জ কিংবা এমটিও এজেন্ট এর সাহায্যে টাকা পাঠানোর ক্ষেত্রে নিচের বিষয়গুলো নিশ্চিত করুনঃ

  • বেনিফিশিয়ারি এর নিকট রেজিস্টার্ড এবং ভ্যালিড বিকাশ একাউন্ট রয়েছে কিনা।
  • বেনিফিশিয়ারির বিকাশ নাম্বার এবং নাম সঠিকভাবে প্রদান করা হয়েছে কিনা।
  • বাংলাদেশি টাকায় ট্রান্সজেকশন এমাউন্ট নির্ধারিত লিমিট অতিক্রম করছে কিনা।

মানি এক্সচেঞ্জ, ব্যাংকের শাখা এবং সংশ্লিষ্ট যেসব দেশ থেকে বাংলাদেশে রেমিট্যান্স প্রেরণ করতে পারবেন, তার তালিকাঃ

বিদেশ থেকে বিকাশে টাকা আনার ক্ষেত্রে আপনার কোনো অভিজ্ঞতা আছে কি? থাকলে আমাদেরকে কমেন্টে জানান।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 4,593 other subscribers

Comments