ফিলিস্তিনকে “স্বীকৃতি” দিল গুগল

gplফিলিস্তিনকে “স্বীকৃতি” দিয়েছে ওয়েব জায়ান্ট গুগল। সার্চ সেবাদাতার ফিলিস্তিনি স্থানীয় ইউআরএল http://www.google.ps এ অতীতে গুগল লোগোর নিচে “Palestinian Territories” লেখা থাকত। কিন্তু পহেলা মে থেকে এর স্থলে শুধু “Palestine” লেখা প্রদর্শিত হয়ে আসছে। ব্যাপারটি অফিসিয়ালভাবেই নিশ্চিত করেছে এই মার্কিন কোম্পানি। প্রতিষ্ঠানটি আরও বলেছে, এই পরিবর্তন শুধুমাত্র সার্চ পেজের জন্যই নয়, বরং গুগলের সকল সেবার জন্যই প্রযোজ্য হবে। গুগল জানিয়েছে, এ ধরণের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে কোম্পানিটি বিভিন্ন সূত্র এবং কর্তৃপক্ষের সাথে পরামর্শ করে থাকে। আর ফিলিস্তিনের (প্যালেস্টাইন) ক্ষেত্রে উক্ত সিদ্ধান্ত নেয়ার ব্যাপারে তারা জাতিসংঘ, আইসিএএনএন (ICANN: Internet Corporation for Assigned Names and Numbers) এবং আইএসও (ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর স্ট্যান্ডার্ডাইজেশন) এবং অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংস্থার সঙ্গে আলোচনা করেছে।

ফিলিস্তিনিদের ভাগ্যে কি কোন পরিবর্তন আসবে এতে?

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, “প্যালেস্টাইন” শব্দটি ব্যবহারের পেছনে ইসরাইল ও তাদের কিছু মিত্র রাষ্ট্রের মতানৈক্য রয়েছে। গত নভেম্বরে ইসরাইল এবং যুক্তরাষ্ট্রের তীব্র বিরোধীতার মুখে জাতিসংঘ ফিলিস্তিনকে পর্যবেক্ষক রাষ্ট্রের মর্যাদা প্রদান করে। ফলে  ফিলিস্তিনের মর্যাদা “পর্যক্ষেক” পরিচয় থেকে ‘অসদস্য পর্যবেক্ষক রাষ্ট্রে’ উন্নীত হয়।

উক্ত ভোটাভুটিতে ১৩৮ দেশ ফিলিস্তিনের পক্ষে ভোট দেয় এবং এর বিপক্ষে মাত্র ৯ টি ভোট পরে যার মধ্যে রয়েছে ইসরাইল এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এতে ৪১ রাষ্ট্র ভোট দেয়া থেকে বিরত ছিল। ভোট গ্রহণের পরপরই জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন বলন, “ফিলিস্তিনের একটি স্থায়ী স্বাধীন রাষ্ট্র হবার অধিকার আছে। আর ইসরায়েলীদের রয়েছে নিরাপত্তা পাবার অধিকার। এই প্রস্তাব গৃহীত হবার মাধ্যমে শান্তি আলোচনা আবারো শুরু হবার বিষয়টি গুরুত্ব পেলো।”;

ঐ প্রস্তাবটি পাস হওয়ার ফলে পূর্ব জেরুজালেম (পূর্ব বাইতুল মুকাদ্দাস), জর্দান নদীর পশ্চিম তীর এবং গাজা উপত্যকা নিয়ে গঠিত ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড জাতিসংঘের পর্যবেক্ষক রাষ্ট্র হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,052 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.