আসছে নকিয়ার চমকপ্রদ ফোন যা আইফোনের সাথে লড়াই করবে!

নকিয়া নামটি মোবাইল ফোনের বাজারে দীর্ঘদিন ধরে খুব পরিচিত। আগের মত সেরকম জনপ্রিয় না হলেও নোকিয়া ব্র্যান্ডে আজকাল নিয়মিতই নতুন নতুন অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন বাজারে আসছে। সব ধরনের মূল্যেই তাদের আকর্ষণীয় বেশ কিছু স্মার্টফোন পাওয়া যায়। ফিনল্যান্ডের এই টেলিকম প্রতিষ্ঠানের একসময় আধিপত্য ছিলো পুরো বিশ্ব জুড়েই। তবে স্মার্টফোনের আবির্ভাবে নোকিয়া তার আধিপত্য ধরে রাখতে পারেনি। নকিয়া মোবাইলের জনপ্রিয়তার জায়গাটি নিয়ে নেয় অ্যাপল ও স্যামসাং এর মতো স্মার্টফোনের ব্র্যান্ডগুলো।

এখন কেউ স্মার্টফোন কিনতে গেলে সাধারণত নোকিয়া ফোন নেয়ার কথা ভাবেন না। আর এই পরিস্থিতির উন্নতি করতেই নোকিয়া নজরকাড়া সব স্মার্টফোন বাজারে আনতে চাচ্ছে। আর এজন্য তারা নোকিয়া ম্যাজিক ম্যাক্স নামক বেজেললেস ফোন, নতুন ইউআই ডিজাইন ছাড়াও আরো বেশ কিছু পরিবর্তন আনতে যাচ্ছে তাদের স্মার্টফোন লাইন আপে। এইচএমডি গ্লোবাল নামের একটি প্রতিষ্ঠান বর্তমানে নোকিয়া ফোনগুলো তৈরি করছে। এই পোস্টে থাকবে নোকিয়ার স্মার্টফোনগুলোতে কী কী পরিবর্তন আসতে চলেছে তার বিস্তারিত। সেই সঙ্গে নতুন স্মার্টফোন নোকিয়া ম্যাজিক ম্যাক্সের স্পেক লিক ও অন্যান্য সকল তথ্য।

নতুন লোগো ও ইউআই নিয়ে আসবে কি নোকিয়া ম্যাজিক ম্যাক্স?

সম্প্রতি নোকিয়া তাদের নতুন লোগো প্রকাশ করেছে। নতুন লোগোতে নতুন ফন্ট ও স্টাইল ব্যবহার করেছে নোকিয়া। সেই সঙ্গে নতুন অ্যান্ড্রয়েড ইউআই এর ছবিও প্রকাশ করেছে তারা। নতুন ইউআইতে দেখা যাবে নতুন ধরণের ডিজাইন ও অ্যানিমেশন।

নতুন ধরণের অনেক কিছুই আনা হচ্ছে নোকিয়ার নতুন স্মার্টফোন দুনিয়ায় যা নোকিয়াকে নতুন করে চেনাবে বলে আশা করছে তারা। নোকিয়া মূলত ফ্ল্যাগশিপ ফোনগুলোর দিকে বাড়তি দৃষ্টি দিতে চাইছে। সাম্প্রতিক খবর অনুযায়ী এই নতুন ফ্ল্যাগশিপ ফোনের দিকে যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছে নোকিয়া নতুন মডেলের একটি ফোন দিয়ে। ফোনটি বেশ ভালো স্পেক নিয়ে বাজারে আসবে যা সরাসরি আইফোনের সাথে প্রতিযোগিতায় নামবে বলে গুঞ্জন রয়েছে।

বিভিন্ন প্রতিবেদন অনুযায়ী নতুন মডেলের এই ফোনটির নাম রাখা হয়েছে ‘নোকিয়া ম্যাজিক ম্যাক্স’। এটি নোকিয়ার নতুন ইউআই ‘পিউর ইউআই’তে চলা প্রথম ফোন হতে যাচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। তবে এই ফোনে এই ইউআই না থাকবারও একটি সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা গেছে। তবে পুরোটাই নির্ভর করছে নোকিয়ার উপর। সাম্প্রতিক কিছু লিক থেকে জানা গেছে ফোনটির ডিজাইন হবে বেশ আলাদা ধরণের। কিন্তু এধরণের ডিজাইনের ফোনের সাথে অন্য ব্র্যান্ডগুলোর মাধ্যমে আগেই পরিচয় হয়েছে সবার। ফোনের সামনে থাকবে পুরোপুরি বেজেল ছাড়া একটি ডিসপ্লে। তবে পিছনের ক্যামেরা ডিজাইন অনেকটাই আইফোনের মতো হবে বলে জানা গেছে।

ফোনের পাশে এজগুলোও আইফোনের মতো ফ্ল্যাট ধরণের হবে বলেও জানা গিয়েছে। তবে পিছনের এজ আইফোনের থেকে কিছুটা রাউন্ডেড। ফলে ফোনটি ধরতে আইফোনের থেকে বেশি আরাম লাগবে বলে আশা করা যায়।

নোকিয়া ম্যাজিক ম্যাক্সের স্পেক

৯১মোবাইলসের মাধ্যমে নতুন এই নোকিয়া ফ্ল্যাগশিপ ফোনের স্পেক পুরোটাই ফাঁস হয়ে গেছে ইতোমধ্যে। দেখে নেয়া যাক কী কী থাকবে নোকিয়া ম্যাজিক ম্যাক্সের সঙ্গে।

ফোনটির সামনের বেজেল ছাড়া ডিসপ্লেটি হবে ৬.৭ ইঞ্চির অ্যামোলেড প্যানেল। আইফোনের মতোই খুব সুক্ষ বেজেল্ থাকবে ফোনটিতে। ডিসপ্লেটি ১২০ হার্টজ হয় রিফ্রেশ রেটে চলবে এবং এর রেজুল্যুশন হবে ১০৮০x২৪০০। ডিসপ্লের উপরে মাঝের দিকে থাকবে ৬৪ মেগাপিক্সেলের পাঞ্চ হোল সেলফি ক্যামেরা।

পারফরমেন্সের দিক থেকে সেরা সবকিছুই দেয়া হবে এই ফোনে। থাকবে একদম লেটেস্ট স্ন্যাপড্রাগন চিপসেট ৮ জেন ২। এছাড়াও জানা গেছে এটি ৮, ১২ এবং ১৬ এই তিন ধরণের মেমোরি ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে।

স্টোরেজেও দুটি অপশন থাকবে। ২৫৬ ও ৫১২ জিবি স্টোরেজের যে কোনটি আপনি নিতে পারবেন। দুটি স্টোরেজই লেটেস্ট স্টোরেজ টেকনোলজি ইউএফএস ৪.০ তে থাকবে। ফলে ফোনের সকল কাজ খুব দ্রুত সম্পন্ন হবে।

ফোনের পিছনে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ পাওয়া যাবে। মূল ক্যামেরাটি হবে ১০৮ মেগাপিক্সেল সেন্সরের। এছাড়াও থাকবে ১৬ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রাওয়াইড এবং ৫ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো লেন্স।

ফোনের অন্যতম সেরা ফিচার হতে পারে এর ব্যাটারি লাইফ। কেননা লিক থেকে জন্য গেছে এই ফোনে বিশাল একটি ব্যাটারি ব্যবহার করা হতে পারে। ৭,৫০০ মিলিএম্পের ব্যাটারি থাকতে পারে এই ফোনে যা সাধারণ ৫০০০ মিলিএম্প থেকে অনেক লম্বা সময় ব্যাকাপ দিতে পারবে। ফাস্ট চার্জিং সুবিধা থাকবে বলে জানা গেলেও তা কত ওয়াটের হবে সেটি নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

nokia new smartphone

দাম, কালার এবং সম্ভাব্য রিলিজ ডেট

দাম হতে যাচ্ছে এই নোকিয়া ম্যাজিক ম্যাক্সের সবথেকে আকর্ষনীয় দিক। কেননা বিভিন্ন উৎস থেকে জানা গেছে এর দাম শুরু হতে পারে মাত্র ৩২,৯৯০ ইন্ডিয়ান রুপি বা প্রায় ৪০০ ডলার থেকে। শুধু তাই নয় এই ফোনের থাকবে চারটি কালার। কালারগুলো হলো: লাল, কালো, সোনালী এবং সবুজ। এছাড়াও নোকিয়া থেকে অফিসিয়াল কোনো ঘোষণা না এলেও ধারণা করা হচ্ছে এই ফোনটি আগস্ট ২০২৩ এ বাজারে আসতে পারে।

নোকিয়ার জন্য এই ধরণের ফোন পুরোপুরি নতুন অভিজ্ঞতা বলেই এখানে নোকিয়া কতটা সফলতা লাভ করতে পারে সেটি দেখার জন্য অপেক্ষা করতে হবে আমাদেরকে। তবে স্পেক, ডিজাইন ও দাম থেকে এই ফোনটি যে ব্যবহারকারীদের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয় হতে পারে সেই ব্যাপারে আশা রাখা যায়। কাজেই নতুন ফোন কিনতে চাইলে এই ফোনটির দিকে আলাদা দৃষ্টি রাখতে পারেন।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,572 other subscribers

1 Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *