কম দামে পোকো সি৩১ ফোন এলো বাংলাদেশে

পোকো সি৩ এর সাফল্যের অংশ হিসেবে পোকো সি৩১ বাজারে নিয়ে এসেছে শাওমি। বাংলাদেশ সহ এশিয়ার অনেক দেশে এই ফোনটি সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে। চলুন জেনে নেওয়া যাক পোকো সি৩১ ফোনটি সম্পর্কে বিস্তারিত।

ডিজাইন ও ডিসপ্লে

পোকো সি৩১ ফোনটিতে ডুয়ো-টোন ডিজাইন চোখে পড়বে, যা পোকো ফোনে সচরাচর দেখা যায়না। পোকো সি৩ এর চেয়ে বেশ উন্নতি এসেছে পোকো সি৩১ এর ডিজাইনে। পোকো সি৩১ এর গ্লসি ও ম্যাট ফিনিশ এর কারণে ফোনটি বেশ অসাধারণ লাগে।

ফোনটির বডিতে পলিকার্বনেট ব্যবহার করা হয়েছে। ফোনের পেছনে থাকা ক্যামেরা কাটআউট দেখে অনেকে এটিকে রিয়েলমি ফোন ভেবে ভুল করতে পারেন। একেবারে ব্র্যান্ড নিউ কোনো ডিজাইন না হলেও দাম বিবেচনায় পোকো সি৩১ আপনার ভাল লাগবে আশা করা যায়।

ফোনের ফ্রন্টে রয়েছে ৬.৫৩ইঞ্চি এর একটি আইপিএস এলসিডি প্যানেল, যার রেজ্যুলুশন এইচডি প্লাস। ফোনের বেজেল অপেক্ষাকৃত ছোট, যার ফলে ফোনটির বেশ দারুণ দেখায়। ডিসপ্লেতে থাকছে “পান্ডা গ্লাস স্ক্রিন প্রটেকশন”।

পারফরম্যান্স

পোকো সি৩১ যেহেতু এন্ট্রি লেভেলের ফোন তাই এখানে মাথানষ্ট পারফরম্যান্স আশা করাটা ঠিক হবেনা। ফোনটিতে প্রসেসর হিসেবে থাকছে মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫ প্রসেসর যা আমরা ইতিমধ্যে অনেক ফোনে দেখে এসেছি। এই প্রসেসর সাধারণ দৈনিক ব্যবহারের জন্য বেশ কার্যকরী হিসেবে প্রমাণিত। তবে হেভি গেমিং এর মত টাস্ক এই ফোনটিতে স্বভাবতই তেমন সুবিধার হবে না।

ফোনটি দেশের বাজারে পাওয়া যাবে ৩/৪জিবি র‍্যাম ও ৩২/৬৪জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে। মাইক্রো এসডি কার্ড ব্যবহার করে এই স্টোরেজ ৫১২জিবি পর্যন্ত বাড়িয়ে নেওয়া যাবে। ফোনটিতে ব্যবহার করা প্রসেসর ইতিমধ্যে আমরা ১০ হাজার টাকা দামের ফোনেও দেখেছি। এই দামে তাই এই প্রসেসর কিছুটা হলেও বেমানান লাগে।

ক্যামেরা

ক্যামেরা সেকশনেও বেশ এভারেজ পোকো সি৩১ ফোনটি। ১৩মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা সেটাপ থাকছে ফোনটিতে। ১৩মেগাপিক্সেল মেইন ক্যামেরার পাশাপাশি ২মেগাপিক্সেল এর একটি ম্যাক্রো ও ২মেগাপিক্সেলের একটি ডেপথ সেন্সর রয়েছে। অর্থাৎ এই ফোনের ব্যাকে শুধু একটি কার্যকরী ক্যামেরা পাওয়া যাচ্ছে। ফোনের ফ্রন্টে রয়েছে ৫মেগাপিক্সেল এর সেলফি ক্যামেরা। ফোনের উভয় ক্যামেরা দিয়ে সর্বোচ্চ ১০৮০পি রেজ্যুলুশনে ভিডিও রেকর্ড করা যাবে।

কম দামে পোকো সি৩১ ফোন এলো বাংলাদেশে

ব্যাটারি

শাওমি ফোনগুলো বরাবরই ব্যাটারির দিক দিয়ে চ্যাম্পিয়ন। পোকো সি৩১ ফোনটিতেও তার ব্যতিক্রম নেই। ফোনটিতে ৫০০০মিলিএম্প এর বিশাল ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে, যা খুব সহজে ৮ঘন্টার বেশি ব্যাটারি ব্যাকাপ দিবে।

ফোনের বক্সে দেওয়া রয়েছে ১০ওয়াট এর চার্জার যা কিছুটা আশাহত হওয়ার মত বিষয়। যেহেতু ফোনের ব্যাটারি ৫০০০মিলিএম্প, তাই এই ১০ওয়াট এর চার্জার দ্বারা ফোনটিকে চার্জ করতে দুই ঘন্টার বেশি সময় লাগবে। ফোনটি অন্যান্য ফিচারে যেহেতু অনেক কমতি রয়েছে তাই আমাদের মনে হয় শাওমির উচিত ছিলো ফোনের বক্সে অন্তত ১৮ওয়াট এর ফাস্ট চার্জার প্রদান করা।

দাম

পোকো সি৩১ ফোনটির ৩জিবি র‍্যাম ও ৩২জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ১২,৯৯৯ টাকা। আর ৪জিবি র‍্যাম ও ৬৪জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ১৩,৯৯৯টাকা।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

একনজরে পোকো সি৩১ এর স্পেসিফিকেশন

  • ওএসঃ এন্ড্রয়েড ১০, মিইউআই ১২
  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫৩ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫ 
  • র‍্যামঃ ৩জিবি / ৪জিবি 
  • স্টোরেজঃ ৩২জিবি / ৬৪জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ১৩মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০মিলিএম্প
  • ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর

👉 পোকো মোবাইল ফোনের দাম জানুন

বাংলাটেক সাজেশন

একই দামে এর সমকক্ষ বা ক্ষেত্রবিশেষ ভাল ফোন বাজারে পেয়ে যাবেন। একই বা আরো কম দামে পোকো সি৩১ এর সাথে প্রতিযোগিতামূলক ফিচার অফার করছে ওয়ালটন আরএক্স৮ মিনি, টেকনো স্পার্ক ৬, স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২এস, রিয়েলমি নারজো ৩০এ, ইনফিনিক্স হট ১০, এই ফোনগুলো। 

এখন প্রশ্ন হচ্ছে ১৩হাজার টাকা দামের এই ফোনটি কি আপনার কেনা উচিত? ব্র্যান্ড হিসেবে পোকো এবং শাওমি অনেকের থেকেই এগিয়ে আছে। তাই ফিচারে কম্প্রোমাইজ করবেন কিনা সবদিক থেকে বিবেচনা করেই আপনি সিদ্ধান্ত নিন!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,044 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.