হোয়াটসঅ্যাপ কিনতে গিয়ে বাধার মুখে ফেসবুক

অনলাইন মেসেজিং সার্ভিস হোয়াটসঅ্যাপ কিনতে গিয়ে ব্যবহারকারীদের গোপনীয়তা সঙ্ক্রান্ত ইস্যুতে চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হচ্ছে ফেসবুক। যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল ট্রেড কমিশনের (এফটিসি) নিকট দায়েরকৃত এক অভিযোগপত্রে একটি প্রাইভেসি গ্রুপ হোয়াটসঅ্যাপ নিয়ে ফেসবুকের বিস্তারিত কর্মপরিকল্পনা প্রকাশের দাবী জানিয়েছে। যতদিন পর্যন্ত সোশ্যাল মিডিয়া কোম্পানিটি হোয়াটসঅ্যাপ সম্পর্কে উক্ত তথ্য না দেবে ততদিন ফেসবুক যাতে সার্ভিসটির অধিগ্রহণ সম্পন্ন করতে না পারে এফটিসিকে সেই ব্যবস্থা গ্রহণেই আহ্বান জানিয়েছে গ্রুপটি।

অবশ্য, হোয়াটসঅ্যাপ কেনার ঘোষণা দেয়ার সময়ই ফেসবুক জানিয়েছিল যে চ্যাটিং সার্ভিসটি ফেসবুকের মালিকানায় যাওয়ার পরেও স্বাধীনভাবে চলতে থাকবে এবং অ্যাপটির বিদ্যমান ব্যবহারকারীরা যেই শর্তে এতে সাইনআপ করেছেন সেসব শর্তের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করবে ফেসবুক। অর্থাৎ, হোয়াটসঅ্যাপ ইউজারদের ব্যক্তিগত তথ্য যেমন ইমেইল এড্রেস, ফোন নাম্বার প্রভৃতি কোনো বিজ্ঞাপনী সংস্থার নিকট বিক্রি করবেনা মার্ক জাকারবার্গের অনলাইন ফার্ম।

বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগের সেবা ফেসবুক সাইটটিতে অ্যাড দেখিয়ে অর্থ আয় করে থাকে। এর ১.২ বিলিয়নের বেশি ব্যবহারকারী রয়েছে। অপরদিকে হোয়াটসঅ্যাপের ৪৫০ মিলিয়নের মত ইউজার আছে। হোয়াটসঅ্যাপ কিনতে ১৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলার খরচ করছে ফেসবুক।

যদিও ফেসবুক বলেছে তারা হোয়াটসঅ্যাপের প্রাইভেসি পলিসি পরিবর্তন করবেনা, তবে এই আশ্বাসে সন্তুষ্ট নয় প্রাইভেসি গ্রুপগুলো। তারা বলছে, এর আগে ফটো শেয়ারিং সার্ভিস ইনস্টাগ্রামও কিনে নিয়েছিল ফেসবুক, যার ক্ষেত্রেও একই নিশ্চয়তা দিলেও শেষ পর্যন্ত পলিসি পরিবর্তন করেছে সোশ্যাল ফার্মটি।

আর এজন্য অভিযোগকারীরা এফটিসির মাধ্যমে ফেসবুককে হোয়াটসঅ্যাপ ডেটার সুরক্ষার জন্য ‘বাধ্য’ করতে চাচ্ছে।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,561 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *