হোয়াটসঅ্যাপে গোপনীয় মেসেজ অটো-ডিলিট করার উপায়

হোয়াটসঅ্যাপে গোপনীয় মেসেজগুলো সুরক্ষিত রাখতে ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ নামক একটি ফিচারে রয়েছে। এই ফিচারটির মাধ্যমে ব্যবহারকারীগণ মেসেজ পাঠানোর ২৪ঘন্টা, ৭দিন, বা ৯০দিন পর আপনাআপনি মেসেজগুলো মুছে যাওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারবেন। অর্থাৎ, আপনি হোয়াটসঅ্যাপে কাউকে মেসেজ দেওয়ার আগে নির্ধারণ করতে পারবেন যে মেসেজগুলো কি তার ইনবক্সে সংরক্ষিত থাকবে, নাকি নির্দিষ্ট সময় পর নিজ থেকেই মুছে যাবে।

চলুন জেনে নেওয়া যাক হোয়াটসঅ্যাপ এর ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ কিভাবে কাজ করে, ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ চালু ও বন্ধ করার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত।

ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ কিভাবে কাজ করে

হোয়াটসঅ্যাপ এর ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ ফিচারটি পারসোনাল চ্যাট ও গ্রুপ চ্যাট, উভয় ক্ষেত্রেই কাজ করবে। তবে পুর্বে পাঠানো মেসেজ এই ফিচারের আওতাধীন নয়।

সাধারণ ব্যাক্তিগত চ্যাটে যেকোনো একজন ব্যবহারকারী ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ ফিচারটি চালু বা বন্ধ করতে পারবেন। গ্রুপ চ্যাটের ক্ষেত্রে শুধুমাত্র গ্রুপ এডমিন গ্রুপ সেটিং পরিবর্তন করে ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ ফিচার চালু বা বন্ধ করতে পারবেন।

এমনকি কোনো ব্যবহারকারী যদি সিলেক্ট করা সময়ের মধ্যে উক্ত চ্যাট ওপেন না ও করে থাকে, তবুও সিলেক্ট করা সময়ের মধ্যে মেসেজ মুছে যাবে। তবে মেসেজের প্রিভিউ নোটিফিকেশনে থেকে যেতে পারে।

কোনো মেসেজের রিপ্লাই করার সময় যে মেসেজের রিপ্লাই করা হয়, সেটি কোট আকারে দেখানো হয়। ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজের রিপ্লাই করলে সেক্ষেত্রে মেসেজ না থাকলেও রিপ্লাই থাকবে। আবার ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ যদি অন্য কোনো চ্যাটে ফরওয়ার্ড করা হয়, সেক্ষেত্রে উক্ত চ্যাট নির্দিষ্ট সময়ের পর মুছে যাবেনা।

যদি মেসেজ মুছে যাওয়ার আগে কোনো ব্যবহারকারী উক্ত মেসেজের ব্যাকাপ নিয়ে রাখে, সেক্ষেত্রে মেসেজ ব্যাকাপে ঠিকই সেভ থাকবে। তবে ব্যাকাপ রিস্টোর করার পর ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ মুছে যাবে। 

ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ ফিচারটি শুধুমাত্র বিশ্বস্ত মানুষদের সাথে ব্যবহার করতে পরামর্শ দিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ। কেননা মেসেজ মুছে যাওয়ার আগে কেউ স্ক্রিনশট নিয়ে রাখলে বা সেভ করে রাখলে সেক্ষেত্রে মেসেজের গোপনীয়তা নষ্ট হতে পারে।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ চালু করার নিয়ম

চ্যাটে যেকোনো একজন ইউজার ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ ফিচার চালু করতে পারবেন। ফিচারটি চালু করার পর সিলেক্ট করা সময়ের পর নতুন মেসেজসমুহ মুছে যাবে।

হোয়াটসঅ্যাপে ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ ফিচারটি চালু করতেঃ

  • হোয়াটসঅ্যাপে প্রবেশ করে কাংখিত চ্যাট সিলেক্ট করুন
  • এটি হতে পারে কোনো ব্যক্তির সাথে চ্যাট অথবা কোনো গ্রুপ চ্যাট
  • কনটাক্ট/গ্রুপ এর নামে ট্যাপ করুন
  • এখন যে অপশনগুলো আসবে সেখান থেকে একটু নিচের দিকে স্ক্রল করে যান
হোয়াটসঅ্যাপ ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ ব্যবহারের নিয়ম
  • Disappearing messages এ ট্যাপ করুন
  • এরপর কোনো প্রোম্প্ট আসলে Continue তে ট্যাপ করুন
  • ২৪ঘন্টা, ৭দিন ও ৯০দিন থেকে যে সময় পর নতুন মেসেজসমুহ মুছে ফেলতে চান, তা সিলেক্ট করুন

হোয়াটসঅ্যাপ ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ ব্যবহারের নিয়ম

ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ বন্ধ করার নিয়ম

ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ ফিচারটি ব্যবহার করা শেষে বন্ধ না করলে ভবিষ্যতের সকল মেসেজই নির্দিষ্ট সময় পর মুছে যাবে। চ্যাটের যেকোনো একজন ব্যবহারকারী এই ফিচারটি বন্ধ করতে পারবেন। ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ ফিচারটি বন্ধ করতেঃ

  • হোয়াটসঅ্যাপে প্রবেশ করে ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ চালু থাকা চ্যাটে প্রবেশ করুন
  • কনটাক্ট/গ্রুপ এর নামে ট্যাপ করুন
  • Disappearing messages এ ট্যাপ করুন
  • প্রোম্পট আসলে Continue তে ট্যাপ করুন
  • Off সিলেক্ট করুন

👉 হোয়াটসঅ্যাপ একাউন্ট খোলার নিয়ম

👉 হোয়াটসঅ্যাপের কিছু উপকারী ফিচার যা আপনার কাজে লাগবে

👉 হোয়াটসঅ্যাপ টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন ফিচার সম্বন্ধে জানুন

আবারো জানিয়ে দিচ্ছি, ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজ ফিচারটি অন হওয়ার পর থেকে পাঠানো মেসেজগুলোর ক্ষেত্রে এই ফিচারটি প্রযোজ্য হবে। আগে পাঠানো মেসেজ এর ফলে মুছে যাবেনা। এছাড়া কেউ যদি স্ক্রিনশট নেয়, ব্যাকাপ নেয় কিংবা ফরোয়ার্ড করে সেক্ষেত্রেও মেসেজ থেকে যাবে। তাছাড়া ছবি বা ভিডিও ফাইল ডাউনলোড হয়ে গেলে তাও এভাবে নিজ থেকে মুছে যাবেনা। সুতরাং ফিচারটি ব্যবহারের আগে ভালোভাবে বুঝে নিবেন।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,592 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.