ই-সিম নিয়ে এলো টেলিটক

রাষ্ট্রায়ত্ত মোবাইল অপারেটর টেলিটক অবশেষে নিয়ে এলো তাদের ই-সিম সার্ভিস। ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে এই নতুন সেবা চালু করে টেলিটক।

ই-সিম অধিক পরিবেশ-বান্ধব এবং অনলাইনের মাধ্যমে শুধুমাত্র সফটওয়্যার দ্বারা একটিভ করা যায়। বারবার সিম খুলে লাগানো, কিংবা সিম হারিয়ে ফেলার সমস্যাও ই-সিম এর সাথে নেই।

এছাড়া একই সময়ে একাধিক ফোন নাম্বার ব্যবহার করা যাবে এই নতুন সিস্টেমে। মোবাইল এর মডেল এর উপর নির্ভর করে একই মোবাইলে একই সাথে ৫টি পর্যন্ত ইসিম ব্যবহার করা যাবে।

২০২২ সালের মার্চ মাসে সর্বপ্রথম দেশে ই-সিম সুবিধা চালু করে গ্রামীণফোন। এরপর রবি ও বাংলালিংকও সেবাটি চালু করে, সর্বশেষ টেলিটক এই সেবা চালু করেছে।

ই-সিম বা এমবেডেড সিম মোটেও ট্রেডিশনাল সিম প্রযুক্তির মত নয়। ফিজিক্যাল সিম এর মত ই-সিম ম্যানুয়ালি ডিভাইসে প্রবেশ করাতে হয়না, এই ধরনের সিম ফোনেই বিল্ট-ইন থাকে। ব্যবহারকারীগণ খুব সহজে নেটওয়ার্কে লগিন করে সিম ব্যবহার করতে পারে এই প্রযুক্তিতে। আপনার বর্তমান টেলিটক সিমকে ই-সিমে রূপান্তর করার জন্য নিকটস্থ টেলিটক কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে যোগাযোগ করুন।

👉 ই-সিম সম্পর্কে কিছু ভুল ধারণা এবং সেগুলোর সঠিক তথ্য জানুন

teletalk esim

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,572 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *