করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার কারণ, লক্ষণ ও চিকিৎসা কী?

বিশ্বের অনেকগুলো দেশে নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে আতংক তৈরি হয়েছে। ৯ এপ্রিল ২০২০ পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে ৮৮ হাজারের বেশি মৃত্যুর খবর এসেছে। আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ১৫ লাখ। মহামারী হিসেবে দেখে দিয়েছে এই নতুন করোনাভাইরাস সংক্রমিত রোগ কোভিড-১৯।

করোনাভাইরাস আপডেট — লাইভ ব্লগ (এখানে ক্লিক করুন)

চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহানে প্রথম করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। পরে তা জাপান, থাইল্যান্ড, হংকং, ভিয়েতনাম, দক্ষিণ কোরিয়া, তাইওয়ান, সৌদি আরব, যুক্তরাষ্ট্র পর্যন্ত ছড়িয়েছে। বাংলাদেশেও এই রোগ দেখা দিয়েছে।

নভেল করোনা ভাইরাস (২০১৯-nCOV) ভাইরাসের সপ্তম বৃহৎ প্রজাতি। এটি মূলত শ্বাসতন্ত্রে সংক্রমণ ঘটায়। পাশাপাশি আরও কিছু উপসর্গ দেখা দেয়।

লিভার ও কিডনিও আক্রান্ত হতে পারে। ফ্লু বা ঠান্ডা লাগার মতো করেই এ ভাইরাস ছড়ায় হাঁচি-কাশির মাধ্যমে। তবে শেষ পর্যন্ত অরগ্যান ফেইলিওর বা অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ বিকল হয়ে যাওয়া, নিউমোনিয়া এবং মৃত্যু ঘটারও আশঙ্কা রয়েছে।

করোনা ভাইরাসের লক্ষণ

আক্রান্ত হওয়ার পর ৫ দিন পর নিম্নোক্ত লক্ষণ দেখা দিতে পারে।

  • শ্বাসকষ্ট
  • ১০০ ডিগ্রি ফারেনহাইট জ্বর
  • শুকনো কাশি
  • শ্বাসপ্রশ্বাসের সমস্যা
  • পেটের পীড়া
  • পেটে জ্বালাপোড়া

করোনা ভাইরাস এর চিকিৎসা কী?

এখনও পর্যন্ত করোনা ভাইরাসের কোনো টিকা বা প্রতিষেধক আবিষ্কৃত হয়নি। রোগ প্রতিরোধের নির্দিষ্ট চিকিৎসাও নেই। তাই রোগীর লক্ষণ অনুযায়ী চিকিৎসা দিয়ে থাকেন চিকিৎসকরা।

চিকিৎসকরা বলছেন:

  • ভাইরাস সংক্রমিত ব্যক্তির সংস্পর্শ এড়িয়ে চলুন
  • বারবার হাত ধুয়ে পরিচ্ছন্ন থাকুন
  • হাত দিয়ে নাক-মুখ স্পর্শ না করাই ভালো
  • ঘরের বাইরে গেলে সার্জিক্যাল মাস্ক পরুন

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ঝুঁকি কমাতে হাত ধোয়ার সঠিক নিয়ম নিচের ভিডিওতে দেখুন

বাংলাদেশের স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, চীন বা আক্রান্ত দেশ ভ্রমণ শেষে ফেরার ১৪ দিনের মধ্যে যদি প্রচণ্ড জ্বর (অন্তত ১০০ ডিগ্রি ফারেনহাইট), গলাব্যথা, কাশি বা শ্বাসকষ্টের সমস্যায় পড়েন, তাহলে নভেল করোনা ভাইরাস (২০১৯-nCOV) সংক্রমণ হয়ে থাকতে পারে। এ ক্ষেত্রে অবিলম্বে স্বাস্থ্য কেন্দ্র বা চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

করোনার লক্ষণ দেখা দিলে নিচের নম্বরে যোগাযোগ করুন

  • আইইডিসিআরের হটলাইন নম্বর: সরকারের জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) নম্বর হলো ১০৬৫৫
  • স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হটলাইনের নম্বর: সরকারের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হটলাইন নম্বর ১৬২৬৩ 
  • স্বাস্থ্য বাতায়ন হটলাইন নম্বর: স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের একটি সেবা কার্যক্রম স্বাস্থ্য বাতায়ন। স্বাস্থ্য বাতায়নের হটলাইন নম্বর ৩৩৩

এছাড়া করোনা নিয়ে সর্বশেষ সরকারি তথ্য পেতে ভিজিট করুন https://corona.gov.bd/ ওয়েবসাইট (বাংলাদেশ সরকারের অফিসিয়াল করোনাভাইরাস তথ্যমূলক সাইট)।

আপনি কি করোনা আক্রান্ত?

করোনার সম্ভাব্যতা যাচাই করতে এই লিংকে ক্লিক করুনঃ https://livecoronatest.com/

আপনার আশেপাশের সম্ভাব্য কেউ কি করোনা আক্রান্ত?

আপনার আশেপাশের সম্ভাব্য কারো করোনা আক্রান্তের তথ্য দিতে এই লিংক ক্লিক করুনঃ https://corona.gov.bd/affected

 

আপডেটঃ ২৯ মার্চ ২০২০ । সূত্রঃ ল্যাবএইড , প্রথম আলো , https://corona.gov.bd/

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 4,701 other subscribers

Comments