মৃত্যুর পরে আপনার সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইলের কী হবে?

By -

ethics and social mediaফেসবুক, টুইটার, গুগল প্লাস, লিংকডইন প্রভৃতি সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে ক্রমবর্ধমান হারে নতুন ব্যবহারকারী যুক্ত হচ্ছেন। একই সময়ে অনেকেই পৃথিবী থেকে বিদায় নিচ্ছেন। তাদের সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইল ও ডেটা’র পরিণতি কী? এই প্রশ্নের নির্দিষ্ট কোনো উত্তর নেই।

সম্প্রতি ওয়েবপেজ এফএক্স নামক একটি সংস্থা এই বিষয়ে একটি গবেষণামূলক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। সেখান থেকে জানা যায়, মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারে কোনো ব্যক্তির প্রোফাইল ৬ মাস ধরে নিষ্ক্রিয় থাকলে এক সময় একাউন্টটি ডিলিট করে দেয় টুইটার কর্তৃপক্ষ। কিন্তু অন্যান্য বেশিরভাগ সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং প্ল্যাটফর্ম ব্যবহারকারীর একাউন্ট নিজ থেকে মুছে দিতে রাজী নয়।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 1,395 other subscribers

এক্ষেত্রে দুটি অপশন দিচ্ছে ফেসবুক। প্রথমত, মৃত ব্যক্তির পরিবার ও বন্ধুবান্ধবের অনুরোধের প্রেক্ষিতে তার প্রোফাইলকে একটি স্মৃতিমূলক পাতায় রূপান্তরিত করে দেবে কোম্পানিটি। এই মেমোরিয়াল পেজ ভিজিট করা যাবে, কিন্তু এটি ফেসবুকের ফ্রেন্ড সাজেশনে আসবেনা বা এর কোনো বার্থডে রিমাইন্ডারও তৈরি হবেনা। ২য় অপশনে, যথাযথ কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে ফেসবুক প্রোফাইল মুছে দেয়া সম্ভব। আর পরিবারের অন্য কেউ যদি মৃত ব্যক্তির ফেসবুক একাউন্টের পাসওয়ার্ড জানেন, তাহলে লগইন করেই সেটি ডিএক্টিভেট করা যাবে।

ফেসবুক, টুইটার, পিন্টারেস্ট, লিঙ্কডইন, গুগল- সবগুলো কোম্পানির ক্ষেত্রেই ইউজার ডেটার মালিকানা ইউজারেরই থাকবে। তবে পিন্টারেস্ট ব্যতীত বাকী কোম্পানিগুলো আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা বা অনুমোদিত অন্য কাউকে ব্যক্তিগত তথ্য দিতে রাজী আছে।

পিন্টারেস্ট, গুগল প্লাস, ও টুইটারের ক্ষেত্রে এসব ব্যবহৃত ইউজারনেম অন্য কেউ পুনরায় সেট করতে পারবেনা। তবে ফেসবুক ও লিংকডইন সাইটে নিষ্ক্রিয় ইউজারনেম পুনরায় ব্যবহারযোগ্য।

যথাযথ তথ্যপ্রমাণ ও যোগাযোগ ছাড়া পিন্টারেস্ট কখনোই নিজ থেকে কোনো একাউন্ট ডিএক্টিভেট করবেনা। গুগল বলছে, তারা ৯ মাস যাবত নিষ্ক্রিয় একাউন্টকে নিজ থেকেই ডিএক্টিভেট করবে। তবে এটা ব্যবহারকারীর ইনএক্টিভ একাউন্ট ম্যানেজারের শিডিউলের ওপর নির্ভর করবে। অন্য ইউজারদের রিপোর্টিং এর উপর একাউন্ট ডিএক্টিভেট করবে লিংকডইন ও ফেসবুক।

গুগল ইনএক্টিভ একাউন্ট ম্যানেজারে আপনি ১০টি বিশ্বস্ত কন্টাক্ট যোগ করতে পারবেন যারা আপনার গুগল একাউন্টের (সমস্ত অথবা আংশিকঃ পূর্বনির্ধারিত) তথ্যসমূহ যেমন জিমেইল, গুগল প্লাস, ইউটিউব, গুগল ভয়েস, ব্লগার, ড্রাইভ, পিকাসা ওয়েব অ্যালবাম ইত্যাদিতে এক্সেস পাবেন। শেষ ধাপে, বাছাইকৃত ব্যক্তির সাথে যোগযোগের পরে আপনি চাইলে গুগল আপনার পুরো একাউন্টটিই মুছে ফেলবে। গুগলের ইনএক্টিভ একাউন্ট ম্যানেজার ব্যবহারের পদ্ধতি জানতে আমাদের এই পোস্টটি পড়ুন।

প্রযুক্তির সব তথ্য জানতে ভিজিট করুন www.banglatech24.com সাইট। নতুন পোস্টের নোটিফিকেশন ইমেইলে পেতে এই লিংকে গিয়ে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

 

Comments

Leave a Reply