আইফোন চার্জ দেয়ার ক্ষেত্রে সাবধান! দুর্ঘটনা এড়াতে মেনে চলুন এই নিয়ম

অনেকদিন ধরেই আইফোন ব্যবহারকারীরা, এমনকি এন্ড্রয়েড ভক্তরাও অ্যাপলের ডিভাইস চার্জিং পোর্ট নিয়ে বিভিন্ন রকম কথা বলে আসছিলেন। আইফোনের লাইটনিং পোর্ট নিয়ে আপত্তি ছিল অনেকেরই। বিশ্বব্যাপী ইউএসবি টাইপ সি ক্যাবলের জনপ্রিয়তা স্বত্বেও অ্যাপল কেন এখনও আইফোনে ইউএসবি সি পোর্ট দিচ্ছেনা সেটা নিয়ে সমালোচনা করেছেন অসংখ্য লোক। শেষ পর্যন্ত ইউরোপের পার্লামেন্টে আইন করে অ্যাপলকে বাধ্য করা হয় আইফোনে ইউএসবি সি পোর্ট দেয়ার জন্য।

ফলশ্রুতিতে আমরা দেখতে পাই আইফোন ১৫ সিরিজে অবশেষে ইউএসবি সি পোর্ট প্রদান করেছে অ্যাপল। কিন্তু এটা নিয়েও নানান জল্পনা কল্পনা চলে আসছে। অবশ্য এটা অ্যাপলের কথিত “ওয়াল্ড গার্ডেন” নীতির প্রভাব বলা যেতে পারে। অনেকেই বলছিলেন যে অ্যাপলের আইফোনে ইউএসবি-সি পোর্ট দেওয়া হলেও হয়তো সেই ইউএসবি সি পোর্টে শুধুমাত্র অ্যাপলের তৈরি কিংবা অ্যাপল কর্তৃক সনদপ্রাপ্ত কোম্পানির তৈরি ইউএসবি-সি ক্যাবল কাজ করবে।

অর্থাৎ লোকজনের মনে একটা সন্দেহ কাজ করছিল যে অ্যাপল হয়ত আপনাকে নির্দিষ্ট কিছু ইউএসবি সি ক্যাবল কিনে ব্যবহারে বাধ্য করবে। অ্যাপলের লাইটনিং পোর্ট এর ক্ষেত্রে সে রকমটাই দেখা গিয়েছিল। আপনি যে কোন অচেনা কোম্পানির তৈরি একটি লাইটনিং কেবল চাইলেই আইফোনের সাথে সম্পূর্ণ ফিচার সহকারে ব্যবহার করতে পারবেন না।

তবে আইফোনে ইউএসবি সি ক্যাবল ব্যবহারের ক্ষেত্রে আপনি যে কোন স্ট্যান্ডার্ড বা স্বাভাবিক ইউএসবি-সি কেবল দিয়ে আইফোন চার্জ করতে পারবেন। কিন্তু অপরিচিত কোম্পানির তৈরি নিম্নমানের ইউএসবি-সি কেবল আইফোনের সাথে ব্যবহার না করাই ভালো। সম্প্রতি ঘটে যাওয়া একটি দুর্ঘটনা সেই ইঙ্গিতই দিচ্ছে।

সম্প্রতি এক রেডিট ব্যবহারকারী তার আইফোন ১৫ প্রো ম্যাক্স এর সাথে ঘটে যাওয়া ইউএসবি-সি ক্যাবল সংক্রান্ত একটি দূর্ঘটনা ছবি সহ পোস্ট করেছেন। সেই ব্যক্তি তার আইফোন চার্জে রেখে ঘুমাচ্ছিলেন। কিন্তু ঘুম থেকে উঠে তিনি দেখেন যে তার ইউএসবি-সি কেবলটি গলে গিয়েছে। ফোনের সাথে ইউএসবি সি পোর্ট যুক্ত করার স্থান থেকে কেবলটি পুড়ে গেছে। ক্যাবলের ধাতব অংশ ফোনের পোর্টের মধ্যে আটকে রয়েছে। এবং পুড়ে যাওয়া ক্যাবলের প্লাস্টিকের কারণে আইফোনে বেশ দৃশ্যমান দাগ পড়েছে।

iphone 15 pro max cable melted

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

ঐ ব্যক্তি তার আইফোন চার্জ দেয়ার ক্ষেত্রে অ্যাপলের অফিসিয়াল চার্জিং ক্যাবল ব্যবহার করেননি। বরং, তিনি বাইরে থেকে অচেনা এক কোম্পানির তৈরি ক্যাবল কিনে ব্যবহার করছিলেন। প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞদের ধারণা, ত্রুটিপূর্ণ এবং নিম্নমানের ক্যাবল হওয়ার কারণেই সেটি এই দুর্ঘটনার সৃষ্টি করেছে।

এটা থেকে সবার একটা ব্যাপারে লক্ষ্য করা উচিত যে আপনি আপনার আইফোন চার্জ দেয়ার ক্ষেত্রে কোন চার্জিং এডাপ্টার এবং ক্যাবল ব্যবহার করছেন। সব সময় অ্যাপলের অফিসিয়াল চার্জার কিংবা অ্যাপল কর্তৃক সনদপ্রাপ্ত কোম্পানির তৈরি চার্জার/ক্যাবল ব্যবহার করুন। অন্যথায় কয়েকটি টাকা বাঁচানোর জন্য নিম্নমানের এক্সেসরিজ কিনে বড় ধরণের ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারেন।

এছাড়া নিম্নমানের কিংবা আনসাপোর্টেড চার্জার ব্যবহার করলে ফোন অতিরিক্ত গরম হতে পারে যা এর ব্যাটারি দ্রুত নষ্ট করে ফেলবে। সেই সাথে অতিরিক্ত গরম হওয়ার ফলে ফোনের ডিসপ্লে কানেকশনেও সমস্যা হতে শোনা গিয়েছে যা থেকে আইফোনে গ্রিন স্ক্রিন সমস্যার সূত্রপাত হতে পারে।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,585 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *