এলো উইন্ডোজ অ্যাপ – মোবাইল থেকে কম্পিউটার চালানোর মাধ্যম!

Ignite 2023 ইভেন্টে আইফোন, আইপ্যাড, ম্যাক, ও পিসির জন্য Windows অ্যাপ ঘোষণা করেছে মাইক্রোসফট। হ্যাঁ, ঠিকই শুনেছেন। মাইক্রোসফট এর নতুন অ্যাপ এর নামই হলো উইন্ডোজ।

নিজেদের সার্ভিসের নাম সিম্পল করার অংশ হিসেবে এবার রীতিমতো উইন্ডোজ নামেরই একটি অ্যাপ নিয়ে হাজির মাইক্রোসফট। এই অ্যাপ ব্যবহার করে মাইক্রোসফট ৩৬৫, আজুর ভার্চুয়াল ডেস্কটপ, মাইক্রোসফট ডেভ বক্স, ও ইন্টারনেট এর মাধ্যমে যেকোনো স্থান থেকে রিমোট পিসিতে কানেক্ট করা যাবে। বর্তমানে অ্যাপটি পাবলিক প্রিভিউ অবস্থায় রয়েছে, যা চাইলে ব্যবহার করে দেখা যেতে পারে।

উইন্ডোজ অ্যাপ কি কাজে আসবে?

উইন্ডোজ অ্যাপ তৈরী করা হয়েছে মূলত ব্যবহারকারীদের বিভিন্ন ডিভাইসে বিভিন্ন উপায়ে মাইক্রোসফট এর অপারেটিং সিস্টেমে অ্যাকসেস প্রদানের জন্য। মাইক্রোসফট এর ডেস্কটপ ও আজুর ভার্চুয়াল ডেস্কটপ, উইন্ডোজ ৩৬৫, ও রিমোট ডেস্কটপ সার্ভিস এর মত অ্যাপ ভার্চুয়ালাইজেশন সার্ভিস এর জন্য একটি হাব হিসেবে কাজ করবে উইন্ডোজ অ্যাপ। এর সাথে অনেকটা মাইক্রোসফট ৩৬৫ এর সাথে তুলনা করা যায় যেখানে ওয়ার্ড, এক্সেল ও পাওয়ারপয়েন্ট এর মত প্রোডাক্টিভিটি অ্যাপগুলোর অ্যাকসেস পাওয়া যায়।

বর্তমানে উইন্ডোজ অ্যাপটি উইন্ডোজ, ম্যাক, আইপ্যাডওএস, আইওএস, এবং ওয়েব ব্রাউজারে ব্যবহার করে দেখা যাবে। Preview অবস্থা পার করে রিলিজ ভার্সনে পরিণত হতে এই অ্যাপকে আরো অনেক পরিবর্তন এর মধ্যে দিয়ে গিয়ে নিজের সেরা ভার্সন হয়ে উঠতে হবে। এখনো পর্যন্ত এন্ড্রয়েডে পাওয়া যাচ্ছেনা এই উইন্ডোজ অ্যাপটি, তবে খুব শীঘ্রই আসবে তা নিশ্চিত।

উইন্ডোজ অ্যাপ দিয়ে রিমোট উইন্ডোজ ব্যবহার

উইন্ডোজ অ্যাপ ব্যবহার করে কোন অপারেটিং সিস্টেমগুলো রান করা যাবে তা জানিয়ে দিয়েছে মাইক্রোসফট। যেহেতু ব্রাউজারেও চলবে এই অ্যাপ, তাই মডার্ন ব্রাউজার রান করতে পারে এমন যেকোনো ওয়েব ব্রাউজারেই উইন্ডোজ অ্যাপ ব্যবহার করা যাবে। ওয়েব ব্রাউজারে উইন্ডোজ অ্যাপ ওপেন করতে windows.cloud.microsoft ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন। এছাড়া উইন্ডোজ ডিভাইসের জন্য মাইক্রোসফট স্টোর থেকে উইন্ডোজ অ্যাপ ইন্সটল করা যাবে। আবার টেস্টফ্লাইট অ্যাপ এর মাধ্যমে অ্যাপল ডিভাইসেও অ্যাপটি ইন্সটল করা যাবে। 

windows app

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

আপাতত শুধুমাত্র মাইক্রোসফট একাউন্ট এর বিজনেস বা এডুকেশন এডিশন ব্যবহার করে সাইন ইন করা যাবে। উইন্ডোজ অ্যাপ এর ডকুমেন্টেশন দেখলে জানতে পারবেন কিভাবে বিভিন্ন ডিভাইসে কানেক্ট করতে হবে অ্যাপটি দ্বারা।

অ্যাপটি কোনো ডিভাইসে ইন্সটল করার পর প্রথম কাজ হলো ওয়ার্ক, স্কুল বা পার্সোনাল একাউন্ট ব্যবহার করে সাইন ইন করা। এটি একটি প্রয়োজনীয় ধাপ কেননা এই একাউন্টেই সামনে ব্যবহৃত সকল ভার্চুয়াল পিসি সেইভ থাকবে।

সফটওয়্যার ব্যবহার করা গুরুত্বপূর্ণ কিছু না, কিন্তু সঠিকভাবে ও ধারাবাহিকভাবে উইন্ডোজ ব্যবহার করতে চাইলে অবশ্যই সাইন ইন করা জরুরি। যেমনঃ আপনি একাধিক মনিটর, ওয়েবক্যাম, অডিও, স্টোরেজ ডিভাইস, ও প্রিন্টার কানেকশন ব্যবহার করতে পারেন এই রিমোট উইন্ডোজ সিস্টেম এর মাধ্যমে। কাস্টম ডিসপ্লে রেজ্যুলেশন এর পাশাপাশি ডায়নামিক ডিসপ্লে রেজ্যুলেশন ও স্কেলিংও সাপোর্ট করে।

মোবাইল থেকে উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহারে বেশ সুবিধা হবে। শুধুমাত্র রিমোট ডেস্কটপ ওয়ার্কফোরস এর চেয়ে বেশ বড় কিছু হয়ে উঠতে পারে এই উইন্ডোজ অ্যাপ যেখানে ক্লাউডেই মাইক্রোসফট এর শক্তিশালী টুলস ও প্ল্যাটফর্মগুলো শেয়ার করা যাবে।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,585 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *