এন্ড্রয়েডের যে টিপসগুলো সবার ব্যবহার করা উচিত

এন্ড্রয়েড ব্যবহার করা অনেক সহজ এবং এটি সবার জন্যই এক্সেসযোগ্য। তবে এন্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা যদি অতিরিক্ত কিছু শ্রম এবং সময় প্রদান করেন তাহলে এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের কাস্টমাইজ করার সক্ষমতা সবার মন কেড়ে নিবে। এই ভার্সেটাইল গুণের কারনে এন্ড্রয়েড একজন প্রো এর পাশাপাশি নতুন ব্যবহারকারীদের ক্ষেত্রেও পারফেক্ট হিসেবে বিবেচিত হয়। আমাদের আজকের এই আর্টিকেলে আমরা এন্ড্রয়েড ফোনের এমন কিছু টিপস এন্ড ট্রিকস নিয়ে আলোচনা করবো যা অনুসরণ করার ফলে আপনারা এন্ড্রয়েড ফোন একদম প্রো ব্যবহারকারীদের মতো করে পরিচালনা করতে পারবেন।

ডিফল্ট অ্যাপ পরিবর্তন করা 

আপনি যখন কোন অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন পাবেন তখন সবার প্রথমে যে কাজটি করতে পারেন সেটি হলো ডিফল্ট অ্যাপস পরিবর্তন করা। প্রায় প্রত্যেক মেজর স্মার্টফোন ব্রান্ডই আপনাকে ডিফল্ট ব্রাউজার এবং মেইল অ্যাপস অফার করে থাকে। কিন্তু বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এটি সবার মন আকৃষ্ট করতে পারে না। উদাহরণ হিসেবে বলা যায় যে স্যামসাং তাদের স্মার্টফোনে ডিফল্ট ম্যাসেজিং অ্যাপ হিসেবে স্যামসাং মেসেজ অ্যাপ ব্যবহার করে থাকে যেটি গুগল মেসেজের মত সমান পর্যায়ের না। একইভাবে গুগল ক্রোম ‘স্যামসাং ইন্টারনেট‘ থেকে বেশ ভালো ব্রাউজার। 

তাছাড়া আপনি হয়তো স্মার্টফোনের ডিফল্ট অ্যাপের পরিবর্তে আপনার পছন্দের ব্রাউজার, এসএমএস এবং মেইল অ্যাপ ব্যবহার করতে চাইতে পারেন। সে কারণে এন্ড্রয়েড আপনাকে আপনার ডিফল্ট অ্যাপ চেঞ্জ করার সুযোগ প্রদান করে থাকে। যাতে করে আপনি আপনার পছন্দ মতো অ্যাপ ব্যবহার করতে পারেন। সেজন্য প্রথমে আপনাকে সেটিংস অপশনে গিয়ে অ্যাপস সেকশনে যেতে হবে। সেখান থেকে ডিফল্ট এপ্স অপশনে গিয়ে আপনি আপনার পছন্দমত অ্যাপস নির্বাচন করতে পারেন। 

থার্ড পার্টি লঞ্চার এবং আইকন প্যাক

অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম সবার কাছে পছন্দনীয় হওয়ার একটি প্রধান কারণ হলো এর পরিবর্তন করার ক্ষমতা। অ্যান্ড্রয়েড ফোনের ডিফল্ট লঞ্চার আপনাকে আপনার পছন্দমতো প্রায় সবকিছুই কাস্টমাইজ করার সুযোগ দিয়ে থাকে। সাথে সাথে আপনি আপনার অ্যাপ এর আইকন নিজের ইচ্ছামতো কাস্টমাইজ করার সুযোগ পেয়ে যান। তবে আপনার ফোন যদি এগুলো সাপোর্ট না করে থাকে তাহলে আপনি থার্ড পার্টি লঞ্চার ব্যবহার করে ফোনের লুক পরিবর্তন করতে পারেন। গুগল প্লে স্টোরে এমন অসংখ্য থার্ড পার্টি অ্যাপ লঞ্চার রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে আপনি আপনার অ্যান্ড্রয়েড ফোন নিজের মন মতো পার্সোনালাইজ করে নিতে পারেন। 

অ্যাপের ভাষা পরিবর্তন করা 

অ্যান্ড্রয়েড এর ব্যবহারকারীদের ফোনের ডিসপ্লে ভাষা তাদের লোকাল ভাষায় পরিবর্তন করার সুযোগ করে দেয়। তবে অ্যান্ড্রয়েড ১৩ এর আপডেটের পর থেকে গুগল এটিকে অনন্য পর্যায়ে নিয়ে গিয়েছে। কেননা এটি আপনার যেকোনো অ্যাপের ডিসপ্লে ভাষা আপনার মন মতো পরিবর্তন করার সুযোগ করে দেয়। যার অর্থ হল আপনি আপনার ফোনের সম্পূর্ণ ইউআই সেট ইংরেজিতে রাখার পরও যেকোনো অ্যাপ আপনার লোকাল ভাষায় নিতে পারবেন। 

কোনো অ্যাপের ভাষা পরিবর্তন করার জন্য আপনাকে প্রথমে সেটিংস অ্যাপ চালু করতে হবে। এরপরে এখানে সিস্টেম অপশনে যাবার পরে ল্যাঙ্গুয়েজ এন্ড ইনপুট সেকশনে যেতে হবে। সেখানে আপনি অ্যাপ ল্যাংগুয়েজ নামে একটি অপশন দেখতে পারবেন যেখানে গিয়ে আপনি আপনার অ্যাপের ভাষা পরিবর্তন করতে সক্ষম হবেন। তবে এই অ্যাপ ল্যাঙ্গুয়েজ অপশনটি আপনার ফোনে তখনই আসবে যখন আপনি আপনার ফোনে একাধিক ভাষা সংযুক্ত করবেন। 

কুইক সেটিংস কাস্টমাইজ করা

কুইক সেটিংস খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি জায়গা কেননা এখান থেকে খুব প্রয়োজনীয় সেটিংস যেমন ওয়াইফাই, ব্লুটুথ, ব্যাটারি সেভার এবং অন্যান্য সেটিংস খুব সহজেই এক্সেস করা যায়। অ্যান্ড্রয়েড আপনাকে এই কুইক সেটিংস পেজ নিজের ইচ্ছামতো সাজানোর সুযোগ প্রদান করে থাকে। যার ফলে আপনার যেই সেটিংটি সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন হয় আপনি সেই অনুযায়ী এটি সাজিয়ে নিতে পারবেন। এজন্য আপনাকে আপনার স্ক্রিনের উপর থেকে সোয়াইপ ডাউন করে কুইক সেটিংস পেজে গিয়ে এডিট বাটনে ট্যাপ করতে হবে। এরপরে আপনি যেকোন টাইলস হোল্ড এবং ড্র‍্যাগ করে নিজের ইচ্ছা মত সাজিয়ে নিতে পারবেন। 

নোটিফিকেশন হিস্টোরি চালু করা

আমরা অনেক সময় আমাদের নোটিফিকেশন ভুলবশত ক্লিয়ার করে ফেলি। তবে অ্যান্ড্রয়েডে একটি বিল্ট নোটিফিকেশন হিস্টোরি ফিচার রয়েছে যাতে আপনার ফোনে আসা সকল নোটিফিকেশন হিস্টোরি সেভ হয়ে থাকে। এই ফিচারটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ আপডেট আসার পরে রিলিজ হয়েছে। তাই আপনি যদি কোন আপডেটেড অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করে থাকেন তাহলে আপনি এই ফিচার সহজেই গ্রহণ করতে পারবেন। 

আপনার স্মার্টফোনে নোটিফিকেশন হিস্টোরি চালু করার জন্য প্রথমে সেটিংস অ্যাপে প্রবেশ করতে হবে। সেখান থেকে নোটিফিকেশন অপশনে গিয়ে নোটিফিকেশন হিস্টোরি সেকশনে যেতে হবে। এখানে আপনি ইউজ নোটিফিকেশন হিস্টোরি এই অপশন টি টার্ন অন করে দিলেই আপনার সকল নোটিফিকেশনের হিস্টরি সেভ হয়ে যাবে। এবার আপনি যদি দুর্ঘটনাবশত কোন নোটিফিকেশন ক্লিয়ার করে ফেলেন তাহলে হিস্টোরি বাটনে ক্লিক করে আপনার নোটিফিকেশন দেখে নিতে পারেন। 

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

রেডমি নোট ১২ প্রো স্পিড এডিশন

ফাইন্ড মাই ডিভাইস চালু করা 

আইওএসে যেমন ফাইন্ড মাই ফিচার ব্যবহার করে হারানো আইফোন খুঁজে পাওয়া যায় ঠিক তেমনি অ্যান্ড্রয়েডেও এরকম একটি ফাইন্ড মাই ডিভাইস ফিচার রয়েছে। এই ফিচারের মাধ্যমেও আপনি আপনার হারিয়ে যাওয়া অ্যান্ড্রয়েড ফোন খুব সহজেই খুঁজে পেতে পারেন। আপনার হারিয়ে যাওয়া ডিভাইসটি খুজে পেতে সাহায্য করার পাশাপাশি এই ফিচারের মাধ্যমে আপনি আপনার ডিভাইস সাইলেন্ট থাকা অবস্থাতেও রিং করতে পারবেন। এই ফিচার ব্যবহার করে আপনি আপনার ঘরে যদি কোন স্মার্টফোন মিসপ্লেস হয়ে যায় সেটি বুঝতে পারবেন। 👉 হারানো এন্ড্রয়েড ফোন খুঁজে পাওয়ার উপায়

এ সকল সুবিধা ছাড়াও আপনি ফাইন্ড মাই ডিভাইস ফিচার ব্যবহার করে আপনার ডিভাইস লক, সকল একাউন্ট থেকে সাইন আউট এবং আপনার ডিভাইসের সকল ডাটা ডিলিট করতে পারবেন। এতে করে আপনার স্মার্টফোন যদি চুরি হয়ে যায় তাহলে আপনার গুরুত্বপূর্ণ ডাটা যাতে কোনো খারাপ হাতে না পড়তে পারে সে ব্যাপারে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবেন। এই ফিচার চালু করার জন্য প্রথমে আপনার সেটিংস অ্যাপ চালু করুন। এরপরে এখান থেকে সিকিউরিটি সেকশনে গিয়ে ফাইন্ড মাই ডিভাইস অপশনে প্রবেশ করুন। সেখানে আপনি ইউজ ফাইন্ড মাই ডিভাইস অপশন চালু করে দিলে এই ফিচারের সুবিধা গ্রহন করতে পারবেন। 

আপনার ডিভাইস যদি হারিয়ে যায় তাহলে যেকোনো ওয়েব ব্রাউজারে ফাইন্ড মাই ডিভাইস ওয়েবসাইট চালু করুন। সেখানে আপনার গুগল একাউন্টের মাধ্যমে লগ ইন করতে হবে। এই পেজে আপনি আপনার ফোন রিং দেওয়া, সকল ডাটা মুছে ফেলা এবং আপনার ডিভাইসকে নিরাপদে রাখতে পারেন। 👉 সকল সিমের প্রয়োজনীয় কোড জেনে নিন

আমাদের আজকের এই আর্টিকেলে আমরা আপনাদের জন্য অ্যান্ড্রয়েডের কিছু প্রয়োজনীয় টিপস এন্ড ট্রিক শেয়ার করেছি। এন্ড্রয়েডে এমন আরো অনেক ফিচার রয়েছে যেগুলো আপনার অ্যান্ড্রয়েড চালানোর অভিজ্ঞতা আরও বেশি সুন্দর করে তুলবে। অ্যান্ড্রয়েড এর প্রয়োজনীয় টিপস এবং ট্রিকস সম্পর্কিত আমাদের আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাদের কাছে কেমন লেগেছে তা আমাদের কমেন্টের মাধ্যমে জানিয়ে দিন!

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,585 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *