ভুয়া ডেটিংয়ের ফাঁদে ফেলে ১১ লাখ ডলার আয় এবং অতঃপর কারাগারে!

online-scamযুক্তরাষ্ট্রের ৬৩ বছর বয়স্কা এক বৃদ্ধা  কারেন ভ্যাসিউর  এবং তার ৪৩ বছর বয়সী মেয়ে ট্রেসি দুজনে মিলে অনলাইনে ভুয়া ডেটিংয়ের লোভ দেখিয়ে ৪১ টি দেশের ৩৭৪ জনকে প্রতারণার ফাঁদে ফেলে প্রায় ১১ লাখ মার্কিন ডলার হাতিয়ে নিয়েছেন। ইন্টারনেটে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগের সাইটের মাধ্যমে এসব ‘বন্ধু’ জোগাড় করতেন তারা।

ঐ মা-মেয়ে ভার্চুয়াল জগতে নিজেদেরকে মার্কিন সমরিক বাহিনীর প্রতিনিধি হিসেবে পরিচয় দিয়ে প্রেমিক খুঁজে বেড়াতেন আর টাকা নেয়ার সময় নিজেদেরকে সেনাবাহিনীর এজেন্টরূপে উপস্থাপন করতেন।

পুলিশ বলেছে, “তারা শুধু আইনই ভঙ্গ করেনি, বরং বিশ্বজুড়ে অনেকের হৃদয়ও ভেঙেছে”

তাই বলে পার পেয়ে যাননি ট্রেসি ও তার মা। ২০১২ সালেই অনলাইন প্রতারণার অভিযোগে গ্রেফতার হন এই দুই ‘বিশ্বপ্রেমীকা’; আর শেষ পর্যন্ত অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় সম্প্রতি কলোরাডোর একটি আদালত মেয়েকে ১৫ ও মাকে ১২ বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন।

উক্ত দুই মহিলা বানিয়ে বানিয়ে এমন সব মর্মস্পর্শী গল্প বলতেন, যা শুনে তাদের “শিকার” পুরুষেরা সহমর্মী হয়ে উঠতেন। এরপর এক পর্যায়ে তাদের সাথে দেখা করার কথা বলে বিভিন্ন খরচের ফর্দ ধরিয়ে দিয়ে অনলাইনে টাকা নিয়ে উধাও হয়ে যেতেন। এভাবে প্রতারণা করে একবার ৫৯ হাজার ডলারও সংগ্রহ করেছিলেন তারা।

এই অনলাইন ডেটিং ফ্রড চক্র বিশ্বের বিভিন্ন দেশে নেটওয়ার্ক বিস্তার করে আছে। যুক্তরাজ্য, ইকুয়েডর, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ভারত, নাইজেরিয়াতে এ দলের সদস্যরা এখনও সক্রিয়।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,615 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.