যুক্তরাষ্ট্রে গুগলকে অতিক্রম করল ইয়াহু!

yahoo ceo marissa mayerজুলাই মাসে যুক্তরাষ্ট্রে ওয়েব ট্র্যাফিকের দিক থেকে প্রথম স্থানে ছিল ইয়াহু। ইউনিক ভিজিটর সংখ্যার ভিত্তিতে পরিচালিত এই জরিপে মে ২০১১ সালের পর এবারই প্রথম গুগলকে অতিক্রম করল সংগ্রামরত এই ইন্টারনেট প্রতিষ্ঠান। ওয়েব রিসার্স ফার্ম কমস্কোরের সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা গেছে।

তবে এই পরিসংখ্যানে নিকট অতীতে ইয়াহুর ক্রয়কৃত বিভিন্ন কোম্পানি যেমন টাম্বলার নেটওয়ার্কের ট্র্যাফিক হিসেবে আনা হয়নি। টাম্বলার প্ল্যাটফর্মে প্রায় ১৩৩ মিলিয়ন ব্লগ রয়েছে। অবশ্য, ইয়াহুর সমসাময়িক অধিগ্রহণকৃত সেবাগুলোর নিজস্ব ট্র্যাফিকও এই সময়ে খুব বেশি ছিলনা।

অর্থাৎ, মারিসা মেয়ারের নেতৃত্বাধীন ওয়েব কোম্পানিটি তার বিদ্যমান সার্ভিসগুলোর ব্যবহারকারী বৃদ্ধিতে সক্ষম হয়েছে। তবে ঠিক কোন কোন সাইটে বেশি সাফল্য এসেছে তা জানা যায়নি। ইয়াহুর জনপ্রিয় সেবাগুলোর মধ্যে ফ্লিকার, ইয়াহু নিউজ, ইয়াহু ফিনান্স এবং ইয়াহু অ্যানসার উল্লেখযোগ্য। চলতি বছর মে মাসে ফটো শেয়ারিং সাইট ফ্লিকারে নতুন ডিজাইন সূচনা করা হয় এবং ফিচারেও উন্নয়ন আসে। তবে ফ্লিকারই ইয়াহুর মূল অস্ত্র ছিল কিনা সেটি নিশ্চিত নয়।

কমস্কোরের ঐ রিপোর্ট থেকে জানা যায়, ইয়াহু সাইটগুলো গুগল সাইটের চেয়ে ২ শতাংশ বেশি ট্র্যাফিক পেয়েছে। এর মধ্যে গুগলের ব্লগার এবং পিকাসাও অন্তর্ভুক্ত। এই জরিপমতে জুলাই ২০১৩’তে যুক্তরাষ্ট্রে তৃতীয় অবস্থানে ছিল মাইক্রোসফট, চতুর্থ হয়েছে ফেসবুক, পঞ্চম এওএল এবং ষষ্ঠ অ্যামাজন। অ্যাপল পেয়েছে  ১১ তম স্থান।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,398 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.