মোবাইল অ্যাপে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত ডিজিটাল লোন

বাংলাদেশ ব্যাংক চালু করেছে নতুন ডিজিটাল ক্ষুদ্রঋণ ব্যবস্থা। এর আওতায় সর্বনিম্ন ৫০০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ৫০,০০০ টাকা পর্যন্ত ঋণ দেওয়া হবে। এই লোন ব্যবস্থার নাম হচ্ছে ডিজিটাল ক্ষুদ্র ঋণ। এর উৎস বাংলাদেশ ব্যাংকের নিজস্ব ১০০ কোটি টাকার তহবিল। এই ঋণের মেয়াদ হবে সর্বোচ্চ ৬ মাস। 

ডিজিটাল ক্ষুদ্র ঋণ দেওয়া হবে ডিজিটাল পদ্ধতিতে ইন্টারনেট ব্যাংকিং, মোবাইল ব্যাংকিং বা মোবাইল আর্থিক সেবার মাধ্যমে। অর্থাৎ, বিকাশ, নগদ প্রভৃতি সেবার মাধ্যমে এই ঋণ বিতরণ করা হবে। ইন্টারনেট ব্যাংকিং সেবার মোবাইল অ্যাপের এবং ই-ওয়ালেটের মাধ্যমেও এই ঋণ দেয়া হবে। দেশের তফসিলি ব্যাংকগুলো এই ঋণ বিতরণ করবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ১০০ কোটি টাকার তহবিল থেকে প্রথম পর্যায়ে ৫০ কোটি টাকা সরবরাহ করা হবে। বিভিন্ন তফসিলি ব্যাংক ডিজিটাল উপায়ে এই অর্থ ঋণ আকারে বিতরণ করবে। ঋণ বিষয়ক যেসব ঝুঁকি রয়েছে সেগুলো সংশ্লিষ্ট বিতরণকারী ব্যাংক বহন করবে। অর্থায়নকারী ব্যাংক এ স্কিমের আওতায় বিতরণকৃত ঋণের সদ্ব্যবহার নিশ্চিত করবে।

প্রথম পর্যায়ে বিতরণকৃত ৫০ কোটি টাকা ঋণের সুষ্ঠু ব্যবহার নিশ্চিত হলে বাংলাদেশ ব্যাংক দ্বিতীয় পর্যায়ে আরও ৫০ কোটি টাকার পুনঃঅর্থায়ন সুবিধা দিবে। এই তহবিলের মেয়াদ ৩ বছর, যা আবর্তনযোগ্য। চাহিদা বিবেচনায় ভবিষ্যতে এই অর্থের পরিমাণ বৃদ্ধি পেতে পারে।

যেসব গ্রাহক এই ডিজিটাল ক্ষুদ্র ঋণ নিবেন তারা বিতরণকারী ব্যাংকে এবং/অথবা সংশ্লিষ্ট ই-ওয়ালেটে একাউন্ট খুলবেন। বিতরণকারী ব্যাংকগুলো বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছ থেকে ১% সুদে তহবিল নিতে পারবে। সেই তহবিল সর্বোচ্চ ৯% সুদে গ্রাহক পর্যায়ে ডিজিটাল লোন আকারে বিতরণ করবে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক। উক্ত তফসিলি ব্যাংক নিজেই আবার ঋণ দেয়া টাকা ফেরত আদায় করবে। 

এই ঋণ ব্যাংকগুলো থেকে মোবাইল আর্থিক সেবার মাধ্যমেও প্রদান করা যাবে। যেমন, কোনো ব্যাংক চাইলে বিকাশের মাধ্যমে এই ঋণ বিতরণ করতে পারবে। আবার ইন্টারনেট ব্যাংকিং সেবা দ্বারা ই-ওয়ালেট বা মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাপের মাধ্যমেও এই ঋণ বিতরণ করা যাবে। 

বাংলাদেশ ব্যাংকের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, এই ঋণের প্রসেসিং থেকে শুরু করে ঋণ আদায় পর্যন্ত সকল কাজ ডিজিটাল পদ্ধতিতে সম্পন্ন হবে। ঐ সার্কুলারে “ডিজিটাল ক্ষুদ্র ঋণ” এর সংজ্ঞায় বলা হয়েছে, “ডিজিটাল মাধ্যম (ইন্টারনেট ব্যাংকিং, মোবাইল অ্যাপ, মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস, ই-ওয়ালেট ইত্যাদি) ব্যবহার করে তফসিলি ব্যাংক হতে ক্ষুদ্র ঋণ প্রদান।” ইসলামি ব্যাংকগুলোও শরিয়াহ নীতিমালা মেনে সে মতে এই ব্যবস্থা থেকে অর্থায়ন সুবিধা দিতে পারবে।

মোবাইল অ্যাপে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত ডিজিটাল লোন

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

বর্তমানে সিটি ব্যাংক বিকাশের মাধ্যমে গ্রাহক পর্যায়ে সর্বোচ্চ ২০ হাজার টাকা লোন দিচ্ছে। বিকাশ লোন এর মেয়াদ ৩ মাস। এছাড়া ডাক বিভাগের মোবাইল ভিত্তিক আর্থিক সেবা নগদ ডিজিটাল লোন সেবা চালু করতে আগ্রহী।

নতুন এই ডিজিটাল ক্ষুদ্র ঋণ নিয়ে আপনার মতামত কী? আপনি কি এটা নিতে আগ্রহী? কমেন্টে জানান!

👉 ভিডিওঃ মোবাইল ব্যাংকিংয়ে নিরাপদ থাকার উপায়

👉 আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করে সাথেই থাকুন। এখানে ক্লিক করে সাবস্ক্রিপশন কনফার্ম করুন!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,269 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

5 comments

  1. Md Kawser Uddin Reply

    This is a very good initiative, it will be very good for low quality family. Yes I want to take this small loan.

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.