জুমশেপার ইফতার ২০১৯ – ঈদের আগেই খুশির উপলক্ষ্য!

বারো মাসে তেরো উৎসবের দেশ বাংলাদেশ। আর জুমশেপারে আমাদের বছরে কমপক্ষে পনেরো বা তারও বেশি উৎসব থাকে। এদের মধ্যে সবচেয়ে কাঙ্ক্ষিত উৎসবগুলো হচ্ছে দুই ঈদ, বার্ষিক ট্যুর, বাংলা-ইংরেজি নতুন বছর, বসন্ত বরণ, এবং ব্যুফে ইফতার। এছাড়া কোম্পানি এবং টিম মেম্বারদের জন্মদিন, মেজর প্রোডাক্ট রিলিজ, মুভি উইথ ডিনার, ব্ল্যাকফ্রাইডে সেল এগুলো তো থাকেই।

সাথে আছে কোনো কারণ ছাড়া সারপ্রাইজ পার্টি। কোনো কোনো সময় আমরা বিদ্যুৎ বিভ্রাটও আউটডোর লান্স এবং গেমস দিয়ে উদযাপন করি। হুটহাট পিজ্জা/বার্গার ট্রিট না হয় বাদ-ই দিলাম!

এই সবকিছুর মধ্যে বার্ষিক ইফতার পার্টি অন্যরকম এক আমেজ নিয়ে আসে। কারণ এর সাথে থাকে ঈদের ছুটি এবং বিশেষ গিফটসমূহের ঘোষণা।

গত বছর জুমশেপার ইফতার পার্টি ছিল ধানমন্ডির গার্লিক এন্ড জিঞ্জার রেস্টুরেন্টে। এ বছরের আয়োজন হয় গুলশান ২ এর লং বিচ স্যুটস এ, ১৬ মে ২০১৯। পুরো টিমের জন্য ব্যুফে ইফতারের ব্যবস্থা ছিল এবারও।

লং বিচ স্যুটস এর জমকালো পরিবেশ ইফতারের আগেই সবাইকে সতেজ করে দেয়। সেলফি ও গ্রুপে ছবি তোলার এক রকম প্রতিযোগিতায় মেতে ওঠে টিম মেম্বাররা।

কোনো কোনো রেস্টুরেন্টে ইফতারের পর ডিনার সার্ভ করা হয়। উদাহরণ হিসেবে গুলশানের ব্যাটন রুজ এবং ধানমন্ডির গার্লিক এন্ড জিঞ্জারের কথা বলা যায়, যেখানে এর আগে দুটো ইফতার পার্টি করেছি জুমশেপার থেকে। লং বিচ এ এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম। তারা পুরো ডিশ ইফতারের আগেই দিয়ে দিয়েছিল।

এখানে কমন আইটেমের থেকে কিছুটা আনকমন আইটেম প্রাধান্য পেয়েছে।

সালাদ ও ইফতারি আইটেম দিয়ে আয়োজনের শুরু।

ইফতার এর অপেক্ষা।

এই হচ্ছে ফুল মেন্যুর একাংশ।

চার-গ্রিল্ড প্রন উইথ ক্রিমি চীজ সালাদ। দেখে মনে হয় স্নো পড়েছে।

এই হল বিফ টমেটো কাসা এবং পাসতা উইথ ক্রিমি মাশরুম সস।

ডেজার্ট আইটেমস।

আরও অনেক কিছু ছিল, ছবি তোলা হয়নি। পরের বার আশা রাখছি সবাই মিলে আরো বেশি ছবি তুলতে পারব 😊

এখানে একটা ভিডিও এমবেড করে দিলাম।

 

এটা ছিল এবারের জুমশেপার ইফতার আয়োজনের একটা স্নিক-পিক। এই ছবিগুলো আমার টিম-মেম্বারদের তোলা। আজ এই পর্যন্তই। কথা হবে পরের পোস্টে।

জুমশেপার টিমে যোগ দিতে চান? জব সার্কুলারের জন্য চোখ রাখুন এই পেজে

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 2,878 other subscribers

Comments