ওয়েবএম প্রজেক্ট নিয়ে দ্বন্দ্বের মুখে নকিয়া এবং গুগল

webmঅনলাইন মিডিয়া প্রোডাকশন এবং প্লেব্যাক প্রযুক্তি ভিত্তিক ওয়েবএম প্রজেক্ট নিয়ে নকিয়া এবং গুগলের মধ্যে মতানৈক্য সৃষ্টি হয়েছে। গুগলের আর্থিক সহায়তায় পরিচালিত ওয়েবএম প্রকল্পের উদ্দেশ্য হচ্ছে একটি রয়্যালটি ফ্রি হাই কোয়ালিটি ভিডিও কমপ্রেশন প্রযুক্তি সূচনা করা। ওয়েবএমের মূল প্রকৌশলে সার্চ কোম্পানিটি তাদের ভিপি৮ কোডেক ব্যবহার করতে চাচ্ছে। কিন্তু গুগলের এই পরিকল্পনার বিরুদ্ধে আপত্তি তুলেছে নকিয়া।

ফিনিশ মোবাইল নির্মাতা বলছে সার্চ সেবাদাতার ভিপি৮ প্রযুক্তিতে ব্যবহৃত প্রধান প্রধান অংশের পেটেন্ট মালিকানা নকিয়ার। প্রতিষ্ঠানটির দাবি অনুযায়ী গুগলের সফটওয়্যার কার্যতঃ আরও অধিক উন্মুক্ত বিকল্পকে প্রতিস্থাপিত করতে চাচ্ছে।

বিভিন্ন টিভি ষ্টেশন এবং অন্যান্য মিডিয়া ক্ষেত্রে ওয়েবএম প্রজেক্ট সদৃশ ব্যয়বহুল টুল ব্যবহৃত হচ্ছে। কিন্তু স্বাধীন ওয়েবএম প্রযুক্তি বিনামূল্যেই ওয়েবসাইট, ব্রাউজার এবং স্মার্টফোনে মিডিয়া সঙ্ক্রান্ত সমাধান প্রদান করবে। এটি এইচটিএমএল স্ট্যান্ডার্ডেরও অংশ হবে।

ইন্টারনেট ইঞ্জিনিয়ারিং টাস্কফোর্সের নিকট প্রেরণকৃত এক স্টেটমেন্টে নকিয়া দাবি করেছে, গুগল-ভিপি৮ যেসব উদ্ভাবনের ওপর নির্ভরশীল, সেগুলোর মালিকানা ফিনিশ ফোন নির্মাতা কোম্পানিটির। এবং এতে অন্তর্ভুক্ত ৬৪টি পেটেন্ট ও ২২টি অমীমাংসিত পেটেন্টের কোনটিরই লাইসেন্স দিতে তারা প্রস্তুত নয়।

ফস পেটেন্ট ব্লগের নিকট একজন নকিয়া প্রতিনিধি বলেছেন, প্রতিষ্ঠানটি বিশ্বাস করে গুগল তাদের ভিপি৮কে এর চেয়ে উত্তম বিকল্পের ওপর স্থান দিতে চাচ্ছে এবং এজন্যই লুমিয়া ম্যানুফ্যাকচারার ঐ “অস্বাভাবিক” পদক্ষেপ নিয়েছে।

এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত গুগলের পক্ষ থেকে কোন প্রতিক্রিয়া জানা যায়নি।

যাইহোক, গুগল ক্রমেই বিশ্বের বড় বড় প্রযুক্তি ক্ষেত্রে নিজেদের সরব পদচারনা রাখতে চাইছে। সার্চ ইঞ্জিন মার্কেটে এদের আধিপত্য এখন সবার জানা। মোবাইল কম্পিউটিংয়ে এন্ড্রয়েড নিয়ে এবং ওয়েব ভিডিও শেয়ারিংয়ে ইউটিউবের মাধ্যমে এরা প্রায় অপ্রতিরোধ্য হিসেবে গড়ে উঠছে। ইমেইল, ক্লাউড, বিজ্ঞাপন, ম্যাপ প্রভৃতি সেবায়ও গুগলের জয়জয়কার। এখন দেখা যাক, ওয়েবএম প্রজেক্টে নিজেদের মত কতটা প্রয়োগ করতে সমর্থ হয় এই মার্কিন কোম্পানি।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,586 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *