উইন্ডোজ ৮ ফাঁসের অভিযোগে গ্রেফতার হলেন প্রাক্তন মাইক্রোসফট কর্মী

windows 8 mtro....1jpgউইন্ডোজ ৭ ও উইন্ডোজ ৮ এর প্রাথমিক ডেভলপমেন্ট পর্যায়ের আইএসও ফাইল ফাঁস করার অভিযোগে মাইক্রোসফটের একজন প্রাক্তন কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রেডমন্ডে নিজের কর্মদক্ষতা নিয়ে খুব একটা সুবিধাজনক অবস্থানে যেতে না পারা অ্যালেক্স কিবক্যালো নামের ঐ ব্যক্তি মাইক্রোসফটের আভ্যন্তরীণ তথ্য এবং উইন্ডোজ ৮ এর বেটা ভার্সন সফটওয়্যার লিক করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এসব সফটওয়্যার ও তথ্য একজন ফ্রেন্স ব্লগারের নিকট প্রেরণ করেছেন মিঃ অ্যালেক্স। ঐ ব্লগার অনলাইনে একটি নিকনেম ব্যবহার করেন যাতে তার আসল পরিচয় গোপন থেকে যায়।

মাইক্রোসফটের উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম ডেভলপমেন্ট স্টেজে থাকাকালীন এর বিভিন্ন বেটা কপি ফাঁস হওয়ার ঘটনা বেশ পুরাতন। তবে অভিযুক্ত ঐ ব্যক্তি শুধুমাত্র উইন্ডোজ ফাঁস করেই ক্ষান্ত হননি, তিনি এর ‘এক্টিভেশন সার্ভার সফটওয়্যার কিট’ টুলও হাতিয়ে নিয়েছেন যা পাইরেসি ঠেকাতে ব্যবহৃত হয়ে থাকে। এরপর সেই বেনামী ফ্রেন্স ব্লগার এটি অনলাইনে শেয়ার করেন। এই সফটওয়্যারটির মাধ্যমে এমএস অফিস ও উইন্ডোজের এক্টিভেশন সঙ্ক্রান্ত নিরাপত্তা এড়িয়ে যাওয়া সম্ভব।

শেষ পর্যন্ত উল্লিখিত ফ্রেন্স ব্লগারের এক ইমেইলের সূত্র ধরে অ্যালেক্সকে চিহ্নিত করেছে মাইক্রোসফট। ঐ ব্লগার মাইক্রোসফটের আরেকজন কর্মীর নিকট প্রেরিত এক ইমেইলে এমন কিছু লিখেছিলেন যা রেডমন্ডকে এই তথ্য পেতে সহায়তা করেছে। এই পুরো তদন্তটি গত এক বছর যাবত চলছিল।

প্রাথমিক সুত্র পাওয়ার পরে ঐ বেনামী ব্লগারের ব্যক্তিগত হটমেইল মেইলবক্স স্ক্যান করে সেখান থেকে মিঃ অ্যালেক্সকে ট্রেস করেছে মাইক্রোসফট। এভাবে মেইলবক্স এক্সেস করার ঘটনা প্রকাশ ও সেটিকে আইনী বলে দাবী করেছে উইন্ডোজ নির্মাতা কোম্পানিটি।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,421 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.