শাওমি রেডমি নোট ১১ এলো বাংলাদেশে – আকর্ষণীয় দামে দারুণ সুবিধা

অবশেষে বাংলাদেশের বাজারে চলে এলো রেডমি নোট ১১ সিরিজের প্রথম ফোন, রেডমি নোট ১১। আজকে একটি লাইভস্ট্রিম এর মাধ্যমে রেডমি নোট ১১ ফোনটি দেশের বাজারে নিয়ে আসে শাওমি। এটি হচ্ছে বাংলাদেশে তৈরি রেডমি নোট সিরিজের প্রথম স্মার্টফোন। চলুন জেনে নেওয়া যাক রেডমি নোট ১১ এর দাম ও স্পেসিফিকেশন সম্পর্কে বিস্তারিত।

ডিজাইন ও ডিসপ্লে

গতবছরের রেডমি নোট ১০ সিরিজে আমরা কিছুটা নতুনত্ব দেখেছিলাম। তবে রেডমি নোট ১১ ফোনটি যেহেতু বাজেট ফোন, তাই এর দাম বিবেচনায় বিল্ড ও ডিজাইন মানানসই বলা চলে। ফোনের সামনে পাঞ্চ-হোল ডিসপ্লেতে রীতিমত শোভা পেয়েছে সেলফি ক্যামেরা। মাত্র ১৭৯গ্রাম ওজনের এই ফোনটির স্ক্রিনে কোনো ধরণের কার্পণ্য চোখে পড়বেনা। ৯০হার্জ রিফ্রেশ রেট এর ৬.৪৩ইঞ্চির অ্যামোলেড স্ক্রিন, ফোনটির দাম বিবেচনায় অসাধারণ বলা চলে।

এই দামে মেইনস্ট্রিম একটি ব্র্যান্ড অ্যামোলেড ডিসপ্লে আনার মাধ্যমে প্রতিযোগিতা আরো বাড়িয়ে দিলো অন্যান্য ফোন ব্র্যান্ডগুলোর জন্য। তবে শাওমির এমন পদক্ষেপ এর জন্য দিনশেষে লাভবান হবেন সাধারণ ক্রেতাগণ। আবার ৯০হার্জ রিফ্রেশ রেট, তাও নোট সিরিজের বেইস ভ্যারিয়েন্টে বেশ অসাধারণ একটি সংযোজন বলতে হবে।

পারফরম্যান্স

শাওমি রেডমি নোট ১১ ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে কোয়ালকম এর স্ন্যাপড্রাগন ৬৮০ প্রসেসর। এই প্রসেসর আমরা সম্প্রতি অপো এ৭৬ ফোনটিতে দেখতে পেয়েছি। অপো এ৭৬ এর দাম ও ফিচার ও প্রায় শাওমি নোট ১১ এর কাছাকাছি। তবে অপো এ৭৬ ফোনে এলসিডি স্ক্রিন। আবার শাওমির রেডমি নোট ১১ দামের দিক দিয়েও ক্রেতার জন্য দারুণ অপশন রাখছে। দেশের বাজারে প্রতিটি ব্র্যান্ড বেশ ভাল প্রতিযোগিতায় নেমেছে বলা যায়।

রেডমি নোট ১১ পাওয়া যাবে ৪/৬৪জিবি, ৪/১২৮জিবি ও ৬/১২৮জিবি ভ্যারিয়েন্টে। এছাড়া মাইক্রো এসডি কার্ড ব্যবহার করে ফোনটির স্টোরেজ বাড়িয়ে নেওয়া সুযোগ রয়েছে।

যারা ভাবছেন কেমন হতে পারে এই স্ন্যাপড্রাগন ৬৮০ প্রসেসর, তাদের সুবিধার্থে বলে রাখি এই প্রসেসর এর পারফরম্যান্স মিডিয়াটেক হেলিও জি৮৮ এর মতো। তবে অধিক সময় ব্যবহারের ক্ষেত্রে এই প্রসেসর ভালো সার্ভিস দিতে পারবে বলে ধারণা করা যায়।

রেডমি নোট ১১ এ কোনো ধরনের ৫জি সাপোর্ট থাকছেনা। হয়ত নোট ১১ প্রো সিরিজে আমরা ৫জি সুবিধা দেখতে পাবো। ফোনটিতে সাইড মাউন্টেড ফিংগারপ্রিন্ট রয়েছে।

ক্যামেরা

রেডমি নোট ১১ ফোনটির ব্যাকে রয়েছে কোয়াড ক্যামেরা সেটাপ। এর চারটি ক্যামেরার আসলে কার্যকরী দুইটি ক্যামেরা, আর বাকি দুইটি হলো ২মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো ক্যামেরা ও ডেপথ সেন্সর। ফোনটির মূল ক্যামেরায় ৫০মেগাপিক্সেলের সেন্সর। পাশাপাশি একটি ৮মেগাপিক্সেলের আলট্রাওয়াইড ক্যামেরা ও রয়েছে।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

ফোনটির ফ্রন্টে রয়েছে ১৩মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। রেডমি নোট ১১ এর ক্যামেরা ফিচার কিছুটা দুর্বল বলা চলে। ফোনটিতে কোনো ক্যামেরা দ্বারাই ১০৮০পি ৩০এফপিএস এর বেশি কোয়ালিটিতে ভিডিও রেকর্ড করা যায়না। অবশ্য দাম বিবেচনায় এই ক্যামেরাকে চলসনই বলা চলে।

ফোনটির নিকট প্রতিদ্বন্দ্বী অপো এ৭৬ ও অবশ্য এর থেকে বেশি দাম নিয়েও ৪কে ভিডিও রেকর্ডের ফিচার দিচ্ছেনা।

👉 সেরা ক্যামেরা ফোন ২০২২

ব্যাটারি

শাওমি ফোনসমূহ ব্যাটারি ডিপার্টমেন্টে বরাবরই বাজিমাত করে এসেছে। রেডমি নোট ১১ এর ক্ষেত্রেও এর কোনো ব্যতিক্রম থাকছেনা।

রেডমি নোট ১১ ফোনটিতে ৫০০০মিলিএম্প বিশাল ব্যাটারি রয়েছে, যা চার্জ করতে ফোনের বক্সে পেয়ে যাবেন ৩৩ওয়াট এর ফাস্ট চার্জার। যেকোনো সাধারণ ব্যবহারকারী এই ফোন থেকে অন্তত ১০ঘন্টা একটানা ব্যাকাপ পাবেন বলে ধরে নেওয়া যায়।

আবার মাত্র ৩০মিনিটের মধ্যে ফোনটি অর্ধেকের বেশি চার্জ হয়ে যায়। ব্যাটারি যদি হয় আপনার ফোন কেনার অন্যতম কারণ, তবে রেডমি নোট ১১ আপনাকে হতাশ করবেনা।

শাওমি রেডমি নোট ১১ এলো আকর্ষণীয় দাম ও ফিচার নিয়ে

সফটওয়্যার

অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক নতুন মিইউআই ১৩ এর দেখা মিলবে রেডমি নোট ১১ ফোনটিতে। বরাবরের মত কাস্টমাইজেশনের অসংখ্য ফিচার পেয়ে যাবেন এই কাস্টম অ্যান্ড্রয়েড স্কিনে। তবে ভারি সফটওয়্যার এর পরিবর্তে মিনিমাল ও সাধারণ ইউআই যারা পছন্দ করেন, মিইউআই তাদের কাছে কেমন লাগবে সেটা সময়ই বলে দেবে।

👉 শাওমি MIUI কি? মিইউআই এর সুবিধা কি?

👉 শাওমি MIUI ১৩ এর নতুন ফিচার ও বিস্তারিত জানুন

একনজরে রেডমি নোট ১১ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ  
    • ৬.৪৩ইঞ্চি
    • অ্যামোলেড
    • ৯০হার্জ রিফ্রেশ রেট
  • প্রসেসরঃ কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৮০
  • র‍্যামঃ ৪জিবি / ৬জিবি
  • স্টোরেজঃ ৬৪জিবি / ১২৮জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ
    • ৫০মেগাপিক্সেল মেইন সেস্নর
    • ৮মেগাপিক্সেল আলট্রাওয়াইড ক্যামেরা
    • ২মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা
    • ২মেগাপিক্সেল ডেপথ সেস্নর
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৩মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০মিলিএম্প
  • চার্জিংঃ ৩৩ওয়াট ফাস্ট চার্জিং

রেডমি নোট ১১ এর দাম

রেডমি নোট ১১ এর বেস ভ্যারিয়েন্ট (৪/৬৪) পাওয়া যাবে মাত্র ১৬,৪৯৯টাকায়। গত বছরের রেডমি নোট ১০ এর দাম তুলনা করলে এই ফোনের দাম অনেক কম বলা চলে। ৪জিবি র‍্যাম ও ১২৮জিবি স্টোরেজের রেডমি নোট ১১ এর দাম ১৭,৪৯৯টাকা। সবচেয়ে দামি ভ্যারিয়েন্টে থাকছে ৬জিবি র‍্যাম ও ১২৮জিবি স্টোরেজ, যা পাওয়া যাবে ১৮,৯৯৯টাকায়। ফোনটি কিনতে নিকটস্থ শাওমি শোরুমে যোগাযোগ করুন।

আপনার কাছে কেমন লেগেছে রেডমি নোট ১১ এর স্পেসিফিকেশন ও দাম? রেডমি নোট ১১ ফোনটি সম্পর্কে আপনার মতামত আমাদের জানান কমেন্ট সেকশনে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,066 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

2 comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.