আইফোন ডিজেবল হলে ঠিক করার উপায়

“iPhone is Disabled” মেসেজ দেখানোর মানে হলো আইফোন ডিজেবল হয়ে গেছে আর লক খোলা যাচ্ছে না। একাধিক কারণে আইফোন ডিসেবল হয়ে যেতে পারে। তবে আইফোন ডিসেবল হওয়ার মেসেজ দেখে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। এই বিষয়টি সম্পূর্ণ সমাধানযোগ্য। এই পোস্টে জানবেন আইফোন ডিজেবল কেনো হয় ও আইফোন ডিজেবল হয়ে গেলে করণীয় সম্পর্কে।

আইফোন ডিজেবল কেনো হয়?

পরপর ৬বার ভুল পাসকোড প্রদান করার পর ১মিনিটের জন্য আইফোন ডিসেবল হয়ে যায়। সপ্তমবার ভুল পাসকোড প্রদান করলে আরো ৫মিনিটের জন্য আইফোন লক হয়ে যায়। এরপর অষ্টমবার ভুল করলে আরো ১৫মিনিট ও দশমবার ভুল পাসকোড প্রদানে এক ঘন্টার জন্য ডিভাইস লক হয়ে যেতে পারে।

দশবারের অধিক যদি পাসকোড ভুল করে থাকেন, তবে আইফোন ডিসেবল হয়ে গিয়েছে জানিয়ে একটি মেসেজ পাবেন। “Connect to iTunes” মেসেজের মাধ্যমে আইটিউনসে যুক্ত হতে বলা হবে।

অনেকে পাসকোড প্রদানের সময় পাসকোড দশবার ভুল প্রদান করে ডিভাইসে থাকা সকল তথ্য আপনাআপনি মুছে যাওয়ার অপশন অন করে রাখেন। এই অপশন অন থাকা অবস্থায় ১০বার পাসকোড ভুল প্রদান করার পর ফোনের সকল তথ্য মুছে যায়। এমন অবস্থায় আগে হতে ব্যাকাপ নেওয়া না থাকলে বেশ বিশ্রি অবস্থায় পড়তে পারেন।

আইফোন ডিসেবল হলে করণীয়

আইফোন ডিসেবল হয়ে গেলে এই সমস্যার সমাধান করতে পারেন একাধিক উপায়ে। এই পোস্টে একাধিক রিকভারি মেথড সম্পর্কে আমরা জানবো, যেগুলো ব্যবহার করে ডিসেবল হওয়া আইফোন এর লক খোলা যাবে। আগে হতে আইক্লাউড বা আইটিউনসে যদি আইফোন ব্যাকাপ নেওয়া থাকে, তাহলে এই প্রদত্ত আইফোন আনলকের নিয়মাবলী বেশ সহজ হবে। 

রিকভারি

অ্যাপল এর পরামর্শকৃত রিকভারি মেথড অনুসরণ করে “iPhone is disabled” মেসেজ আসা আইফোন ঠিক করতে পারবেন। ডিসেবল হওয়া আইফোন এর লক খোলার নিয়ম সম্পর্কে জানি চলুন।

প্রথমে কম্পিউটার হতে আইটিউনস সফটওয়্যারে প্রবেশ করুন। (আপনার কম্পিউটার যদি নতুন কোনো ম্যাক হয় তাহলে ফাইন্ডার এপ আইটিউন্স হিসেবে কাজ করবে।) তবে ডিভাইস কম্পিউটারের সাথে এখনই কানেক্ট করবেন না। এর পরের ধাপ নির্ভর করে আপনার আইফোন এর মডেলের উপর। মূলত এই ধাপে আপনার আইফোন বন্ধ করতে হবে।

আইফোন ৬এস বা তার আগে মুক্তি পাওয়া আইফোন বন্ধ করতে সাইড / টপ বাটন চেপে ধরে রেখে পাওয়ার মেন্যুতে প্রবেশ করুন। এরপর ডিভাইসটি অফ করুন। হোম বাটন হোল্ড করে ধরে রাখা অবস্থায় কম্পিউটারের সাথে আইফোন কানেক্ট করুন। কিছুক্ষণ পর রিকভারি মেন্যু দেখতে পাবেন।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

আইফোন ৭ ও ৭ প্লাস এর ক্ষেত্রে সাইড / টপ বাটন হোল্ড করে ধরে রেখে পাওয়ার মেন্যু আনুন ও ডিভাইস বন্ধ করুন। এরপর ভলিউম ডাউন বাটন প্রেস করে রাখা অবস্থায় কম্পিউটারের সাথে কানেক্ট করুন। রিকভারি মেন্যু না দেখা পর্যন্ত ভলিউম ডাউন বাটন প্রেস করে ধরে রাখুন।

আইফোন ৮ ও এর পরের মডেলগুলোর ক্ষেত্রে পাওয়ার মেন্যুতে প্রবেশ করতে সাইড বাটন ও যেকোনো একটি ভলিউম বাটন প্রেস করে ধরে রাখুন। এরপর স্লাইডার দ্বারা আউফোন বন্ধ করুন। এরপর সাইড বাটন চেপে ধরে রাখা অবস্থায় কম্পিউটারের সাথে আইফোন কানেক্ট করুন। রিকভারি মোড মেন্যু না দেখা পর্যন্ত বাটনটি হোল্ড করে ধরে রাখুন।

এরপর কম্পিউটারের আইটিউনস অ্যাপে আইফোন Restore ও Update এর অপশন দেওয়া হবে। Restore সিলেক্ট করুন, এরপর আইটিউনস থেকে আপনার ডিভাইসের জন্য সফটওয়্যার ডাউনলোড হবে। এই প্রক্রিয়া শেষ হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। রিস্টোর সম্পন্ন হলে ডিভাইস নতুন করে সেটাপ করা যাবে। এমনকি আগের ব্যাকাপও রিস্টোর করা যাবে।

আইটিউনস

আইটিউনস দ্বারা আরো একটি উপায়ে ডিসেবল হওয়া আইফোন রিকভার করা যাবে। তবে এক্ষেত্রে শর্ত হলো আগে হতে কোনো কম্পিউটারে উক্ত আইফোন সিন্ক (Sync) থাকতে হবে। আইটিউনস দ্বারা ডিসেবল হওয়া আইফোন রিকভার করতেঃ

  • কম্পিউটারের সাথে সাধারণভাবে আইফোন কানেক্ট করুন
  • আইটিউনস অ্যাপের Restore বাটনে ক্লিক করুন
  • স্ক্রিনে প্রদর্শিত নির্দেশনা অনুসরণ করে আইফোন রিকভার করুন

👉 কম দামে ৫জি আইফোন আনলো অ্যাপল – আইফোন এসই ২০২২

আইক্লাউড

আইটিউনস ব্যবহার করে ডিসেবল হওয়া আইফোন রিকভার করা আপনার কাছে ঝামেলা মনে হলে আইক্লাউড ব্যবহার করে লক হওয়া আইফোন খুলতে পারবেন। মনে রাখবেন এতে আপনার আইফোনে থাকা সব ডাটা মুছে যাবে। ব্যাকআপ না থাকলে আপনাকে আবার নতুন ভাবে শুরু করতে হবে। যদি আগে আইফোনের ব্যাকাপ রাখা থাকে তাহলে সেটা রিস্টোর করা যাবে। আইক্লাউড ব্যবহার করে ডিসেবল আইফোন ঠিক করতেঃ

  • কম্পিউটারে যেকোনো ব্রাউজার হতে icloud.com/find লিংকে প্রবেশ করুন
  • আপনার অ্যাপল আইডি ও পাসওয়ার্ড প্রদান করে একাউন্টে লগিন করুন
  • স্ক্রিনের টপে থাকা All Devices অপশনে ক্লিক করুন
  • ডিসেবল হওয়া ডিভাইসটি সিলেক্ট করুন
  • এরপর Erase অপশনে ক্লিক করুন 
  • আপনার অ্যাকশন কনফার্ম করতে Confirm Erase সিলেক্ট করুন
  • এরপর আইফোনে আবার আগের অ্যাপল আইডি ও পাসওয়ার্ড লগিন করুন
  • ফোন সেটাপ এর প্রক্রিয়া অনুসরণ করুন, যেখান থেকে আইটিউনস বা আইক্লাউড ব্যবহার করে ডিভাইস রিকভার করা যাবে

উল্লেখিত তিনটি উপায়ের মধ্যে কোনোভাবেই যদি ডিসেবল হওয়া আইফোন ঠিক করা না যায়, তবে অ্যাপল স্টোর বা সার্টিফাইড রিপেয়ার সার্ভিস এর সাহায্য নিতে পারেন। উল্লেখিত স্থানসমূহে একজন অ্যাপল এক্সপার্ট আপনার লক হয়ে যাওয়া আইফোন ঠিক করে দিতে পারেন।

👉 আইফোনের নামের শুরুতে ‘আই’ দ্বারা কী বোঝায়?

আইফোন ডিসেবল হওয়া থেকে বাঁচার উপায়

আইফোন ডিজেবল হলে ঠিক করার উপায়

আইফোন ডিসেবল হয়ে যাওয়া বেশ বিরক্তিকর একটি বিষয়। তবে আইফোন ডিসেবল  হওয়া এড়িয়ে চলতে কিছু নির্দিষ্ট বিষয় মেনে চলতে পারেন।

  • নতুন পাসকোড সেটঃ ৪ বা ৬ডিজিটের একটি নতুন পাসকোড সেট করতে পারেন যা আপনার মনে থাকবে। নতুন পাসকোড সবসময় মনে রাখবেন, চাইলে গোপন কোথাও লিখে রাখতে পারেন। সেটিংস এর Touch / Face ID & Passcode সেকশনে পাসকোড সম্পর্কিত সকল সেটিংস পেয়ে যাবেন
  • টাচ আইডি / ফেসআইডি ব্যবহারঃ অনেকে ফেস আইডি বা টাচ আইডি কে হালকাভাবে নিলেও গুরুত্বপূর্ণ মুহুর্তে এই ফিচার আসলে অনেক কাজে আসে। আপনার ফোনে যেকোনো একটি আনলক মেথড সিলেক্ট করা থাকলে পাসকোড ব্যবহার এর আর প্রয়োজন থাকেনা। তাই একাউন্ট ডিসেবল এর মত সমস্যার কথা চিন্তা করে বায়োমেট্রিক ভেরিফিকেশন চালু রাখা উচিত

আপনার আইফোন কি কখনো ডিসেবল হয়েছে? আমাদের জানান কমেন্ট সেকশনে। এছাড়া আইফোন ডিসেবল হওয়া নিয়ে আপনার সকল ধরনের প্রশ্ন করতে পারেন কমেন্টে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,412 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.