গুগল ফটো ও অ্যাপল ফটোতে ডুপ্লিকেট ছবি খুঁজে ডিলিট করার কৌশল

স্টোরেজের জায়গা নষ্ট করার ক্ষেত্রে ডুপ্লিকেট ছবি কিংবা ভিডিও খুব বেশি সমস্যার সৃষ্টি করে। এছাড়া ডুপ্লিকেট ছবি বা ভিডিও থাকার কারণে কোনো প্রয়োজনীয় ছবি বা ভিডিও খোজার সময় সময় নষ্ট হবার সাথে সাথে খুব বেশি ঝামেলার মধ্যে পড়তে হয়। সৌভাগ্য বশত অ্যাপল ফটোস ও গুগল ফটোস অ্যাপে ডুপ্লিকেট ছবি বা ভিডিও সরানোর জন্য নানা ধরনের উপায় রয়েছে। এর ফলে আপনি খুব সহজেই আপনার ছবি বা ভিডিও এর শুধু মাত্র একটি কপি সংরক্ষণ করে রাখতে পারবেন। 

যদিও কোনো ছবি বা ভিডিও আলাদা আলাদা জায়গা কিংবা আলাদা আলাদা ডিভাইসে ব্যাকআপ করার ক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই ছবি বা ভিডিও ডুপ্লিকেট করতে হবে। কিন্তু আজকের আর্টিকেলে আমরা একই ডিভাইস বা ব্যাকআপ করার ক্ষেত্রেও একই ছবি বা ভিডিও ডুপ্লিকেট হওয়ার সমস্যা নিয়ে আলোচনা করবো। এই ডুপ্লিকেট ছবি বা ভিডিও এর কপি গুলো আপনি চাইলে নিরাপদে ডিলিট করে ফেলতে পারেন।

আমাদের আর্টিকেলে আমরা কোনো ছবির একেবারে সদৃশ ডুপ্লিকেট নিয়ে কথা বলবো। তবে অনেক সময় আমরা ছবি তোলার ক্ষেত্রে একই পরিস্থিতির একাধিক ছবি তুলে থাকি। উক্ত ছবিগুলো ডুপ্লিকেট ছবি হিসেবে গণ্য না হলেও আপনি চাইলে সেগুলো আপনার ডিভাইস থেকে খুঁজে ডিলিট করতে পারবেন। খোঁজার ক্ষেত্রেও আপনাদের খুব বেশি সমস্যায় পড়তে হবে না। কারন সেরকম একই ধরনের ছবি আপনার ছবির লাইব্রেরিতে পাশাপাশি অবস্থায় থাকে।

গুগল ফটোস এ কিভাবে জায়গা ফাঁকা করতে হয়?

গুগল ফটোস আসলে আপনাকে ডুপ্লিকেট ছবি বা ভিডিও আপলোড করতে দেয় না। আপনি যদি এমন কোনো ভিডিও বা ছবি বা কোনো ফাইল সম্বলিত ফোল্ডার আপলোড করতে দেন যেটি আপনার লাইব্রেরিতে আগে থেকেই আছে তাহলে এটি আপলোড হবার মোশন চালালেও বাস্তবিক অর্থে যেগুলো পুনরায় আপলোড করতে বলা হয়েছে সে সকল ছবি বা ভিডিও এটি আপলোড করবে না। 

আপনার ক্লাউডে সব কিছু খুব ভালো ভাবে গুছিয়ে রাখতে গুগল ফটোস সাহায্য করে। আপনি যদি আপনার ছবি বা ভিডিও অরিজিনাল কোয়ালিটিতে গুগল ফটোস এ সংরক্ষণ করে রাখেন তাহলে আপনার সেটি আর লোকাল কম্পিউটারে সংরক্ষণ করে রাখার দরকার নেই। এতে করে ছবি বা ভিডিও এর ডুপ্লিকেট কপি হওয়ার সম্ভাবনা অনেকাংশেই কমে যায়। আপনার যখন পুনরায় ওই ছবি বা ভিডিওগুলোর দরকার পড়বে আপনি চাইলে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। গুগল ফটোস আপনাকে এখন আর কোনো একটি লোকাল হার্ড ড্রাইভ ফোল্ডারের সাথে আপনার ক্লাউড লাইব্রেরি সিংক করার কোনো প্রকার অপশন দেয় না। আপনার যদি ব্যাক আপ কপির দরকার পড়ে তাহলে আপনাকে গুগল ফটোস থেকে ম্যানুয়ালি অথবা গুগল টেক আউট ব্যবহার করতে হবে।

বর্তমানে গুগল ফটোসে অটোমেটিক ডুপ্লিকেট ফটো ডিলিট করার সহজ কোনো ব্যবস্থা নেই। তবে আপনি চাইলে গুগল ফটো লাইব্রেরি ওপেন করে ম্যানুয়ালি ফটোগুলো সিলেক্ট করে সেগুলো ডিলিট করতে পারবেন। এছাড়া আগে থেকে যদি আপনার গুগল ফটোসে অনেকগুলো ডুপ্লিকেট ফটো আপলোড করা থাকে তাহলে গুগলের এআই সেগুলো সনাক্ত করে আপনাকে নোটিফিকেশন দেখাতে পারে। সেক্ষেত্রে আপনি সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে পারবেন।

অ্যাপল ফটোস এ জায়গা ফাকা করার উপায়

আপনি যদি অ্যাপল ফটোস ব্যবহার করে আপনার ছবি এবং ভিডিও ম্যানেজ করতে চান তাহলে আপনার জন্য একটি সুসংবাদ রয়েছে। কেননা অ্যাপল ফটোস এ ডুপ্লিকেট ছবি বা ভিডিও খোজার জন্য একটি বিল্ট ইন অপশন রয়েছে। যেটিকে ব্যবহার করে আপনি খুব সহজেই ডুপ্লিকেট ছবি বা ভিডিও খুঁজে পেতে পারেন। 

আপনি যদি ম্যাক ব্যবহার করে থাকেন তাহলে ফটোস অ্যাপ লঞ্চ করুন। এবার বাম দিকে থাকা নেভিগেশন বার থেকে ডুপ্লিকেট এন্ট্রি অপশন খুঁজে বের করুন। আপনাকে এখানে আপনার ছবি বা ভিডিও গুলোর ডুপ্লিকেট কপি দেখানো হবে। এখান থেকে আপনি মার্জ এক্স আইটেমস এ ক্লিক করে শুধুমাত্র একটি কপি রেখে বাকি গুলো ডিলিট করে দিতে পারবেন।

অন্য দিকে আইফোন কিংবা আইপ্যাডে আপনাকে প্রথমে ফটোস অ্যাপে যেতে হবে। এর পর এখানে থাকা অ্যালবাম এ ট্যাপ করে নিচে স্ক্রল করলে আপনি ডুপ্লিকেট এন্ট্রি অপশন টি পেয়ে যাবেন। এটিকে সিলেক্ট করলে আপনার লাইব্রেরিতে কোন কোন ছবি গুলোর ডুপ্লিকেট কপি আছে সেগুলো আপনি দেখতে পারবেন। এবার এখানে থাকা ডুপ্লিকেট ছবি বা ভিডিও এর লিস্ট থেকে যেকোনো এন্ট্রির পাশে থাকা মার্জ বাটনে ক্লিক করলে ওই ছবি বা ভিডিও এর সকল ডুপ্লিকেট কপি ডিলিট হয়ে যাবে। 

যদিও এই ডুপ্লিকেট ছবি বা ভিডিও একবারের জন্য ডিলিট হবে না। আপনি এ সকল কপি চাইলে রিসেন্ট ডিলিটেড অ্যালবাম থেকে ৩০ দিনের মধ্যে খুঁজে পেতে পারেন। এখানে আপনি চাইলে ৩০ দিন পরে কিংবা ৩০ দিনের মধ্যেই ম্যানুয়ালি ডিলিট করার মাধ্যমে আজীবনের জন্য আপনার আইফোন বা আইপ্যাড থেকে ডিলিট করে ফেলতে পারেন। 👉 আইফোন ও আইপ্যাডের মেমোরি ফুল? সমাধান এখানে

google photos

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

ফটো লাইব্রেরিতে জায়গা ফাকা করার জন্য সেরা কিছু থার্ড পার্টি অ্যাপ

বর্তমানে আপনার কম্পিউটারে থাকা ডুপ্লিকেট ছবি বা ভিডিও খুঁজে পাওয়া এবং সেগুলো মুছে ফেলার জন্য অনেক ধরনের থার্ড পার্টি অ্যাপ রয়েছে। এদের মধ্যে কিছু অ্যাপ ফ্রি হলেও আপনার সমস্যা যদি খুব বেশি পরিমানে হয়ে থাকে তাহলে এর জন্য টাকা দিয়ে অ্যাপ কিনে নিতে পারেন। এর ফলে আপনি একটি প্রফেশনাল প্রোডাক্ট পেয়ে যাবেন যেটির মাধ্যমে আপনি আরো ভালো ভাবে কাজ করতে পারবেন এবং সেটি নিরাপদ উপায়ে করা সম্ভব। 

ম্যাক ওস এর জন্য জেমিনি ২ অনেক নামকরা এটি ফাইল ফাইন্ডার। এটি অনেক দ্রুততার সাথে কাজ করে আপনার সিস্টেমের প্রতিটি কোণায় খোজ করে একই ধরনের ছবির পাশা পাশি একদম ডুপ্লিকেট ছবি ও খুঁজে দিতে পারে। অন্য দিকে উইন্ডোজ ব্যবহারের ক্ষেত্রে অলডাপ খুবই কার্যকর এবং ব্যবহার করাও অত্যন্ত সহজ। সাথে সাথে এই সফটওয়্যার টি ফ্রি থাকায় আপনি কোনো প্রকার অর্থ খরচ না করেই এটি ব্যবহার করতে পারবেন। অনেক ফ্রি ট্যুল আছে যেটি বিশ্বাস যোগ্য না এবং প্রচুর পরিমাণে এড এ ভরপুর থাকে। কিন্তু এ ক্ষেত্রে এই টুলটি অনেক ভালো সার্ভিস প্রদান করতে সক্ষম। 👉 একটানা কাজ না করেও যেভাবে টাকা ইনকাম সম্ভব

ডুপ্লিকেট ফটোস ফিক্সার প্রো আরো একটি ভালো সফটওয়্যার। এটি ব্যবহার করা বুদ্ধিমানের কাজ হবে কেননা এটি উইন্ডোজ, ম্যাক ওএস, এন্ড্রয়েড এবং আইওএস সকল অপারেটিং সিস্টেমেই ব্যবহার করা যায়। এটির মূল্য ৪০ ডলার হলেও আপনি এটিকে ফ্রি ও ব্যবহার করতে পারবেন। সেক্ষেত্রে সকল সার্ভিস না পেলেও আপনি কোথায় খোজ করছেন এবং আপনার ডুপ্লিকেট ছবি গুলোর মধ্যে পার্থক্য কেমন হবে সেসব কিছুও আপনি চাইলে নির্ধারণ করে দিতে পারবেন। যার ফলে আপনার ডুপ্লিকেট ছবি বা ভিডিও খুজে বের করার অভিজ্ঞতা আরো ভালো হবে।

বর্তমান সময়ে ভালো কনফিগারেশন এর ফোন দিয়ে তোলা ছবি বা ভিডিও গুলোর সাইজ তুলনা মূলকভাবে বেশি হয়ে থাকে। এসব ক্ষেত্রে যদি আবার ডুপ্লিকেট ছবি বা ভিডিও ফোনে সেভ হয়ে থাকে তাহলে এটি অনেক বেশি জায়গা নষ্ট করে ফেলে। তবে আমাদের এই আর্টিকেলটি পড়ার মাধ্যমে আশা করা যায় আপনারা এখন থেকে ডুপ্লিকেট ছবি বা ভিডিও খুব সহজেই ডিলিট করতে পারবেন। আমাদের এই আর্টিকেলটি আপনাদের কেমন লেগেছে তা আমাদের কমেন্ট এর মাধ্যমে জানিয়ে দিতে পারবেন। নিত্য নতুন প্রযুক্তি বিষয়ক নানা ধরনের তথ্য এবং টিপস এবং ট্রিকস পেতে চোখ রাখুন আমাদের এই ওয়েবসাইটে। 

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,561 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *