১৮জিবি র‍্যাম ও দুর্দান্ত স্ক্রিনের শক্তিশালী গেমিং ফোন এলো!

গেমিং ফোনের কথা এলে সবাই শক্তিশালী স্পেসিফিকেশন সমৃদ্ধ স্মার্টফোন খুঁজে থাকেন। কিন্তু বাজেট এবং অন্যান্য দিক বিবেচনা করে সকল চাহিদা সম্পন্ন স্পেসিফিকেশন নিতে গেলে স্মার্টফোনের খরচ অনেক বেড়ে যায়।  তাইতো নামিদামি ব্র্যান্ডগুলো তাদের খরচ এবং অন্যান্য বিষয় মাথায় রেখে গেমিং ফোন তৈরি করে।

শক্তিশালী গেমিং ফোন কিনতে গেলে ক্রেতাকে তার বাজেট এবং চাহিদার মধ্যে সমন্বয় করে নিতে হয়। কিন্তু চায়নিজ ব্র্যান্ডগুলো থাকতে শক্তিশালী স্পেসিফিকেশন এবং বাজেটের মধ্যে সমন্বয় করা তুলনামূলক সহজ।

বিভিন্ন চীনা ব্র্যান্ড যেমন শাওমি, অপো, রিয়েলমি স্মার্টফোন জগতে বিপ্লব এনে দিয়েছে। ব্র্যান্ডগুলো সাধ্যের মধ্যে সবার হাতে স্মার্টফোন তুলে দিয়েছে।

চীনা আরেকটি স্মার্টফোন ব্র্যান্ড ‘নুবিয়া’ তাদের গেমিং ফোনগুলোর জন্য বেশ সুনাম কুড়িয়েছে। নেটওয়ার্কিং ও টেলিকম কোম্পানি জেডটিই’র সাথে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান নুবিয়ার তৈরি গেমিং ফোনগুলোর নাম হচ্ছে রেডম্যাজিক।

কোম্পানিটির রেডম্যাজিক ৬ প্রো বর্তমানে আন্তর্জাতিক বাজারে অন্যতম ট্রেডিং একটি গেমিং ফোন। এরই মধ্যে নুবিয়া লঞ্চ করল রেডম্যাজিক ৭ সিরিজের স্মার্টফোন। বিশ্বব্যাপী বিক্রি হবে রেডম্যাজিক ৭ সিরিজের ফোনগুলো।

রেডম্যাজিক ৭ ফোনগুলোতে দেয়া হচ্ছে অসাধারণ সব স্পেসিফিকেশন। এতে পাবেন এই মুহুর্তে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি রিফ্রেশ রেট সমৃদ্ধ স্ক্রিন।

রেডম্যাজিক ৭ ফোনে থাকছে ১৬৫ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের ৬.৮ ইঞ্চি এমোলেড স্ক্রিন। এটি একটি ১০৮০পি ডিসপ্লে। গেম খেলার জন্য এরকম উচ্চ রিফ্রেশ রেট এবং এমোলেড প্যানেল চমৎকার সুবিধা দেবে। গরিলা গ্লাস ৫ প্রটেকশনযুক্ত এই ডিসপ্লের নিচেই দেয়া হয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

ডিভাইসটিতে আলট্রা মডার্ন গেমিং এক্সপেরিয়েন্স দিতে যুক্ত হয়েছে স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১ চিপসেট যা যেকোনো মোবাইল গেম খেলাকে ডালভাতে পরিণত করবে। ফোনটির মাল্টি-ফিঙ্গার টাচ স্যামপ্লিং রেট হবে ৭২০ হার্টজ।

এর টাচ-সেনসিটিভ ডুয়াল শোল্ডার ট্রিগারের টাচ স্যামপ্লিং রেট ৫০০ হার্টজ। এগুলো মিলে ফোনটিকে করে তুলেছে সুপার রেসপনসিভ।

১৮জিবি র‍্যাম ও দুর্দান্ত স্ক্রিনের শক্তিশালী গেমিং ফোন এলো!

রেডম্যাজিক ৭ ফোনে নুবিয়ার আইসিই ৮.০ মাল্টি-ডাইমেনশনাল কুলিং সিস্টেম ব্যবহৃত হয়েছে। এতে ৯ লেয়ারের কুলিং মেথড দেয়া হয়েছে। আরও আছে ৫জি সাপোর্ট ও ৩.৫ মিলিমিটার অডিও জ্যাক।

ফোনটির পেছনে ৬৪ মেগাপিক্সেল মেইন সেন্সরের ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ দেয়া হয়েছে যাতে ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড শুটার এবং ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো সেন্সর রয়েছে। আর সামনের দিকে রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা।

👉 কম দামে ভালো গেমিং ফোন

রেডম্যাজিক ৭ ফোনে কোম্পানিটির কাস্টম রেডম্যাজিক ওএস ৫ অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহৃত হয়েছে যেটি এন্ড্রয়েড ১২ এর উপর ভিত্তি করে তৈরি। এই কাস্টম স্কিনে গেমারদের জন্য আরও অনেক ফিচার দেয়া হয়েছে।

দুর্দান্ত এই গেমিং ফোনটি ৩ ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে। এর র‍্যাম ভ্যারিয়েন্টগুলো হচ্ছে ১২/১৬/১৮জিবি। আর স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট হবে ১২৮/২৫৬জিবি। এছাড়া ৬জিবি পর্যন্ত এক্সপ্যান্ডেবল ভার্চুয়াল র‍্যামও ব্যবহার করা যাবে।

৪৫০০ এমএএইচ ব্যাটারি ও ৬৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং যুক্ত এই শক্তিশালী গেমিং ফোনটির দাম শুরু হবে ৬২৯ ডলার থেকে। এছাড়া ৭২৯ এবং ৭৯৯ ডলারের অপর দুটি ভ্যারিয়েন্টও পাওয়া যাবে। মার্চে বাজারে আসবে রেডম্যাজিক ৭ স্মার্টফোন।

কেমন লাগল রেডম্যাজিক ৭ গেমিং ফোনটি? আপনি কি এটি কিনতে আগ্রহী?

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,613 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.