সেরা ৮টি গেমিং ল্যাপটপ

gaming pcভিডিও গেমের ধারণাটি কারও কারও নিকট কিছুটা শিশুতোষ শোনালেও এখন এর ব্যপ্তি অনেক। কম্পিউটারে গেম খেলতে কোন বয়সের সীমারেখা নেই। ছেলে-বুড়ো সবাই এখানে গেমার। ভাল গ্রাফিক্স সমৃদ্ধ গেমস খেলতে চাইলে সবার আগে আপনার ভাল একটি গেমিং মেশিন/ কম্পিউটার থাকতে হবে। আজকের পোস্টে আমরা বাজারের উল্লেখযোগ্য ৮টি গেমিং ল্যাপটপ দেখব।

১. এলিয়েনওয়্যার ১৮

দাম ও পারফরমেন্সের দিক দিয়ে এটি হচ্ছে এলিয়েনওয়্যার ব্র্যান্ডের ‘ক্রিম দ্যা ল্যা ক্রিম’ ডিভাইস। এর ওজন ১২ পাউন্ড। ল্যাপটপটিতে আছে এনভিডিয়া ডিফোর্স জিটিএক্স ভিডিও কার্ড ও ১ টেরাবাইটের অধিক স্টোরেজ। আপনি পিসিটির গেমিং এক্সপেরিয়েন্স উন্নত করার জন্য বিভিন্ন প্রোগ্রামের জন্য পাওয়ার ইউসেজ সেট করে দিতে পারবেন। ল্যাপটপটির সর্বোচ্চ কনফিগারেশন মডেলের দাম পড়বে ৫০০০ ডলার। এর সম্বন্ধে আরও জানতে এই অফিসিয়াল লিংক দেখুন।

২. এলিয়েনওয়্যার ১৭

প্রথমে উল্লেখকৃত ল্যাপটপটির প্রায় সমান ফিচার সমৃদ্ধ কিন্তু একটু কম বাজেটের মধ্যে অ্যালিয়েনওয়্যার ১৭ কিনতে পারেন। এতে রয়েছে ১৯২০ x ১০৮০পি ফুল এইচডি ডিসপ্লে, ৮ থেকে ৩২ জিবি র‍্যাম, এনভিডিয়া জিফোর্স মডেলের গ্রাফিক্স কার্ড প্রভৃতি। কিন্তু এলিয়েনওয়্যার ১৮’র সাথে এর পার্থক্য হচ্ছে, ১৭ মডেলে একটি মাত্র গ্রাফিক্স কার্ড চলবে- যেখানে ১৮’তে থাকে দুটি গ্রাফিক্স কার্ড। এলিয়েনওয়্যার ১৭’র দাম ২০০০ থেকে ৪৫০০ ডলার। মেশিনটির সম্পূর্ণ স্পেসিফিকেশন এখানে দেখুন

৩. রেজার ব্লেড

রেজার হচ্ছে এক গেমারের ব্র্যান্ড। এখান থেকে গেমিং মেশিন ও এক্সেসরি কিনতে পারেন। অধিকাংশ ডেডিকেটেড গেমিং ল্যাপটপের চেয়ে রেজার ব্লেডের স্ক্রিন সাইজ ছোট। এটি একটি ১৪ ইঞ্চি কম্পিউটার যার পুরুত্ব মাত্র ০.৬৬ ইঞ্চি। এতে আছে ইনটেল এইচডি ৪৬০০ এবং এনভিডিয়া জিফোর্স জিটিএক্স ৭৬৫এম গ্রাফিক্স ও ভিডিও প্রসেসর। পুরো স্পেসিফিকেশন এখানে দেখুন

৪. রেজার ব্লেড প্রো

তৃতীয় নম্বরে থাকা রেজার ব্লেডকে যদি আপনার খুব বেশি ভাল না লাগে, তবে এর প্রো ভার্সন সম্ভবত আপনার সাথে ম্যাচ করবে। এই পিসিতে পাবেন ১৭.৩ ইঞ্চি (১৯২০ x ১০৮০পি) এইচডি ১৬:৩ অ্যাসপেক্ট র‍্যাশিও সমৃদ্ধ স্ক্রিন। এর রয়েছে ছোট একটি সেকেন্ড ডিসপ্লে যা আপনি ট্র্যাকপ্যাড হিসেবেও ব্যবহার করতে পারবেন। মেশিনটির গ্রাফিক্স ও ভিডিও স্পেসিফিকেশন এর পূর্বসুরির মতই। এটি পুরোপুরি জানতে এখানে দেখুন

৫. রেটিনা ডিসপ্লেসহ ম্যাকবুক প্রো

যদিও বেশ কিছু টপ রেটেড গেম টাইটেল মূলত উইন্ডোজ ভিত্তিক, তবুও অ্যাপলের ম্যাকবুক প্রো’র রেটিনা ডিসপ্লেতে গেম খেলার সময় আপনি এটি উপভোগ করবেন। আর বুটক্যাম্প প্রোগ্রামের সাহায্যে ম্যাকবুকে উইন্ডোজ ওএস ইনস্টল করে অন্যান্য গেমও খেলতে পারবেন। এই ল্যাপটপটি গেমিং রেডি করে কিনতে আপনার খরচ হবে ২৫০০ থেকে ৩৫০০ ডলার। বিস্তারিত এখানে দেখুন

৬. অরিজিন ইওএন১৭-এসএলএক্স

আপনি যদি কাস্টমাইজেশন পছন্দ করেন, তবে এই ল্যাপটপটি ট্রাই করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনি ইনটেল আইসেভেন প্রসেসর অনুযায়ী আলাদা আলাদাভাবে গ্রাফিক্স কার্ড (সিঙ্গেল/ডুয়াল), স্টোরেজ, মেমোরি, প্রভৃতি বাছাই করতে পারবেন। ১৭ ইঞ্চি স্ক্রিনের এই কম্পিউটারের সাথে অরিজিনের চমৎকার টেকনিক্যাল সাপোর্টও পাবেন। এখানে ভিজিট করে পিসিটির সকল সুযোগ সুবিধা ও দাম জেনে নিন।

৭. স্যামসাং এটিভ

বাজারে উপলভ্য অন্যান্য গেমিং ল্যাপটপের তুলনায় এটি একটু কমপ্যাক্ট বলা চলে। এর ওজন ৫.৬ পাউন্ড ও ডিসপ্লে সাইজ ১৫.৬ ইঞ্চি। ডিভাইসটিতে থাকছে এএমডি রেডিওন এইচডি ৮৮৭০এম কার্ড, ইনটেল কোর আইসেভেন ৩৬৩৫কিউএম চিপ, অপশনাল টাচস্ক্রিন প্রভৃতি। অনলাইনে ল্যাপটপটি কিনতে খরচ হবে ১৪০০ ডলার। বিস্তারিত এখানে

৮. লেনোভো আইডিয়াপ্যাড ওয়াই৫১০পি

যারা গেম খেলতে আগ্রহী, কিন্তু এজন্য খুব বেশি খরচ করতে ইচ্ছুক না, তাদের জন্য এই ল্যাপটপটি বানিয়েছে লেনোভো। এতে আছে ১ টেরাবাইট স্টোরেজ, ১৫.৬ ইঞ্চি স্ক্রিন, ডুয়াল এনভিডিয়া জিফোর্স জিটি৭৫৫এম গ্রাফিক্স কার্ড প্রভৃতি। ডিভাইসটির দাম পড়বে ৭৮৯ ডলার। আরও জানতে এখানে দেখুন

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 3,353 other subscribers

Comments