ওয়ানপ্লাস ফোনের দাম ২০২৪

স্মার্টফোন ব্র‍্যান্ড হিসেবে ওয়ানপ্লাস’কে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার কিছু নেই। কখনো কখনো “অ্যান্ড্রয়েড দুনিয়ায় অ্যাপল” নামে পরিচিত এই স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান তাদের অসাধারণ সফটওয়্যার এক্সপেরিয়েন্স ও নজরকাড়া অনন্য ডিজাইনের মাধ্যমে গ্রাহকের মনে জায়গা করে নিয়েছে।

বাংলাদেশের প্রিমিয়াম অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন মার্কেটে প্রচুর পরিমাণে বিক্রি হয় ওয়ানপ্লাস এর ফোন। চলুন জেনে নেওয়া যাক বাংলাদেশে ওয়ানপ্লাস ফোন এর দাম সম্পর্কে বিস্তারিত।

উল্লেখ্য যে প্রদত্ত ওয়ানপ্লাস মোবাইলের দাম বিভিন্ন নির্ভরযোগ্য সোর্স থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে। দেশের বাজারে সময় ও স্থানভেদে ওয়ানপ্লাস ফোনের দাম কম বা বেশিও হতে পারে।

ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই ৩ লাইট – OnePlus Nord CE 3 Lite

বাজেটের মধ্যেই সেরা সব ফিচার নিয়ে সম্প্রতি বাজারে এসেছে ওয়ানপ্লাসের এই ফোনটি। ফোনটিতে সবদিকেই ভারসাম্য রাখা হয়েছে। দেখতে সুন্দর ও আধুনিক ডিজাইনের এই ফোনটির সামনে রয়েছে ৬.৭২ ইঞ্চির একটি বড় ও উজ্জ্বল এলসিডি ডিসপ্লে। তবে এটি ১২০ হার্টজ পর্যন্ত সাপোর্ট করে এবং খুবই ভালো মানের একটি ডিসপ্লে। এছাড়া ডিসপ্লেতে গরিলা গ্লাসের প্রোটেকশনও থাকছে। ফোনের পারফর্মেন্সে ব্যবহার করা হয়েছে স্ন্যাপড্রাগনের নতুন ৫জি চিপ ৬৯৫। এটি ৬ ন্যানোমিটারের শক্তিশালী একটি বাজেট চিপ। ফলে টুকিটাকি গেমিং বা দৈনন্দিন কাজগুলো বেশ সাবলীলভাবেই করা যায়। এছাড়া ৫ জি হওয়ায় ফোনটি ডুয়াল সিম ৫জি দ্রুতগতির ইন্টারনেটও সাপোর্ট করবে।

ফোনের ক্যামেরা সেকশনে পাওয়া যাবে ১০৮ মেগাপিক্সেলের ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ। বাজেট ফোন হিসেবে এই ক্যামেরাটি অসাধারন সব ছবি তুলতে পারে। এছাড়া ম্যাক্রো ও ডেপথ ক্যামেরাও রয়েছে ফোনে। সামনে পাবেন ১৬ মেগাপিক্সেলের একটি সেলফি ক্যামেরা। ফোনের অন্যতম আকর্ষণীয় দিক এর ব্যাটারি। ৫০০০ মিলিএম্পের বড় ব্যাটারির সাথে আছে ৬৭ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং সুবিধা। অর্থাৎ লম্বা সময়ের ব্যাকাপের সাথে সাথে ফোনটি মাত্র ৩০ মিনিটে ৮০ শতাংশ চার্জ করে ফেলা সম্ভব। ফোনে হেডফোন জ্যাক ও মাইক্রোএসডি কার্ডের মতো কাজের ফিচারও পাবেন। সেই সঙ্গে আছে লেটেস্ট অ্যান্ড্রয়েডের অক্সিজেন ওএস।

OnePlus Nord CE 3 Lite

ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই ৩ লাইট এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৭২ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৬৯৫
  • র‍্যামঃ ৮ জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮/২৫৬ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ট্রিপল ( ১০৮+২+২ মেগাপিক্সেল )
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই ৩ লাইট এর দাম:

  • ৮ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজঃ ৩৪,৫০০ টাকা
  • ৮ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজঃ ৩৬,৫০০ টাকা

ওয়ানপ্লাস ৮টি – OnePlus 8T

OnePlus 8T

ওয়ানপ্লাসের ৮ সিরিজের ফোনগুলো বেশ কয়েক বছরের পুরনো হলেও নতুন করে এই ফোনগুলো বেশ কম দামে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। কম দামেই অনেক ভালো ফ্ল্যাগশিপ ফিচার পাওয়ায় ক্রেতাদের কাছেও এখনও বেশ জনপ্রিয় এই ফোনটি। ওয়ানপ্লাসের এই ফোনের সামনে রয়েছে ৬.৫৫ ইঞ্চির একটি ফ্লুইড অ্যামোলেড ১২০ হার্টজের ডিসপ্লে। এটি পুরোপুরি একটি ফ্ল্যাগশিপ মানের ডিসপ্লে এবং কনটেন্ট ওয়াচিং বা গেমিংয়ের ক্ষেত্রে সেরা একটি ডিসপ্লে। ফোনের পারফর্মেন্স দিতে আছে স্ন্যাপড্রাগনের পুরনো ফ্ল্যাগশিপ চিপ ৮৬৫। এটি একটি ৫জি চিপ এবং বর্তমানের মিড বাজেটের চিপ থেকে এখনও বেশ শক্তিশালী পারফর্মেন্স দিতে সক্ষম। ফলে যে কোন গেম বা কাজ করা যায় এই ফোনে।

ফোনের পিছনে রয়েছে ৪৮ মেগাপিক্সেলের কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ। সামনে পাবেন ১৬ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। ছবি তোলার ক্ষেত্রেও ফোনটি বেশ ভালো পারফর্ম করে। ফোনের ব্যাটারি হিসেবে আছে ৪৫০০ মিলিএম্পের ব্যাটারি। এটি যথেষ্ট ভালো ব্যাকাপ দেয়। তাছাড়া ৬৫ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং থাকায় মাত্র ৩৯ মিনিটে ফোনটি পুরো চার্জ করে ফেলা সম্ভব। ফলে ব্যাটারি ব্যাকাপ বা চার্জের দিক থেকেও ফোনটি যথেষ্ট ভালো। এছাড়া ৫জি ইন্টারনেট, আন্ডার ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট, স্টেরিও স্পিকার, গরিলা গ্লাসের প্রোটেকশন ইত্যাদি অনেক ভালো ভালো ফিচার পাওয়া যাবে ফোনে।

ওয়ানপ্লাস ৮টি এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫৫ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫
  • র‍্যামঃ ৮/১২ জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮/২৫৬ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ কোয়াড ( ৪৮+১৬+৫+২ মেগাপিক্সেল )
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪৫০০ মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস ৮টি (আনঅফিসিয়াল) এর দাম:

  • ৮ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজঃ ৩৭,৫০০ টাকা
  • ১২ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজঃ ৪১,০০০ টাকা

ওয়ানপ্লাস ১১ – OnePlus 11

২০২৩ সালে বছরের শুরুতেই ওয়ানপ্লাস বাজারে এনেছে তাদের নতুন ফ্ল্যাগশিপ সিরিজের ফোন ওয়ানপ্লাস ১১। নতুন প্রজন্মের কোয়ালকম প্রসেসর স্ন্যাপড্রাগন ৮ যেন ২ চিপসেট সহ বাজারে এসেছে ফোনটি। বর্তমান অ্যান্ড্রয়েড ফোনের বাজারে সেরা এই চিপ থেকে পাবেন সবথেকে সেরা পারফর্মেন্স। যে কোন ভারী কাজ বা গেম খেলা যাবে এই ফোন দিয়ে। সামনে আছে ৬.৭ ইঞ্চির বড় একটি এলটিপিও২ সাপোর্টেড ১২০ হার্টজের ফ্লুয়িড অ্যামোলেড ডিসপ্লে। ফ্ল্যাগশিপ ডিসপ্লের সকল ফিচার আছে এখানে। ৮ জিবি থেকে ১৬ জিবি পর্যন্ত র‍্যামে এই ফোনটি পাওয়া যাচ্ছে।

oneplus 11

পিছনে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে যার মূল ক্যামেরাটি ৫০ মেগাপিক্সেলের। এই ফোনে ক্যামেরার অনেক উন্নতি করা হয়েছে যার কারণে আরও ভালো ছবি তুলতে পারে ফোনটি। সেই সাথে ৩২ মেগাপিক্সেলের টেলিফটো ও ৪৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রাওয়াইড লেন্সও রয়েছে। সেলফি তুলতে দেয়া হয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেলের একটি ক্যামেরা। ৫০০০ মিলিএম্পের বড় ব্যাটারি এই ফোনটিকে সাহায্য করবে সারাদিন ব্যাকাপ দিতে। কোন ওয়্যারলেস চার্জের সুবিধা না থাকলেও আছে ১০০ ওয়াটের ফাস্ট চার্জের সুবিধা যা মাত্র ২৫ মিনিটে এই ফোনকে পুরোপুরি চার্জ করতে পারবে। এছাড়া ২৫৬ জিবি স্টোরেজের মডেল থেকে দেয়া হয়েছে নতুন ইউএফএস ৪.০ স্টোরেজ যা ফোনটিকে আরও দ্রুতগতিতে কাজ করতে সাহায্য করে। ফ্ল্যাগশিপ ফোনের সকল সুবিধাই পেয়ে যাবেন এই ফোনটিতে।

ওয়ানপ্লাস ১১ এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৭ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ২
  • র‍্যামঃ ৮/১২/১৬ জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮/২৫৬ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ট্রিপল ( ৫০+৩২+৪৮ মেগাপিক্সেল )
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস ১১ (আনফিসিয়াল) এর দাম:

  • ১২ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজঃ ৭৩,৫০০ টাকা

ওয়ানপ্লাস ১১আর – OnePlus 11R

ওয়ানপ্লাস ১১আর – OnePlus 11R

বাজারে নতুন আসা এই ফোনটি কম দামেই ফ্ল্যাগশিপ ফোনের সুবিধা দিতে পারে। দাম কম রাখতে এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে আগের প্রজন্মের স্ন্যাপড্রাগন ৮+ জেন ১ ৪ ন্যানোমিটার চিপসেট। এটি নতুন প্রজন্মের চিপ থেকে কিছুটা কম শক্তিশালী হলেও বাজারে থাকা অন্য বেশিরভাগ চিপ হতে শক্তিশালী। ফলে কোন ভারী কাজ বা গেম খেলা নিয়ে আপনাকে ভাবতে হবে না। যে কোন কাজ এই ফোনটি সহজেই সামলাতে পারবে।

৬.৭৪ ইঞ্চির একটি প্রিমিয়াম ফ্লুয়িড অ্যামোলেড দেয়া হয়েছে ফোনে যা ১২০ হার্টজ পর্যন্ত রিফ্রেশ রেট সাপোর্ট করে। ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপের মূল ক্যামেরাটি ৫০ মেগাপিক্সেলের যা বেশ ভালো ছবি তুলতে পারে। এই ফোনে আছে ৫০০০ মিলিএম্পের বড় ব্যাটারি যা এই সিরিজের ফ্ল্যাগশিপ ফোনের মতই ১০০ ওয়াট ফাস্ট চার্জ করতে পারে। ফলে ফোনটিতে মাত্র ২৫ মিনিটে পূর্ণ চার্জ করা যায়। আন্ডার ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট, গরিলা গ্লাস ৫ এর প্রোটেকশন ইত্যাদি ফ্ল্যাগশিপ ফিচার এই ফোনকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলেছে। ফলে কম দামেই যারা ফ্ল্যাগশিপ সুবিধা চান তাদের জন্য সেরা ফোন এটি।

ওয়ানপ্লাস ১১আর এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৭৪ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৮+ জেন ১
  • র‍্যামঃ ৮/১৬ জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮/২৫৬ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ট্রিপল ( ৫০+৮+২ মেগাপিক্সেল )
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস ১১আর (আনফিসিয়াল) এর দাম:

  • ১৬ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজঃ ৬০,০০০ টাকা

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন৩০০ ৫জি – OnePlus Nord N300 5G

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন৩০০ ৫জি ২০২২ সালে বাজারে আসা ওয়ানপ্লাসের জনপ্রিয় বাজেট ফোনের একটি। ফোনটি ওয়ানপ্লাস বেশ ফিচার রিচ করে ডিজাইন করেছে। প্রিমিয়াম ও সুন্দর দেখতে এই ফোনটির সবথেকে অসাধারন দিক এর পারফর্মেন্স। দেয়া আছে মিডিয়াটেকের নতুন ডাইমেনসিটি ৮১০ ৬ ন্যানোমিটার চিপ। ফলে ৫জি সুবিধা পাবার সাথে আপনি সকল কাজ অনায়াসে করে ফেলতে পারবেন। গেমিংও করতে পারবেন এই প্রসেসরের মাধ্যমে। তবে ৪জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজে ফোনটি পাওয়া যাচ্ছে যা বর্তমান সময়ের হিসেবে কিছুটা কম। ক্যামেরা সেকশনে ডুয়াল ক্যামেরা রয়েছে যার মূল লেন্স ৪৮ মেগাপিক্সেলের। যদিও ফোনে এলসিডি ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে তবে আছে ৯০ হার্টজ হাই রিফ্রেশ রেট সুবিধা। ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি ও ৩৩ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং থাকায় ব্যাকাপ নিয়েও চিন্তা করতে হবে না। বাজেটে বেশ ভালো একটি ৫জি ফোন এটি।

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন৩০০ ৫জি – OnePlus Nord N300 5G

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন৩০০ ৫জি এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫৬ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৮১০
  • র‍্যামঃ ৪ জিবি
  • স্টোরেজঃ ৬৪ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ডুয়াল ( ৪৮+২ মেগাপিক্সেল )
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন৩০০ ৫জি (আনফিসিয়াল): ২৫,০০০ টাকা

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন২০০ ৫জি – OnePlus Nord N200 5G

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন২০০ ৫জি – OnePlus Nord N200 5G

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন২০০ ৫জি ২০২১ সালে বাজারে আসা ওয়ানপ্লাসের অন্যতম জনপ্রিয় বাজেট ফোন। সল্প দামে ৫জি সুবিধা দিতে ওয়ানপ্লাস এই ফোনে বেশ কিছু ভালো ফিচার যুক্ত করেছে। ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ ব্যবহার করা হয়েছে এই ফোনের পিছনে। ১৩ মেগাপিক্সেলের বেশ ভালো ছবি তুলতে পারবেন মূল ক্যামেরায়। পারফর্মেন্সে কিছুটা পিছিয়ে থাকলেও দৈনন্দিন কাজ স্বাচ্ছন্দ্যে করে ফেলতে পারবেন স্ন্যাপড্রাগন ৪৮০ চিপ দিয়ে। ডিসপ্লে সেকশনে আছে ৯০ হার্টজের এলসিডি ডিসপ্লে যা কন্টেন্ট দেখতে ভালো অভিজ্ঞতা দেবে। ফোনে ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি থাকায় অনায়াসে একদিন ব্যাকআপও দিতে পারবে। এছাড়া ফিঙ্গারপ্রিন্ট, ডুয়াল ব্যান্ড ওয়াইফাই, ৫জি এর মতো আধুনিক কিছু সুবিধাও এতে উপস্থিত।

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন২০০ ৫জি এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৪৯ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৪৮০
  • র‍্যামঃ ৪ জিবি
  • স্টোরেজঃ ৬৪ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ট্রিপল ( ১৩+২+২ মেগাপিক্সেল )
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন২০০ ৫জি (আনফিসিয়াল): ২২,০০০ টাকা

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন২০ এসই – OnePlus Nord N20 SE

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন২০ এসই – OnePlus Nord N20 SE

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন২০ এসই বাজেট বাজারে বেশ জনপ্রিয় এক ফোন। এই ফোনে ওয়ানপ্লাস মূলত ভালো ক্যামেরা রাখার চেষ্টা করেছে। তাই পিছনে দেয়া হয়েছে ৫০ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরা সেটআপ। আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লে দেয়া হয়েছে এবং কোন হাই রিফ্রেশ রেট নেই। আছে মিডিয়াটেকের হেলিও জি৩৫ চিপসেট যার মাধ্যমে সাধারণ কাজগুলো করতে পারবেন, তবে গেমিং করার জন্য এটি খুব একটা ভালো হবে না। ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি ও ৩৩ ওয়াটের ফাস্ট চার্জ সুবিধা দেয়া রয়েছে। ফোনটি দেখতে বেশ প্রিমিয়াম ও স্টাইলিশ। বাজেট অনুযায়ী ফোনটি খুব একটা খারাপ নয়।

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন২০ এসই এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫৬ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫
  • র‍্যামঃ ৪ জিবি
  • স্টোরেজঃ ৬৪ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ডুয়াল ( ৫০+২ মেগাপিক্সেল )
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন২০ এসই : ১৯,৪০০ টাকা

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন২০ ৫জি – OnePlus Nord N20 5G

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন২০ ৫জি – OnePlus Nord N20 5G

দাম হিসেবে ওয়ানপ্লাস নর্ড এন২০ ৫জি বেশ অসাধারন কিছু ফিচার নিয়ে বাজারে এসেছে। ফোনে আছে খুব ভালো স্ন্যাপড্রাগনের ৬৯৫ ৬ ন্যানোমিটার ৫জি চিপ। এটি বেশ শক্তিশালী ও আধুনিক চিপ হওয়ায় সকল কাজ খুব ভালোভাবে সামলাতে পারে। কিছুটা গেম খেলতেও সমস্যা হবে না এই ফোনে। ফোনের ডিসপ্লেতে আছে অ্যামোলেড প্যানেল, তবে থাকছে না কোন হাই রিফ্রেশ রেট। তবে কন্টেন্ট দেখতে বেশ আরাম পাবেন ৬.৪৩ ইঞ্চির এই প্যানেলে। ক্যামেরার দিকেও ভালো নজর রেখেছে ওয়ানপ্লাস, ৬৪ মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরা ছাড়াও আরও দুটি ক্যামেরা দেয়া হয়েছে। ৬ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ থাকায় বেশ আরাম পাবেন এই ফোনটি ব্যবহার করে। এছাড়াও ৪৫০০ মিলিএম্প ব্যাটারি ও ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জ সুবিধা আছে। ফোনটি দেখতেও বেশ সুন্দর ও স্টাইলিশ। ৩০ হাজার টাকা বাজেটে এই ফোন বেশ ভালো একটি পছন্দ হতে পারে।

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন২০ ৫জি এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৪৩ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৬৯৫ ৫জি
  • র‍্যামঃ ৬ জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ট্রিপল ( ৬৪+২+২ মেগাপিক্সেল )
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪৫০০ মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন২০ ৫জি (আনফিসিয়াল): ৩০,০০০ টাকা

ওয়ানপ্লাস নর্ড ২টি – OnePlus Nord 2T

ওয়ানপ্লাস নর্ড ২টি – OnePlus Nord 2T

দেশের বাজারে ওয়ানপ্লাসের এই প্রিমিয়াম ফোনটি অফিসিয়াল্ভাবেই পাওয়া যায়। এই ফোনে বেশ কিছু প্রিমিয়াম ফিচার দিচ্ছে ওয়ানপ্লাস। পারফর্মেন্স, ক্যামেরা, চার্জিং সবদিকেই ফোনটি বেশ ভালো একটি ভারসাম্য রেখেছে। দেয়া হয়েছে মিডিয়াটেকের নতুন ডাইমেনসিটি ১৩০০ প্রসেসর যা ৬ ন্যানোমিটারের একটি প্রসেসর ও বেশ শক্তিশালী। গেমিং, দৈনন্দিন ভারী কিংবা হালকা কাজ বেশ সহজেই করে ফেলতে পারবেন। আছে ৬.৪৩ ইঞ্চির একটি প্রিমিয়াম অ্যামোলেড ডিসপ্লে যা ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটে কাজ করে। ক্যামেরা হিসেবে পিছনে আছে তিনটি ক্যামেরা যার মেইন লেন্সটি ৫০ মেগাপিক্সেলের সনি আইএমএক্স ফ্ল্যাগশিপ ক্যামেরা। ৩২ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা দিয়ে অসাধারন সব সেলফিও তুলে ফেলতে পারবেন। ক্যামেরা ও পারফরমেন্স একসঙ্গে চাইলে এটি বেশ ভালো একটি পছন্দ হতে পারে। এতে ৪৫০০ মিলিএম্প ব্যাটারি আছে, তবে এই ফোনের মূল আকর্ষণ এর ৮০ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং। এছাড়াও গরিলা গ্লাসের প্রোটেকশন, আন্ডার ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট, স্টেরিও স্পিকার ইত্যাদি বিভিন্ন ফিচারও রয়েছে।

ওয়ানপ্লাস নর্ড ২টি এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৪৩ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৬৯৫ ৫জি
  • র‍্যামঃ ৬ জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ট্রিপল ( ৬৪+২+২ মেগাপিক্সেল )
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪৫০০ মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস নর্ড ২টি দাম

৮জিবি র‍্যাম+১২৮জিবি স্টোরেজঃ ৪৯,৯৯০ টাকা

১২জিবি র‍্যাম+২৫৬জিবি স্টোরেজঃ ৫৪,৯৯০ টাকা

ওয়ানপ্লাস ১০টি – OnePlus 10T

ওয়ানপ্লাস ১০টি – OnePlus 10T

২০২২ সালে বাজারে আসা ওয়ানপ্লাসের একদম প্রিমিয়াম সেগমেন্টের একটি ফোন এটি। ওয়ানপ্লাস এই ফোনে আধুনিক সকল ফ্ল্যাগশিপ ফিচার দিয়ে বাজারে এনেছে। ৬.৭ ইঞ্চির বড় ফ্লুইড ১২০ হার্টজ অ্যামোলেড ফ্ল্যাগশিপ ডিসপ্লে আছে এই ফোনে। যেকোনো কন্টেন্ট দেখতে সেরা অভিজ্ঞতা পাবেন এই ডিসপ্লে থেকে। পারফর্মেন্স দিতে আছে স্ন্যাপড্রাগনের ৮+ জেন ১ চিপ যা ৪ ন্যানোমিটার ফ্যাব্রিকেশনে তৈরি। এটি বাজারে থাকা প্রসেসরের মধ্যে অন্যতম দ্রুতগতির একটি প্রসেসর। যেকোনো ধরনের গেমস বা ভারী কাজ অনায়াসে করে ফেলতে পারবেন। আছে ফ্ল্যাগশিপ কোয়ালিটির ক্যামেরাও। ট্রিপল ক্যামেরা সিস্টেমের মেইন ক্যামেরা ৫০ মেগাপিক্সেলের এবং ওআইএস যুক্ত। এছাড়া ৮ মেগাপিক্সেলের আলট্রাওয়াইড ও ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো ক্যামেরাও আছে। সামনে আছে ১৬ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। এই ফোনের সবথেকে অবাক করা ব্যাপার ১৫০ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং যা মাত্র ১০ মিনিটে সারাদিন চলার মতো চার্জ করে ফেলতে পারে। আছে ৪৮০০ মিলিএম্পের ব্যাটারি। এছাড়া সাধারণ সকল ফ্ল্যাগশিপ ফিচার যেমনঃ আন্ডার ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট, এনএফসি, গরিলা গ্লাস ৫ প্রোটেকশন ইত্যাদিও এই ফোনে দিয়েছে ওয়ানপ্লাস।

ওয়ানপ্লাস ১০টি এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৭ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৮+ জেন ১
  • র‍্যামঃ ৮/১২/১৬ জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮/২৫৬ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ট্রিপল ( ৫০+৮+২ মেগাপিক্সেল )
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪৮০০ মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস ১০টি দাম

অফিসিয়ালঃ

  • ৮৪,৯৯০ টাকা ( ১৬ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ )

আনফিসিয়ালঃ

  • ৫৫,৫০০ টাকা ( ৮ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ )
  • ৬৭,৫০০ টাকা ( ১২ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ )
  • ৭৩,৫০০ টাকা ( ১৬ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ )

ওয়ানপ্লাস ১০আর – OnePlus 10R

ওয়ানপ্লাস ১০আর – OnePlus 10R

ওয়ানপ্লাস ১০টি এর থেকে কিছুটা পরিবর্তিত ভার্সন এটি। আছে আলাদা মিডিয়াটেকের ডাইমেনসিটি ৮১০০ ম্যাক্স নামের চিপ। এটি স্ন্যাপড্রাগনের ফ্ল্যাগশিপ চিপ থেকে কিছুটা কম শক্তিশালী হলেও সকল রকম ভারী কাজ ও গেমিং করতে পারবেন এই ফোনেও। এতেও ব্যবহার করা হয়েছে একই ২০ হার্টজ অ্যামোলেড ফ্ল্যাগশিপ ডিসপ্লে। সাথে আছে ৫০ মেগাপিক্সেলের ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ যা ফ্ল্যাগশিপ ফোনের মতোই ছবি তুলতে পারে। বাজারে ফোনটির দুটি ভার্সন পাওয়া যায়। একটিতে ৮০ ওয়াট ফাস্ট চার্জ আছে অন্যটিতে ১০টি এর মতোই ১৫০ ওয়াট ফাস্ট চার্জ সাপোর্ট করে। এই ফোনে ব্যাটারি কিছুটা বড়, ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি সারাদিন ব্যাকাপ দিতে পারবে এবং ৮০ ওয়াটের চারজার দিয়ে মাত্র ৩২ মিনিটে একে পূর্ণ চার্জ করা যাবে। স্টেরিও স্পিকার, এনএফসি, আন্ডার ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্টের মতো ফিচারগুলোও পেয়ে যাবেন এই ফোনে।

ওয়ানপ্লাস ১০আর এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৭ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৮+ জেন ১
  • র‍্যামঃ ৮/১২/১৬ জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮/২৫৬ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ট্রিপল ( ৫০+৮+২ মেগাপিক্সেল )
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪৮০০ মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস ১০আর (৮০ ওয়াট আনফিসিয়াল) এর দাম:

  • ৮ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজঃ ৪১,০০০ টাকা
  • ১২ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজঃ ৪৮,০০০ টাকা

ওয়ানপ্লাস ১০ প্রো – OnePlus 10 Pro

ওয়ানপ্লাস ১০ প্রো – OnePlus 10 Pro

২০২২ সালে ওয়ানপ্লাসের সবথেকে দামী ও ফ্ল্যাগশিপ প্রিমিয়াম মডেল এটি। আর তাই এতে কোনো ফিচারের কমতি নেই। আধুনিক স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১ এর ৪ ন্যানোমিটারের চিপটি বাজারের সেরা। যেকোনো কাজ ও গেম সামলাতে পারে এই ফোন। ডিসপ্লে তে একদম নতুন প্রজন্মের এলটিপিও২ অ্যামোলেড ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে যা ১ বিলিয়ন কালার দেখাতে পারে। অর্থাৎ একদম লেটেস্ট টেকনোলজির ফ্ল্যাগশিপ ডিসপ্লে থাকছে এখানে যা ফোন ব্যবহারের অভিজ্ঞতাকে নতুন মাত্রা দেবে।

শুধু তাই নয় ক্যামেরার ক্ষেত্রেও প্রিমিয়াম কোয়ালিটি বজার রাখা হয়েছে। ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপে মেইন ৪৮ মেগাপিক্সেলের ওএইএস যুক্ত ক্যামেরার সাথে আছে ৫০ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রাওয়াইড লেন্স। সেলফি তুলতে আছে ৩২ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি চার্জ করতে দেয়া আছে ৮০ ওয়াটের সুপার ফাস্ট চার্জিং সুবিধা যা ফোনটিকে মাত্র ৩২ মিনিটে পুরো চার্জ করে ফেলতে পারে। এছাড়া আন্ডার ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট, গরিলা গ্লাস ভিকটাসের প্রটেকশন, ওয়্যারলেস চার্জিং, এনএফসির মতো সকল ফ্ল্যাগশিপ ফিচারও পেয়ে যাবেন।

ওয়ানপ্লাস ১০ প্রো এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৭ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১
  • র‍্যামঃ ৮/১২ জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮/২৫৬/৫১২ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ট্রিপল ( ৪৮+৫০+৮ মেগাপিক্সেল )
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৩২ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস ১০ প্রো অফিসিয়াল দাম:

  • ১২ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজঃ ৭৩,০০০ টাকা

ওয়ানপ্লাস ১০ প্রো আনঅফিসিয়াল দাম:

  • ৮ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজঃ ৫৬,০০০ টাকা
  • ১২ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজঃ ৬৬,০০০ টাকা

ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই ২ লাইট ৫জি – OnePlus Nord CE 2 Lite 5G

ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই ২ লাইট ৫জি – OnePlus Nord CE 2 Lite 5G

ওয়ানপ্লাসের ভারসাম্যপূর্ণ বাজেট ফোনগুলোর মধ্যে এটি ব্যবহারকারীদের কাছে অনেক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। ফোনটিতে ৬59 ইঞ্চির এলসিডি ডিসপ্লে থাকলেও ১২০ হার্টজ হয় রিফ্রেশ রেটের সুবিধা আছে। সেই সাথে স্ন্যাপড্রাগনের ৬৯৫ ৫জি চিপসেট থাকায় ফোনটি বেশ স্মুথ পারফর্মেন্স দিতে পারে।

গেমিং এর সাথে ভারী কাজগুলো সামলাতে পারে ফোনটি। ক্যামেরার দিকেও কোনো কমতি রাখা হয় নি এই ফোনে। ট্রিপল ক্যামেরা সেটাপের ফোনে মেইন লেন্সটি ৬৪ মেগাপিক্সেলের যা ভালো ছবি তুলতে পারে। ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরটি সাইড মাউন্টেড। তাছাড়াও ৫০০০ মিলিএম্পের ব্যাটারি থাকায় ফোনটি সারাদিন ধরে ব্যাকাপ দিতে পারবে। ৩৩ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং আছে ফোনের সাথেই। ফোনটির ডিজাইনও বেশ নজরকাড়া। দাম অনুযায়ী ফোনটি খুব ভালো ফিচার নিয়ে বাজারে এসেছে।

ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই ২ লাইট ৫জি এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫৯ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৬৯৫ ৫জি
  • র‍্যামঃ ৬/৮ জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ট্রিপল ( ৬৪+২+২ মেগাপিক্সেল )
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই ২ লাইট ৫জি অফিসিয়াল দাম

  • ৮ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ: ২৯,৬০০ টাকা

ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই ২ লাইট ৫জি আনঅফিসিয়াল দাম

  • ৬ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ: ২৪,৮০০ টাকা
  • ৮ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ: ২৭,৩০০ টাকা

ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই ২ ৫জি – OnePlus Nord CE 2 5G

ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই ২ ৫জি – OnePlus Nord CE 2 5G

এই ফোনটিও ওয়ানপ্লাস তাদের বাজেট বাজারের জন্য এনেছে মিডিয়াটেক চিপসেট ব্যবহার করে এবং অন্যান্য কিছু বাড়তি প্রিমিয়াম ফিচার যুক্ত করে। এই ফোনে আছে ডাইমেনসিটি ৯০০ এর ৬ ন্যানোমিটার চিপসেট যা বেশ শক্তিশালী। গেম খেলা বা ভারী কাজগুলোতে এই চিপসেট বেশ কার্যকরী। সেই সঙ্গে এই ফোনে ওয়ানপ্লাস ৯০ হার্টজের অ্যামোলেড ডিসপ্লে ব্যবহার করেছে যা কনটেন্ট ওয়াচিংয়ের জন্য বেশ ভালো।

ক্যামেরা সেকশনে এই ফোনের লাইট ভার্সনের মতোই ৬৪ মেগাপিক্সেলের ট্রিপল ক্যামেরা সেটাপ থাকছে। সামনে আছে ১৬ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। ফোনটিতে ব্যাটারি কিছুটা কম দেয়া হয়েছে, ৪৫০০ মিলিএম্পের ব্যাটারি আছে এখানে। তবে ৬৫ ওয়াটের সুপার ফাস্ট চার্জিং থাকায় ফোনটি বেশ দ্রুতই চার্জ হতে যায়। এছাড়া গরিলা গ্লাসের প্রটেকশন, আন্ডার ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট এর মতো আধুনিক কিছু প্রিমিয়াম ফিচারও আছে এখানে।

ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই ২ ৫জি এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৪৩ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৯০০
  • র‍্যামঃ ৮ জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ট্রিপল ( ৬৪+২+২ মেগাপিক্সেল )
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪৫০০ মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই ২ ৫জি এর দাম

  • অফিসিয়াল: ৩৫,৩০০ টাকা
  • আনঅফিসিয়াল: ৩২,৫০০ টাকা

ওয়ানপ্লাস ৯আরটি – OnePlus 9RT

ওয়ানপ্লাস ৯আরটি – OnePlus 9RT

ওয়ানপ্লাস তাদের ২০২১ সালের প্রিমিয়াম ওয়ানপ্লাস ৯ সিরিজের ফ্ল্যাগশিপ ফিচারগুলো কম বাজেটে বাজারে নিয়ে আসতে এই ফোনটি এনেছে। ওয়ানপ্লাস ৯ ফোনের অনেক ফ্ল্যাগশিপ ফিচার এখানে পেয়ে যাবেন। এতে আছে একদম প্রিমিয়াম কোয়ালিটির ১২০ হার্টজের অ্যামোলেড প্যানেল। পারফরমেন্স দিতে আছে এক বছরের পুরানো স্ন্যাপড্রাগনের ৮৮৮ ৫জি ৫ ন্যানোমিটারের খুবই শক্তিশালী প্রসেসর যা সকল কাজ এখনও অনায়াসে সামলাতে পারবে।

আছে ইউএফএস ৩.১ স্টোরেজ যা সব কাজ দ্রুতগতিতে করতে সাহায্য করবে। এছাড়া কোয়াড ক্যামেরাও আছে পিছনে যা ফ্ল্যাগশিপ ক্যামেরার মতোই ছবি তুলতে পারে ৫০ মেগাপিক্সেলের লেন্স দিয়ে। ব্যাটারি দেয়া হয়েছে ৪৫০০ মিলিএম্প যা মাত্র ২৯ মিনিটে ফুল চার্জ হতে পারে ৬৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিংয়ের মাধ্যমে। এছাড়া স্টেরিও শক্তিশালী স্পিকার, গরিলা গ্লাসের প্রটেকশন, আন্ডার ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট, এনএফসির মতো অসাধারণ সব প্রিমিয়াম ফিচারও পেয়ে যাবেন।

ওয়ানপ্লাস ৯আরটি এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৬২ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮
  • র‍্যামঃ ৮/১২ জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮/২৫৬ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ট্রিপল ( ৫০+১৬+২ মেগাপিক্সেল )
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪৫০০ মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস ৯আরটি এর দাম (আনঅফিসিয়াল)

  • ৮ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ: ৪৫,০০০ টাকা
  • ৮ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ: ৪৭,০০০ টাকা
  • ১২ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ: ৪৮,৫০০ টাকা

ওয়ানপ্লাস নর্ড ২ ৫জি – OnePlus Nord 2 5G

ভারতে ওয়ানপ্লাস নর্ড ২ ফোনটি ব্লাস্ট হওয়ার গুঞ্জন শোনা গেলেও জনপ্রিয়তা একটুও কমেনি ফোনটির। ৫০হাজার টাকা দামের এই ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে মিডিয়াটেক এর ডাইমেনসিটি ১২০০ প্রসেসর। ৮জিবি র‍্যাম ও ১২৮জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে ফোনটি।

ওয়ানপ্লাস নর্ড ২ ৫জি এর স্পেসিফিকেশনঃ

ওয়ানপ্লাস নর্ড ২ ৫জি - OnePlus Nord 2 5G
  • ডিসপ্লেঃ ৬.৪৩ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ১২০০ ৫জি
  • র‍্যামঃ ৮জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৫০মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৩২মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪৫০০মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস নর্ড ২ ৫জি এর দামঃ ৪২,৮০০ টাকা

ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই ৫জি – OnePlus Nord CE 5G

৪০হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে যারা ওয়ানপ্লাস ফোন খুঁজছেন, তাদের জন্য ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই একটি আদর্শ পছন্দ হতে পারে। ৬৪মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা সেটাপের এই ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে স্ম্যাপড্রাগন ৭৫০জি প্রসেসর। ৮জিবি র‍্যাম ও ১২৮জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে ফোনটি।

ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই ৫জি - OnePlus Nord CE 5G

 ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই ৫জি এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৪৩ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৫০জি ৫জি
  • র‍্যামঃ ৮জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৬৪মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪৫০০মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই ৫জি এর দামঃ ৩৭,৯৯০টাকা 

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন১০০ – OnePlus Nord N100

২০হাজার টাকার মধ্যে ওয়ানপ্লাস ফোন নিতে চাইলে ওয়ানপ্লাস নর্ড এন১০০ ফোনটি বিবেচনা করতে পারেন। ২০হাজার টাকা দামের ফোন হওয়া স্বত্বেও ফোনটিতে মাত্র ৪জিবি র‍্যাম ও ৬৪জিবি স্টোরেজ রয়েছে, যা এই দামে সম্পূর্ণ বেমানান। দামের তুলনায় অসাধারণ কোনো ফিচার না থাকায় অনেকেই ২০ হাজার টাকা দামে অন্য ব্র‍্যান্ডের ফোন পছন্দ করেন।

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন১০০ - OnePlus Nord N100

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন১০০ এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫২ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৪৬০
  • র‍্যামঃ ৪জিবি
  • স্টোরেজঃ ৬৪জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ১৩মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস নর্ড এন১০০ এর দামঃ ১৯,৯৯০টাকা

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

👉 সুলভ দামে ৫জি মোবাইল এর তালিকা

ওয়ানপ্লাস ৯ 

ওয়ানপ্লাস ৯ ফোনটি দাম বিবেচনায় বেশ অসাধারণ একটি ফোন বলা চলে। ৫০হাজার টাকার মধ্যে স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ এর মত শক্তিশালী প্রসেসরের পাশাপাশি ৪৮মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা দিয়ে ফোনটি বাজেট স্মার্টফোন সেকশনে ভাল ফিচার অফার করছে বলতে হবে।

ওয়ানপ্লাস ৯ 
OnePlus 9 – ওয়ানপ্লাস ৯

 ওয়ানপ্লাস ৯ এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫৫ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮
  • র‍্যামঃ ৮ জিবি / ১২ জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮ জিবি / ২৫৬ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ  ৪৮ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪৫০০ মিলিএম্প

 ওয়ানপ্লাস ৯ এর দামঃ

  •  ৮জিবি র‍্যাম + ১২৮জিবি স্টোরেজঃ ৪৩,০০০টাকা
  • ১২জিবি র‍্যাম + ২৫৬জিবি স্টোরেজঃ ৪৭,০০০টাকা

ওয়ানপ্লাস ৯ প্রো

ওয়ানপ্লাস ৯ প্রো ফোনটিতে রয়েছে ওয়ানপ্লাস ৯ এর ন্যায় একই স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর। ৪৮মেগাপিক্সেল কোয়াড ক্যামেরার ফোন, ওয়ানপ্লাস ৯ প্রো ফোনটি ওয়ানপ্লাস এর ২০২১সালের টপ লেভেল ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন ছিলো।

ওয়ানপ্লাস ৯ প্রো
ওয়ানপ্লাস ৯ প্রো

ওয়ানপ্লাস ৯ প্রো এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৭ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮
  • র‍্যামঃ ৮ জিবি / ১২ জিবি
  • স্টোরেজঃ ২৫৬ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৮ জিবি / ১২ জিবি
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৪৮ মেগাপিক্সেল কোয়াড ক্যামেরা
  • ব্যাটারিঃ ৪৫০০ মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস ৯ প্রো এর দামঃ 

  • ৮জিবি র‍্যাম + ২৫৬জিবি স্টোরেজঃ ৫৯,০০০টাকা
  • ১২জিবি র‍্যাম + ২৫৬জিবি স্টোরেজঃ ৬৩,০০০টাকা 

👉 পোকো মোবাইল এর দাম

ওয়ানপ্লাস ৯আর

ওয়ানপ্লাস ৯আর ফোনটিতে প্রসেসর হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০ প্রসেসর। দামে ওয়ানপ্লাস ৯ এর চেয়ে কিছুটা কম হলেও কোনো ফিচারে ছাড় দেওয়া হয়নি ওয়ানপ্লাস ৯আর এর ক্ষেত্রে। ৪৮মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরার পাশাপাশি সর্বোচ্চ ১২জিবি র‍্যাম ও ২৫৬জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে ওয়ানপ্লাস ৯আর।

ওয়ানপ্লাস ৯আর
OnePlus 9R – ওয়ানপ্লাস ৯আর

ওয়ানপ্লাস ৯আর এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫৫ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০
  • র‍্যামঃ ৮ জিবি / ১২ জিবি
  • স্টোরেজঃ ২৫৬ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৪৮ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪৫০০ মিলিএম্প

 ওয়ানপ্লাস ৯আর এর দামঃ

  • ৮জিবি র‍্যাম + ২৫৬জিবি স্টোরেজঃ ৩৭,৫০০টাকা
  • ১২জিবি র‍্যাম + ২৫৬জিবি স্টোরেজঃ ৪৩,০০০টাকা

ওয়ানপ্লাস ৮ প্রো – OnePlus 8 Pro

ওয়ানপ্লাস ৮ প্রো ফোনটিতে রয়েছে ৪৮মেগাপিক্সেল কোয়াড ক্যামেরা সেটাপ। আবার শক্তিশালী স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে ফোনটিতে, যার কল্যানে অসাধারণ পারফরম্যান্স প্রদানে সক্ষম ওয়ানপ্লাস এর এই আগের টপ লেভেল ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন।

ওয়ানপ্লাস ৮ প্রো - OnePlus 8 Pro

ওয়ানপ্লাস ৮ প্রো এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৭৮ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫
  • র‍্যামঃ ১২জিবি
  • স্টোরেজঃ ২৫৬জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৪৮মেগাপিক্সেল কোয়াড ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪৫১০মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস ৮ প্রো এর দামঃ

  • অফিসিয়ালঃ ৯৪,৯৯০টাকা 
  • আনঅফিসিয়ালঃ ৪৭,৩০০টাকা

ওয়ানপ্লাস ৮ – OnePlus 8

ওয়ানপ্লাস ৮ ফোনটি বর্তমানে দেশের বাজারে আনঅফিসিয়াল বেশ অসাধারণ দামে পাওয়া যাচ্ছে। আনঅফিসিয়াল দাম বিবেচনা করলে ফোনটি অসাধারণ ভ্যালু প্রদান করছে। ৪৮মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা সেটাপের পাশাপাশি ফোনটির শক্তিশালী ৮৬৫ প্রসেসর ফোনটিকে ৩৫থেকে ৪০হাজার টাকা দামের ফোনের তালিকায় অসাধারণ একটি স্মার্টফোনে পরিণত করেছে।

ওয়ানপ্লাস ৮ - OnePlus 8

ওয়ানপ্লাস ৮ এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫৫ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫
  • র‍্যামঃ ৮জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৪৮মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪৩০০মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস ৮ এর দামঃ 

  • অফিসিয়ালঃ ৫৯,৯০০টাকা
  • আনঅফিসিয়ালঃ ৩৫,৫০০টাকা

👉 কম দামে ভালো ফোন

ওয়ানপ্লাস ৭টি প্রো – OnePlus 7T Pro

ওয়ানপ্লাস এর আইকনিক একটি স্মার্টফোন হলো ওয়ানপ্লাস ৭টি প্রো ফোনটি। অসাধারণ ডিজাইনের এই ফোনটিতে রয়েছে শক্তিশালী স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫+ প্রসেসর। এছাড়াও ৪৮মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা সেটাপ রয়েছে ওয়ানপ্লাস ৭টি প্রো ফোনটিতে।

ওয়ানপ্লাস ৭টি প্রো - OnePlus 7T Pro

ওয়ানপ্লাস ৭টি প্রো এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৬৭ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫+
  • র‍্যামঃ ৮জিবি
  • স্টোরেজঃ ২৫৬জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৪৮মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪০৮৫মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস ৭টি প্রো এর দামঃ ৪৭,০০০টাকা 

ওয়ানপ্লাস ৭টি – OnePlus 7T

ওয়ানপ্লাস ৭টি ফোনটির আনঅফিসিয়াল দাম বিবেচনা করলে অসাধারণ একটি ডিল বলা চলে এই ফোনটিকে। স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫+ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে ফোনটিতে। এছাড়াও ৪৮মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা সেটাপ রয়েছে ওয়ানপ্লাস ৭টি ফোনটিতে।

ওয়ানপ্লাস ৭টি - OnePlus 7T

ওয়ানপ্লাস ৭টি এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫৫ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫+
  • র‍্যামঃ ৮জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৪৮মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৩৮০০মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস ৭টি এর দামঃ

  • অফিসিয়ালঃ ৫৪,৯৯০টাকা
  • আনঅফিসিয়ালঃ ৪০,০০০টাকা

ওয়ানপ্লাস ৭ – OnePlus 7

ওয়ানপ্লাস ৭ ফোনটির প্রাণশক্তি স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ প্রসেসরটি বেশ শক্তিশালী একটি চিপসেট। ৪৮মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরার পাশাপাশি ফোনটির অন্যান্য ফিচার খুবই ব্যালেন্সড বলা চলে।

ওয়ানপ্লাস ৭ - OnePlus 7

ওয়ানপ্লাস ৭ এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৬৭ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫
  • র‍্যামঃ ৮জিবি/১২জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮জিবি/২৫৬জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৪৮মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৩৭০০মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস ৭ এর দামঃ

  • ৮জিবি র‍্যাম + ২৫৬জিবি স্টোরেজঃ ৪৮,৫০০টাকা
  • ১২জিবি র‍্যাম + ২৫৬জিবি স্টোরেজঃ ৫২,৫০০টাকা 

ওয়ানপ্লাস ৭ প্রো – OnePlus 7 Pro

এখন পর্যন্ত ওয়ানপ্লাস এর সবচেয়ে জনপ্রিয় ফোন এর নাম বললে, ওয়ানপ্লাস ৭ প্রো ফোনটি এগিয়ে থাকবে। ফোনটির সুন্দর ডিজাইনের পাশাপাশি শক্তিশালী স্পেসিফিকেশন দেখলেই বুঝা যায় ফোনটি কেনো এতো জনপ্রিয়। ফোনটির শোভা আরো বাড়িয়ে তুলেছে পপ-আপ ফ্রন্ট ক্যামেরা।

ওয়ানপ্লাস ৭ প্রো - OnePlus 7 Pro

ওয়ানপ্লাস ৭ প্রো এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৬৭ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫
  • র‍্যামঃ ৬জিবি/৮জিবি/১২জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮জিবি/২৫৬জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ১২মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬মেগাপিক্সেল পপ-আপ ক্যামেরা
  • ব্যাটারিঃ ৪০০০মিলিএম্প

ওয়ানপ্লাস ৭ প্রো এর দামঃ

  • ৬জিবি র‍্যাম + ১২৮জিবি স্টোরেজঃ ৬৮,৯৯০টাকা
  • ৮জিবি র‍্যাম + ২৫৬জিবি স্টোরেজঃ ৭২,৯৯০টাকা
  • ১২জিবি র‍্যাম + ২৫৬জিবি স্টোরেজঃ ৭৯,৯০০টাকা
  • ৮জিবি র‍্যাম + ২৫৬জিবি স্টোরেজ আনঅফিসিয়ালঃ ৪৬,৯৯৯টাকা

আপনার পছন্দের ওয়ানপ্লাস ব্র‍্যান্ডের স্মার্টফোন কোনটি? আপনার পছন্দের ওয়ানপ্লাস ফোন সম্পর্কে আমাদের জানান কমেন্ট সেকশনে।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,561 other subscribers

2 comments

    • আরাফাত বিন সুলতান Reply

      OnePlus Nord N10 5G – About 35000 taka. Thanks.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *