উইন্ডোজ ১০ এস সম্পর্কে যে তথ্যগুলো আপনার জানা দরকার

By -

উইন্ডোজ ১০ এস হচ্ছে মাইক্রোসফটের মূল উইন্ডোজ ১০ অপারেটিং সিস্টেমের থেকে একটু ভিন্নভাবে তৈরি উইন্ডোজ সংস্করণ। এই উইন্ডোজ ১০ এস এর নাম এতদিন ‘উইন্ডোজ ১০ ক্লাউড’ বলে গুজব প্রচলিত ছিল। উইন্ডোজ ১০ এস সময়ের সাথে সাথে স্লো হবেনা। মাইক্রোসফট শিক্ষা ক্ষেত্রে প্রসার ঘটাতে এবং কম খরচে দ্রুততর উইন্ডোজ অভিজ্ঞতা দিতে নতুন এই অপারেটিং সিস্টেম নিয়ে এসেছে। এটি দেখতে উইন্ডোজ ১০ এর অন্য সংস্করণগুলোর মত হলেও ওএস’টিতে বিশেষ কয়েকটি ফিচার চোখে পড়ার মত। চলুন জেনে নিই সেগুলো।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 1,284 other subscribers

সফটওয়্যার

উইন্ডোজ ১০ এসে শুধুমাত্র মাইক্রোসফটের স্টোর থেকে ডাউনলোড করা অ্যাপ্লিকেশনগুলোই চালানো যাবে। অন্যান্য উইন্ডোজ সংস্করণগুলোর সাথে উইন্ডোজ ১০ এস এর এটিই সবথেকে বৃহৎ পার্থক্য। আপনাকে সকল অ্যাপ মাইক্রোসফট স্টোর থেকে ইনস্টল করতে হবে, যার মানে আপনি ওয়েব থেকে অ্যাপস/গেইমস ডাউনলোড করে এতে ব্যবহার করতে পারবেন না। এই পলিসি পরিবর্তনের কোন উপায় নেই। কারণ, এটি এমন করেই তৈরি করা হয়েছে। তবে, আপনি চাইলে উইন্ডোজ ১০ প্রো’তে আপগ্রেড করে ফুল ভার্সন উইন্ডোজের সকল সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন (যেমন বাইরে থেকে সফটওয়্যার ইনস্টল করা)।

চেহারা ও অপারেটিং সিস্টেম

উইন্ডোজ ১০ এস দেখতে এবং অনুভবে অন্য সকল উইন্ডোজ ১০ এর মতই। তবে শুরুতে এর ওয়ালপেপার কিছুটা আলাদাভাবে চোখে পড়বে। এটি প্রতিটি অ্যাপকে আলাদাভাবে ‘কনটেইনারে’ ইনস্টল করে, যা অন্যান্য উইন্ডোজ থেকে আলাদা। এর ফলে অ্যাপ ম্যানেজমেন্ট আরও সুবিধাজনক হয় ওএস’টির জন্য।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

উইন্ডোজ ১০ এসে আপনি মাইক্রোসফট স্টোরের বাইরের কোনো অ্যাপ্লিকেশন ইনস্টল করতে পারবেন না। ফলে আপনার পিসিতে সহজে কোনো ম্যালওয়্যার ইনস্টল হবার সম্ভাবনাও থাকবেনা। কারণ, মাইক্রোসফট স্টোরে মাইক্রোসফট কর্তৃক প্রত্যেকটি অ্যাপ পরীক্ষিত, এজন্য স্টোরের সকল অ্যাপ ভাইরাস বা ম্যালওয়্যারের আশঙ্কা থেকে অনেকটাই মুক্ত।

শুধু স্টোরের অপেক্ষা

বাইরে থেকে .exe ফাইল ইনস্টল করতে না পারলেও মাইক্রোসফট স্টোর থেকে এটি যেকোনো অ্যাপ ইনস্টল করতে পারবে। অর্থাৎ, গুগল যদি স্টোরে ক্রোম দেয়, তাহলে আপনি নিশ্চয়ই তা চালাতে সক্ষম হবেন, বা এডোবি যদি তাদের কোনো ক্রিয়েটিভ স্যুট সফটওয়্যার মাইক্রোসফট স্টোরে প্রকাশ করে তাহলে আপনি সেগুলোও ব্যবহার করতে পারবেন।

ফ্রি, কিন্তু কথা আছে

যেসব কোম্পানি পিসি তৈরি করে, তাদের জন্য উইন্ডোজ ১০ এস বিনামূল্যে সরবরাহ করবে মাইক্রোসফট। তবে ব্যবহারকারীরা চাইলে এটি ডাউনলোড ও ইনস্টল করতে পারবেন না।

মাইক্রোসফট অফিস

আপনি স্টার্ট মেনুতেই পিনড অবস্থায় এমএস ওয়ার্ড, এক্সেল বা পাওয়ারপয়েন্ট পাবেন। সেখানে ক্লিক করলেই এটি ডাউনলোড করতে আপনাকে স্টোরে নিয়ে যাবে। শিক্ষা ক্ষেত্রে যারা উইন্ডোজ ১০ এস পিসি চালাবেন, তারা অফিস ৩৬৫ সাবস্ক্রিপশন ও ওয়ানড্রাইভ ফ্রি পাবেন।

ডিফল্ট ব্রাউজার ও সার্চ ইঞ্জিন

উইন্ডোজ ১০ এসে ডিফল্ট ব্রাউজার থাকবে মাইক্রোসফট এজ, ও ডিফল্ট সার্চ ইঞ্জিন হবে মাইক্রোসফটের বিং। এগুলো আপনি পরিবর্তন করতে পারবেন না।

উইন্ডোজ ১০ প্রো আপগ্রেড

আপনি যদি উইন্ডোজ ১০ এস পিসিতে স্টোরের বাইরে থেকে সফটওয়্যার ইনস্টল করতে চান, অথবা ডিফল্ট ব্রাউজার/সার্চ ইঞ্জিন পরিবর্তন করতে চান, তাহলে আপনি ৪৯ ডলার খরচ করে উইন্ডোজ ১০ প্রো’তে আপগ্রেড করতে পারবেন। তখন সাধারণ উইন্ডোজ ১০ পিসির মতই আপনি এতে কাজ করতে পারবেন।

কেমন লাগলো উইন্ডোজ ১০ এস? আপনি কি এটি ব্যবহার করতে ইচ্ছুক?

প্রযুক্তির সব তথ্য জানতে ভিজিট করুন www.banglatech24.com সাইট। নতুন পোস্টের নোটিফিকেশন ইমেইলে পেতে এই লিংকে গিয়ে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

 

Comments

Leave a Reply