ইউটিউব প্রিমিয়াম কি? এর সুবিধাগুলো জানুন

২০০৫ সালে ইউটিউব চালু হবার পরে ইউটিউব পৃথিবীর সর্ববৃহৎ ভিডিও লাইব্রেরী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে। ইউটিউব এখন শুধুমাত্র বিনোদনের মাধ্যম নয়, বরং শিক্ষা, ব্যবসা, চাকরি ইত্যাদি সকল ক্ষেত্রেই খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি প্ল্যাটফর্ম হয়ে গিয়েছে। ইউটিউবিং আলাদা একটি পেশা হিসেবে স্বীকৃতি পাচ্ছে ফ্রিল্যান্সারদের কাছে, অনেক ক্রিয়েটর ইউটিউবে ভিডিও তৈরির মাধ্যমে আয় করে থাকেন বর্তমানে। বলা যায় ইউটিউব আমাদের ডিজিটাল জীবনের খুব গুরত্বপূর্ণ একটি অংশ হয়ে গিয়েছে।

ইউটিউব প্রথম থেকে এখন পর্যন্ত একটি ফ্রি সেবা হিসেবেই রয়ে গেছে। তবে ইউটিউবে চাইলে আপনি মাসিক বা বাৎসরিক চার্জ দেয়ার মাধ্যমে কিছু বাড়তি সুবিধা পেতে পারেন। আমাদের দেশে আমরা ইউটিউবের প্রিমিয়াম এই সেবা নিয়ে অনেকেই জানিনা। তবে আপনার যদি ইন্টারন্যাশনাল পেমেন্টের জন্য কার্ড থাকে তাহলে এই সেবা আপনি চাইলে কিনে ব্যবহার করতে পারবেন সহজেই। আমরা ইউটিউব প্রিমিয়াম ও এর বাড়তি সুবিধাগুলো নিয়ে বিস্তারিত জানবো এই পোস্টে।

ইউটিউব প্রিমিয়াম কী?

ইউটিউব ফ্রিতেই তাদের ভিডিওগুলো দেখতে দেয়। তবে ইউটিউব তাদের এই ফ্রি সেবা দিতে ভিডিও দেখার মাঝে অ্যাড দিয়ে থাকে আয় করবার জন্য। ইউটিউব তাদের প্রিমিয়াম সেবাও চালু করেছে ২০১৪ সাল হতে। অন্য সকল সাবস্ক্রিপশন সার্ভিসের মতোই ইউটিউবের এই প্রিমিয়াম সেবা কাজ করে। আপনার অ্যাকাউন্টের জন্য আপনি একটি মাসিক বা বাৎসরিক চার্জের বিনিময়ে এই সেবা উপভোগ করতে পারবেন। এই সেবার সঙ্গে সঙ্গে ইউটিউব বাড়তি কিছু ফিচারও দিয়ে থাকে যা আপনি ফ্রি ইউটিউব ব্যবহারে পাবেন না। যেমন: ইউটিউব প্রিমিয়াম ব্যবহার করলে আপনি ভিডিও দেখার সময় কোনধরনের অ্যাড দেখতে পাবেন না। উল্লিখিত সুবিধা যারা উপভোগ করতে চান তাদের জন্যই ইউটিউব প্রিমিয়াম সেবা।

ইউটিউব প্রিমিয়ামের খরচ কত?

অন্য সকল সাবস্ক্রিপশনের মতোই অনলাইনে কার্ড বা অন্যান্য ওয়ালেটের মাধ্যমে ইউটিউবের এই সেবা আপনি নিতে পারবেন। বর্তমানে চার ধরনের সাবস্ক্রিপশন প্ল্যান দিচ্ছে ইউটিউব। এগুলো হলো:

  • ইন্ডিভিজুয়াল মান্থলি
  • ইন্ডিভিজুয়াল অ্যানুয়াল
  • ফ্যামিলি মান্থলি
  • স্টুডেন্ট মান্থলি

ইন্ডিভিজুয়াল মান্থলি প্ল্যানটি শুধুমাত্র একজন ব্যবহারকারীর জন্য। সকল ডিভাইসেই প্রিমিয়াম সেবা উপভোগ করতে পারবেন ৩০ দিনের জন্য ১১.৯৯ ডলারের বিনিময়ে। ৩০ দিন পর পর আপনাকে চার্জ করা হবে। ইন্ডিভিজুয়াল অ্যানুয়াল প্ল্যান একজনের জন্য বাৎসরিক একটি প্ল্যান। এটির মাধ্যমে আপনি পুরো ১২ মাস সকল ডিভাইসে প্রিমিয়াম সেবা উপভোগ করতে পারবেন ১১৯.৯৯ ডলারের বিনিময়ে।

ফ্যামিলি মান্থলি একটি ফ্যামিলি প্ল্যান। আপনার পরিবারের সকল সদস্য যাতে একসঙ্গে তাদের সকল ডিভাইসে প্রিমিয়াম সেবা উপভোগ করতে পারে সেজন্য এই প্ল্যানটি রাখা হয়েছে। আপনি ছাড়াও আরো ৫ জন ফ্যামিলি মেম্বার অ্যাড করতে পারবেন এখানে। প্রতি মাসে এই প্ল্যানের জন্য আপনাকে দিতে হবে ২২.৯৯ ডলার।

স্টুডেন্ট প্ল্যান শুধুমাত্র শিক্ষার্থীদের জন্য। অবশ্যই গুগল এটি যাচাই করবে আইডির মাধ্যমে। এই প্ল্যান প্রতি মাসে শিক্ষার্থীরা খুব অল্প মূল্যে ব্যবহার করতে পারবে। শিক্ষার্থীদের জন্য এই প্ল্যানের মূল্য ৬.৯৯ ডলার প্রতি মাসে।

ইউটিউব প্রিমিয়ামের সুবিধা

ইউটিউব প্রিমিয়াম ব্যবহারে আপনি বেশ কিছু বাড়তি সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন যা আপনার ইউটিউব ব্যবহারকে সহজ ও সমৃদ্ধ করবে। এসব সুবিধা আপনি সাধারণ অ্যাকাউন্টে পাবেন না।

অ্যাড ছাড়া ভিডিও দেখা

নিয়মিত ইউটিউব দেখে থাকলে ইউটিউবে অ্যাড সম্পর্কে আপনার অভিজ্ঞতা থাকার কথা। তবে এই অ্যাডের আয়ের মাধ্যমেই ইউটিউব ইউটিউবারদের পেমেন্ট করে থাকে। প্রিমিয়াম প্ল্যান কিনলে পিসি, মোবাইল, টিভি বা যেখানেই ইউটিউব দেখুন না কেন আপনার অ্যাকাউন্টে লগইন করে নিলেই অ্যাড ছাড়া ইউটিউব দেখতে পারবেন।

তবে ভিডিওর মধ্যে কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের বিভিন্ন ব্র্যান্ডিং ও অ্যাড দেখতে পাবেন যেহেতু এগুলো ভিডিওর অংশ। ইউটিউবাররা এর মাধ্যমে আয় করে থাকেন। তাই তাদের ফ্রি কনটেন্টের জন্য এটুকু মেনে নিতে হবে। তবে ইউটিউব থেকে যেসব অ্যাড দেয়া হয়; সেটা হোক ভিডিও অ্যাড বা ব্যানার, সেগুলো আসবেনা।

ভিডিও ডাউনলোড

প্রিমিয়াম ইউটিউবের অন্যতম একটি সুবিধা আপনি অফলাইনে ভিডিও দেখার জন্য ভিডিও ডাউনলোড করে রাখতে পারবেন ইউটিউব অ্যাপের মধ্যেই। ইউটিউব মিউজিক অ্যাপের মধ্যে আপনি চাইলে আপনার প্রিয় গানগুলো ডাউনলোড করে রাখতে পারেন। স্মার্ট ডাউনলোড ফিচারের মাধ্যমে আপনার শোনা গানগুলো একাই ডাউনলোড হয়ে থাকবে। এসবই ইউটিউব প্রিমিয়াম থাকলে অ্যাপের মধ্যেই অপশনে পেয়ে যাবেন। তবে ফ্রি ইউটিউব একাউন্টেও এর কিছু সুবিধা পেতে পারেন।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

ইউটিউব প্রিমিয়াম কি? এর সুবিধাগুলো জানুন

👉 ইউটিউবের এই নতুন সুবিধাগুলো জানেন তো?

ব্যাকগ্রাউন্ড প্লে

স্মার্টফোনে ইউটিউব অ্যাপ ব্যবহার করে থাকলে জানেন যে সাধারণ ফ্রি ইউটিউবে স্ক্রিন বন্ধ করে দিলে ভিডিও বন্ধ হয়ে যায়। ফলে ইউটিউবের মাধ্যমে সাধারণ অ্যাপের মতো গান শোনা সম্ভব হয় না। ডিসপ্লে চালু থাকলেই শুধু ইউটিউব ভিডিও প্লে করে। তবে আপনি চাইলে ব্যাকগ্রাউন্ডে সকল ভিডিও বা মিউজিক প্লে করতে পারবেন। এজন্য আপনার দরকার হবে ইউটিউব প্রিমিয়াম। এর মাধ্যমে আপনি ইউটিউবকে আপনার গানগুলো সহজেই স্ট্রিম করে উপভোগ করার মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। যে কোনো ভিডিও স্ক্রিন লক রেখেই শুধু অডিও হিসেবে শুনতে পারবেন। এটি বেশ কাজের একটি ফিচার যা শুধু ইউটিউব প্রিমিয়ামের মাধ্যমে পাওয়া যায়।

ইউটিউব মিউজিক প্রিমিয়াম

ইউটিউব মিউজিক প্রিমিয়াম ইউটিউবের আরেকটি সার্ভিস যার মাধ্যমে সহজেই গান শোনা যায়। স্পটিফাইয়ের মতো এটিও একটি মিউজিক স্ট্রিমিং অ্যাপ যা আলাদা সাবস্ক্রিপশন দিয়ে থাকে। তবে ইউটিউব প্রিমিয়ামের সাথে এই অ্যাপের সাবস্ক্রিপশন ফ্রি পেয়ে যাবেন। এই অ্যাপ হতে আপনি সহজেই গান শোনার জন্য কিছু বাড়তি ফিচার পাবেন। যেমন এই অ্যাপ আপনাকে শুধু অডিও মোডে ভিডিও লোড না করেই গান শুনতে দেবে। এতে আপনার ডাটা ও ফোনের চার্জের ব্যবহার কমে আসবে। এছাড়া গান ডাউনলোড করে রাখার সুবিধাও দেয়। ইউটিউব প্রিমিয়ামের সঙ্গে তাই এই অ্যাপ আপনাকে গান শোনার ক্ষেত্রে বেশ সুবিধা এনে দেবে।

কন্টিনিউ ওয়াচিং

আপনি কোনো ভিডিও দেখতে দেখতেই হঠাৎ কোনো কাজে ভিডিও বন্ধ করে চলে গেলেন। পরবর্তীতে ভিডিওটি আবার দেখতে চাইলে আপনাকে ঐ ভিডিওর প্রথম থেকে পুনরায় টেনে আগের অবস্থানে এনে দেখতে হয়। তবে আপনি প্রিমিয়াম সাবস্ক্রিপশনের মাধ্যমে যে কোনো ভিডিওর মাঝপথে থেমে গেলেও সেখান থেকেই আবার দেখা শুরু করার সুবিধা পাবেন। ফলে আপনাকে কষ্ট করে মনে করতে হবে না যে আপনি ভিডিওর কোথায় থেমেছিলেন। এই সুবিধা ব্রাউজারের মাধ্যমে ফ্রিতে পাওয়া গেলেও মোবাইল অ্যাপ হতে এই সুবিধা পেতে চাইলে প্রিমিয়াম সাবস্ক্রিপশনের দরকার হবে।

👉 ইউটিউব ব্র্যান্ড একাউন্ট কি? সুবিধা ও তৈরির নিয়ম জানুন

লিসেনিং কন্ট্রোল ফিচারের মাধ্যমে ইচ্ছামতো ভিডিও দেখা

ইউটিউব প্রিমিয়ামের বিশেষ ফিচার লিসেনিং কন্ট্রোল। এই ফিচারের মাধ্যমে কোনো ভিডিও আপনি চাইলে দ্রুত চালাতে পারেন, পরের ভিডিওতে সহজে চলে যেতে পারেন বা নিজের ইচ্ছামতো ভিডিও টেনে নিতে পারেন। এই সুবিধা শুধুমাত্র প্রিমিয়াম ফিচার হিসেবেই দিয়ে থাকে ইউটিউব। শুধুমাত্র স্মার্টফোন ও ট্যাবলেটের জন্যই এই সুবিধা আছে আপাতত। পিসিতে এখনও এই সুবিধা দিচ্ছে না ইউটিউব।

পিকচার ইন পিকচার (পিপ)

পিকচার ইন পিকচার খুবই কাজের একটি ফিচার যা বিভিন্ন প্লেয়ার অ্যাপে থাকে। এই ফিচারের মাধ্যমে ভিডিও ফ্রেম ছোট হয়ে ডিসপ্লের কোনো এক অবস্থানে থেকে সহজেই আপনাকে অন্য কাজ করতে দেয়। ফলে যারা মালটিটাস্কিং করে থাকেন তাদের জন্য এটি খুব দরকারী। স্মার্টফোনে এই ফিচারটি ইউটিউব অ্যাপে পেতে হলে দরকার হবে ইউটিউব প্রিমিয়াম। তবে বিভিন্ন ফোনে এই ফিচার এমনি থাকলেও মিউজিক ভিডিও বা অন্যান্য আরো কিছু ভিডিওতেও এই ফিচার পেতে ইউটিউব প্রিমিয়াম দরকার হবে।

অন্যান্য সুবিধা

এছাড়াও আরো বেশ কিছু বাড়তি সুবিধা দিয়ে থাকে ইউটিউব প্রিমিয়াম। যেমন সাপোর্ট সেবা পেতে লাইভ চ্যাট সুবিধা, স্মার্ট ডিভাইসের সাথে ইন্টিগ্রেশন, গুগল মিটের মাধ্যমে এক সাথে ভিডিও দেখা, নতুন বিভিন্ন ফিচার আগে আগে পাওয়া ইত্যাদি। এই বিভিন্ন সেবাগুলো ছাড়াও ভবিষ্যতে আরও বিভিন্ন সেবা যুক্ত হতে পারে ইউটিউব প্রিমিয়ামের সঙ্গে।

👉 ইউটিউব থেকে আয় করার উপায়

যেসব দেশে ইউটিউব প্রিমিয়াম উপলভ্য আছে তারা এই লিংক থেকে সেবাটি কিনতে পারবেন। এ সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টে জানান!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,832 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.