সেরা কিছু ইয়ারফোন সম্পর্কে জেনে নিন (সাধ্যের মধ্যে)

দেশের বাজারে বিভিন্ন দামের অনেক ব্রান্ডের ইয়ারফোন রয়েছে। কিন্তু এতোসব ইয়ারফোনের ভিড়ে সেরা ইয়ারফোন খুঁজে পাওয়াটা বেশ মুশকিল। দাম দিয়ে ইয়ারফোন কিনেও অনেক সময় ভালো ইয়ারফোন পাওয়া যায়না অভিজ্ঞতার অভাবে। এই পোস্টে তাই আমরা খুঁজে বের করেছি দেশের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে এমন সেরা কিছু ইয়ারফোন যেগুলো সাধ্যের মধ্যেই কিনতে পারবেন যেকেউ।

এখানে উল্লেখিত ইয়ারফোনগুলোর কোয়ালিটি ভাল মানের, তাই আমরা শুধুমাত্র ৩০০টাকার উপরের দামের ইয়ারফোনগুলোকে তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করেছি। আবার পোস্টে উল্লেখিত ইয়ারফোনগুলোর নির্দিষ্ট দাম উল্লেখ করা হয়নি কারণ স্থানভেদে ইয়ারফোনগুলো বিভিন্ন দামে বিক্রি করা হয়ে থাকে।

UiiSii HM 13

আমাদের তালিকার প্রথম ইয়ারফোন হলো উসি এইচএম১৩। এই ইন-ইয়ার ইয়ারফোনটি দেখতে বেশ সাধারণ হলেও এর সাউন্ড দাম বিবেচনায় বেশ অসাধারণ। প্লাস্টিক ওয়্যার এর এই ইয়ারফোনের ইয়ারবাড আবার মেটালের, এছাড়া ইয়ারফোনটি পরে অস্বস্তিও লাগেনা। যারা ব্যালেন্সড সাউন্ড শুনতে পছন্দ করেন, তাদের নিঃসন্দেহে এই ইয়ারফোন পছন্দ হবে। উসি এইচএম১৩ ইয়ারফোনটিতে একটি মাইকও রয়েছে। ইয়ারফোনটি দেশের বাজারে পেয়ে যাবেন ৩০০ থেকে ৪০০ টাকার মধ্যে।

QKZ DM 10

বাংলাদেশের ইয়ারফোনের বাজারে কিউকেজেড এর ডিএম১০ ইয়ারফোন বেশ জনপ্রিয়। এই ইয়ারফোনটি জনপ্রিয় হওয়ার অনেক কারণ রয়েছে। প্রথমত বেশ কম দামে বেশ ভালো মানের ব্যাস প্রদান করে ইয়ারফোনটি। আবার মেটাল বিল্ডের ইয়ারফোনটি দেখতেও বেশ প্রিমিয়াম লাগে। ৩.৫মিমি হেডফোন জ্যাক মডেলের পাশাপাশি একটি টাইপ-সি সংস্করণও রয়েছে ইয়ারফোনটির। এই ইয়ারফোনটি দেশের বাজারে ৫০০টাকার মধ্যে পেয়ে যাবেন।

Plexton X56M

প্লেক্সটন এর এক্স৫৬এম ইয়ারফোনটি রয়েছে সেরা ইয়ারফোনের তালিকায়। এই টাইপ-সি ইয়ারফোনটি দেখতে বেশ সাধাসিধে হলেও এর সাউন্ড কোয়ালিটি বেশ অসাধারণ। বিশেষ করে যারা অডিওফাইল আছেন, তাদের এই ইয়ারফোনের সাউন্ড সিগনেচার অবশ্য পছন্দ হবে। ওজনে বেশ হালকা এই ইয়ারফোনে ইন-লাইন মাইকও পেয়ে যাবেন। এছাড়া একাধিক কালার বেছে নেওয়ার সুযোগ দিচ্ছে ইয়ারফোনটি। দেশের বাজারে প্লেক্সটন এক্স৫৬এম ইয়ারফোনটি ৬০০টাকার মধ্যে পেয়ে যাবেন।

Rivo EP 103

রিভো ইপি-১০৩ ইয়ারফোনটি বেশ ব্যালেন্সড সাউন্ড কোয়ালিটি প্রদান করে ও সাউন্ডকে কোনোভাবেই অতিরঞ্জিত করার চেষ্টা করেনা। আবার এই ইয়ারফোন লম্বা সময় ধরে পরে থাকলেও কোনো ধরনের অস্বস্তি অনুভূত হয়না। রিভো ইপি-১০৩ এর সাথে একটি ইন-লাইন মাইক্রোফোনও পেয়ে যাবেন। দেশের বাজারে ৪০০টাকার মধ্যে ইয়ারফোনটি পেয়ে যাবেন।

AWEI Z2

AWEI Z2 ইয়ারফোনটি দেশের বাজারে পেয়ে যাবেন ৮০০টাকার মধ্যে। বেশ ভালো বিল্ডের এই ইয়ারফোনে L শেপের হেডফোন জ্যাক রয়েছে। মেটাল-বিল্ট এই ইয়ারফোনে ১০মিমি ড্রাইভার রয়েছে যা বেশ ব্যাসযুক্ত সাউন্ড আউটপুট প্রদান করে। এছাড়া এই ইয়ারফোনে ম্যাগনেটিক ইয়ারবাড থাকায় সারাদিন যারা ইয়ারফোন ব্যবহার করেন তাদের কাছে বেশ সুবিধার মনে হবে।

Xiaomi Mi Dual Driver

সেরা কিছু ইয়ারফোন সম্পর্কে জেনে নিন (সাধ্যের মধ্যে)

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

নাম শুনে বুঝে থাকবেন মি ডুয়াল ড্রাইভার ইয়ারফোনের বিশেষত্ব হলো এর ডুয়াল ড্রাইভার। এই ইয়ারফোনে ১০মিমি ও ৮মিমি ডুয়াল ডায়নামিক ড্রাইভার রয়েছে। বেশ ভালো ব্যাস পেয়ে যাবেন ইয়ারফোনটিতে। ইয়ারফোনে ম্যাগনেটিক সাকশন ডিজাইন থাকায় এর স্টোরেজ প্রসেস বেশ অসাধারণ। মেটাল-বিল্ট এর ইয়ারফোনটিতে L শেপ এর হেডফোন জ্যাক রয়েছে। দেশের বাজারে শাওমি মি ডুয়াল ড্রাইভার ইয়ারফোনটি পেয়ে যাবেন ৫০০ থেকে ৬০০ টাকার মধ্যে।

OnePlus Type-C Bullets 2T

ওয়ানপ্লাস এর ওয়ানপ্লাস টাইপ-সি বুলেটস ২টি ইয়ারফোনটি দেশের বাজারে দেড় হাজার টাকার আশেপাশে দামে পাওয়া যাবে। এই ইয়ারফোনটিতে কপার-ক্ল্যাড এলুমিনিয়াম বিল্ড রয়েছে যা এই দামে ভালই বলা যায়। এছাড়াও লম্বা সময় ধরে ব্যবহারের জন্যও এই ইয়ারফোন বেশ সুবিধার। পেয়ে যাবেন ইন-লাইন মাইক্রোফোনও। অডিও কোয়ালিটির দিক দিয়েও বেশ অসাধারণ ওয়ানপ্লাস এর এই ইয়ারফোন।

👉 সারাক্ষণ ইয়ারফোন কানে দেয়ার ক্ষতিকর প্রভাবগুলো জানুন

KZ ZSN Pro

দেশের বাজারে দেড় হাজার টাকার আশেপাশে সবচেয়ে জনপ্রিয় ইয়ারফোন হলো কেজি জিএসএন প্রো। ডিটাচেবল ক্যাবল এর এই ইয়ারফোন বেশ অসাধারণ সাউন্ড কোয়ালিটির পাশাপাশি বিল্ড-কোয়ালিটির জন্যও বেশ সুপরিচিত। স্পোর্টস থেকে শুরু করে গেমিং পর্যন্ত, যেকোনো ধরনের প্রয়োজনে বেশ সাবলিল অভিজ্ঞতা প্রদান করে এই ইয়ারফোন।

KZ HD9

কিজি এর এইচডি৯ ইয়ারফোনটিও সেরা ইয়ারফোন এর তালিকায় স্থান করে নিয়েছে। ৬০০টাকার আশেপাশে দেশের বাজারে এই ইয়ারফোনটি পেয়ে যাবেন। প্রিমিয়াম সাউন্ডের এই ইয়ারফোনটি বেশ সাধারণ হলেও এর বিল্ড কোয়ালিটির দারুণ বলা চলে। এছাড়া হেডফোন প্লাস L শেপ এর হওয়ায় নষ্ট হয়ার সম্ভাবনাও থাকেনা তেমন। তালিকার অন্যান্য ইয়ারফোনের মত এই ইয়ারফোনেও ইন-লাইন মাইক্রোফোন রয়েছে।

উল্লেখিত সকল প্রোডাক্টের নকল সংস্করণে পূর্ণ দেশের বাজার, তাই কেনার সময় অবশ্যই বিশ্বস্ত বিক্রেতা থেকে কিনবেন। আপনার পছন্দের ইয়ারফোন সম্পর্কে শেয়ার করতে পারেন কমেন্ট সেকশনে।

👉 ভিডিওঃ উড়োজাহাজ নিয়ে অবিশ্বাস্য কিছু তথ্য জানুন

👉 আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করে সাথেই থাকুন। এখানে ক্লিক করে সাবস্ক্রিপশন কনফার্ম করুন!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,612 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.