ফেসবুকে আপনাকে কেউ আনফ্রেন্ড করলে যেভাবে বুঝবেন

ফেসবুক আজকের দিনের সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম। ফেসবুকে বন্ধুবান্ধব কিংবা আত্মীয়স্বজনদের সাথে খুব সহজেই যুক্ত থাকা যায়। ফেসবুকে অন্য ব্যক্তির কাছ থেকে আপডেট পাওয়ার সবচেয়ে ভালো উপায় হলো তার সাথে যুক্ত থাকা। আর এই যুক্ত থাকাকে ফেসবুকের ভাষায় বলা হয় “ফ্রেন্ডশিপ”। ফেসবুকে আপনার প্রোফাইলে যে-ই যুক্ত হোন না কেন, সে আপনার একজন “ফেসবুক ফ্রেন্ড” হিসেবে যুক্ত হয়ে থাকেন।

আজকালকার বাস্তব জীবনের বন্ধুদের বাইরেও অনেককেই ফেসবুকে “বন্ধু” বানানো হয়ে থাকে। ফেসবুকে কেউ আপনাকে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট দিলে কিংবা আপনার পাঠানো ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট কেউ একসেপ্ট করলে আপনাকে তা নোটিফিকেশনের মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হয়। তবে কেউ যদি আপনাকে কোনও কারণে ফেসবুক বন্ধু তালিকা থেকে বাদ দিয়ে দেয়, অর্থাৎ আপনাকে আনফ্রেন্ড করে দেয় তাহলে আপনি কোনও নোটিফিকেশন পাবেন না।

অবশ্য ফেসবুকের এই ফিচারটি না রাখার পেছনে অনেক যৌক্তিক কারণ রয়েছে। সে যাই হোক না কেন, ফেসবুকে আনফ্রেন্ড করার খবর সরাসরি না জানতে পারলেও কিছু সাধারণ পদ্ধতি ব্যবহার করে খুব সহজেই বুঝা সম্ভব যে কে আপনাকে আনফ্রেন্ড করেছে। আজকের এই আর্টিকেলে এমনই কিছু পদ্ধতির কথা বলা হয়েছে।

আর হ্যাঁ, শুরু করার আগে বিশেষ একটি সতর্কবার্তা দিয়ে রাখি। অনেকসময় নেট ব্রাউজের সময় বিজ্ঞাপন পেতে পারেন যে অমুক অ্যাপ কিংবা অমুক এক্সটেনশন ব্যবহার করে ফেসবুকে আপনাকে কে আনফ্রেন্ড করেছে তা দেখতে পাবেন। ভুলেও এসব অ্যাপ ব্যবহার করবেন না। কারণ এগুলো ব্যবহারে আপনার একাউন্ট এর ব্যক্তিগত তথ্য বেহাত হতে পারে, একাউন্ট ব্লক হতে পারে, এমনকি ফেসবুক একাউন্ট হ্যাকও হয়ে যেতে পারে।

কয়েকটি কৌশল অবলম্বন করে সহজেই বুঝতে পারবেন ফেসবুকে আপনাকে কেউ আনফ্রেন্ড করেছে কি না। এখানে দেখে নিন।




পোস্ট অডিয়েন্স খেয়াল করা

ফেসবুকে প্রধানত দুইভাবে পোস্ট দেয়া যায়। একটি হলো পাবলিক আর অন্যটি হলো ফ্রেন্ডস। পাবলিক পোস্ট আপনি কারো ফ্রেন্ড না হলেও দেখতে পারবেন। তাই আপনি যদি বেশ কিছুদিন যাবত নিউজফিডে কারো পাবলিক পোস্টই শুধু দেখতে পান তাহলে আপনার বুঝা উচিত সে হয়তো আপনাকে আনফ্রেন্ড করেছে। অবশ্য এ পদ্ধতি শতভাগ সঠিক নয়, কারণ অনেক মানুষ আছে যারা সব পোস্টই পাবলিক করে শেয়ার করে।

ফ্রেন্ডলিস্ট সার্চ করা

আপনি যখন ধারনা করে ফেলবেন যে অমুক বন্ধু হয়তো আপনাকে আনফ্রেন্ড করেছে, তখন নিশ্চিত হওয়ার জন্য আপনি আপনার ফেসবুক ফ্রেন্ডলিস্ট সার্চ করতে পারেন। এজন্য আপনি আপনার প্রোফাইল থেকে ফ্রেন্ডস অপশনে গিয়ে আপনার ফ্রেন্ডলিস্ট বের করবেন। এরপর সেখানে থাকা সার্চ বারে ঐ বন্ধুর নামের অংশ লিখলে যদি কোন রেজাল্ট না দেখায় তখন বুঝবেন সে আপনাকে আনফ্রেন্ড করেছে।

প্রোফাইলে গিয়ে দেখা




এটাই সবচেয়ে কার্যকর পদ্ধতি। আপনি আপনার সন্দেহভাজন আনফ্রেন্ডকারীর পুরো নাম সার্চ দিয়ে ফেসবুক থেকে তার প্রোফাইলে যাবেন। যদি সে আপনাকে আনফ্রেন্ড করে দিয়ে থাকে তাহলে আপনি তার নামের পাশে “অ্যাড ফ্রেন্ড” অপশন দেখতে পাবেন। তবে কেউ যদি আপনাকে ব্লক করে দেয়, তাহলে আপনি আপনার সেই ব্লক খাওয়া একাউন্টে লগইন থাকা অবস্থায় তার প্রোফাইলও দেখতে পারবেন না।

আরও পড়ুনঃ ফেসবুকে আসছে বড় ৫ পরিবর্তন

অনেকসময় ভুল করে আনফ্রেন্ড হয়ে যেতে পারে। তাই কেউ আনফ্রেন্ড করে দিলে আগে তার সাথে আপনার সম্পর্কের ব্যাপারটা আবার ভেবে দেখুন। যদি মনে হয় যে আনফ্রেন্ড করার মত কিছু আপনাদের মাঝে ঘটেনি তাহলে আপনি তার সাথে খোলাখুলি কথা বলে দেখুন যে আপনাকে ভুল করেই আনফ্রেন্ড করা হয়েছে কি না। এছাড়া পরিচিত কাউকে একান্তই দরকার না পড়লে আনফ্রেন্ড না করাই ভালো। কারো পোস্ট দেখে বিরক্ত লাগলে “আনফলো” কিংবা “স্নুজ” অপশনগুলোও ট্রাই করে দেখতে পারেন।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 3,432 other subscribers

Comments