মাইক্রোসফট কর্মী বাধ্য হয়ে গুগল ক্রোম ব্যবহার করলেন!

By -

মাইক্রোসফট তাদের উইন্ডোজ ১০ এর আগমনের সাথে সাথে বহুল আলোচিত-সমালোচিত ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার ব্রাউজারকে অফিসিয়ালি বিদায় জানিয়ে বাজারে এনেছিল নতুন ব্রাউজার, যার নাম মাইক্রোসফট এজ। এটি ইন্টারনেট এক্সপ্লোরারের চেয়ে বেশি ফিচার ও স্পিড উপহার দেয়, একথা সত্যি। কিন্তু গুগল ক্রোমের জনপ্রিয়তায় ভাগ বসানোর মত যথেষ্ট শক্তি কি আছে মাইক্রোসফট এজ ব্রাউজারে? বিশেষজ্ঞরা যা’ই বলুন, সম্প্রতি এজ ব্রাউজারের কারণে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েছিলেন স্বয়ং এক মাইক্রোসফট কর্মকর্তা।

মাইক্রোসফটের ক্লাউড কম্পিউটিং সার্ভিস আজুর এর টিম মেম্বার মাইকেল লিওর্দি এক অফিসিয়াল প্রেজেন্টেশন চলাকালে এজ ব্রাউজারে কিছু একটা দেখাচ্ছিলেন। কিন্তু হঠাত করেই অকেজো হয়ে পড়ছিল এজ। এভাবে কয়েকবার ব্রাউজার ক্র্যাশ করার পর মাইকেল উপস্থিত সবার সামনে বললেন “ডেমো অকেজো হয়ে পড়াটা আমি ভালোবাসি”। যদিও তিনি একেবারেই ঘটনাটি পছন্দ করছিলেন না।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 2,129 other subscribers

এরপরও এজ ব্রাউজার কাঙ্ক্ষিতভাবে কাজ না করলে তিনি গুগল ক্রোম ইনস্টল করেন। সেসময় দর্শকরা হেসে ওঠেন এবং করতালি দেন।

ক্রোম ইনস্টল করার সময় সফটওয়্যারটি ঐচ্ছিক একটি অপশন দেখায় যেটি মার্ক করলে ক্রোম এর এরর লগ গুগলের কাছে সেন্ড করে। লেখা থাকে “গুগলকে আরও ভাল করতে সাহায্য করুন”।

কিন্তু, ঐ মাইক্রোসফট কর্মী তখন হাসতে হাসতে বলেন, “… এবং আমরা গুগলকে আরও ভাল করতে সাহায্য করছি না (করব না)”। অর্থাৎ, তিনি সেই বক্সটি আনমার্ক করে দেন।

মাইক্রোসফটের সহপ্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস তার পরিবারে আগে শুধুই মাইক্রোসফটের পণ্য ব্যবহার করতেন– মানে প্রতিযোগী কোম্পানির পণ্য তারা ব্যবহার করতেন না। অ্যাপল তো নয়ই!

তবে এখন বিল গেটস এন্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করছেন যেটি মাইক্রোসফটের তৈরি না। এছাড়া বর্তমান মাইক্রোসফট সিইও সত্য নাদেলাকেও একবার আইফোন হাতে দেখা গিয়েছিল

     
প্রযুক্তির সব তথ্য জানতে ভিজিট করুন www.banglatech24.com সাইট। নতুন পোস্টের নোটিফিকেশন ইমেইলে পেতে এই লিংকে গিয়ে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Comments