আইফোন ১৪ সিরিজের যেসব ফিচার এন্ড্রয়েডে আগে থেকেই আছে

এই কয়দিন আগেই মুক্তি পেলো আইফোন ১৪ সিরিজ। আইফোন ১৪ লাইন-আপ এর সাথে মুক্তি পেয়েছে নতুন অপারেটিং সিস্টেম, আইওএস ১৬। নতুন এই সংস্করণে অনেক কাজের ফিচার ও পরিবর্তন রয়েছে। আবার অনেক ফিচার নতুন আইফোনের পাশাপাশি আগের মডেলগুলোতে আসতে যাচ্ছে।

তবে আইফোনের জন্য নতুন হলেও এসব ফিচার কিন্তু স্মার্টফোন এর একদম নতুন কোনো ফিচার নয়। অ্যান্ড্রয়েড প্রেমীরা এই পোস্টটি বেশ পছন্দ করবেন। কেননা এই পোস্টে আমরা আইফোন এর জন্য এমন কিছু নতুন ফিচার সম্পর্কে জানবো যেগুলো ইতিমধ্যে অ্যান্ড্রয়েড ফোনগুলোতে বিদ্যমান রয়েছে।

অলওয়েজ-অন ডিসপ্লে

অনেক লম্বা সময় ধরে অপেক্ষার পর অবশেষে সম্প্রতি ঘটে যাওয়া অ্যাপল ইভেন্টে অলওয়েজ-অন ডিসপ্লে ফিচারটি ঘোষণা করে অ্যাপল। অলওয়েজ-অন ডিসপ্লে ফিচারটি আপাতত আইফোন ১৪ প্রো ও আইফোন ১৪ প্রো ম্যাক্সে দেখা যাবে। যারা জানেন না তাদের জন্য বলে রাখি অলওয়েজ-অন ডিসপ্লে হলো একটি ফিচার যা ফোন স্লিপ মোডে যাওয়ার পর সময় ও উইজেটস শো করে। অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ ৫ থেকে এই ফিচার থাকলেও আইফোনে বেশ দেরি করেই এই ফিচার এলো।

এদিকে অ্যান্ড্রয়েড ফোনের দুনিয়ায় এই ফিচার আছে প্রায় অনেক বছর ধরে। অ্যাপল এর এই নতুন ফিচার অনেক কাস্টমাইজেশনে ভরপুর, তবে শুধুমাত্র নতুন প্রো আইফোন মডেলগুলোতেই এর কিছু কিছু ফিচারের অস্তিত্ব রয়েছে। অন্যদিকে অ্যান্ড্রয়েড এর জগতে ২০হাজার টাকার ফোনেই পাওয়া যায় অলওয়েজ-অন ডিসপ্লে ফিচার।

ফিটনেস অ্যাপ

ফিটনেস পরিমাপ করতে অ্যাপল ওয়াচ বেশ জনপ্রিয়। তবে এতোদিন আইফোন ব্যবহারকারীগণ অ্যাপল ওয়াচ ছাড়া ফিটনেস প্লাস অ্যাপ ব্যবহার করতে পারতো না। অবশেষে অ্যাপল ওয়াচ ছাড়া ফিটনেস প্লাস অ্যাপের সুবিধা নিয়ে এসেছে অ্যাপল। এদিকে অ্যান্ড্রয়েডের ক্ষেত্রে প্রথমত গুগল এর ফিট অ্যাপ সকল অ্যান্ড্রয়েড ফোনে ব্যবহারযোগ্য। আবার স্যামসাং এর মত অনেক ম্যানুফ্যাকচারার তাদের ফোনে হেলথ বা ফিটনেস অ্যাপ প্রদান করে থাকে।

লক স্ক্রিন উইজেটস

আইওএস ১৬ এর হাত ধরে অবশেষে আইফোনের লকস্ক্রিনে চারটি পর্যন্ত উইজেট এড করার সুযোগ এসেছে। এদিকে অ্যান্ড্রয়েড লক স্ক্রিন উইজেটস ফিচার প্রদান করেছে সেই অ্যান্ড্রয়েড ৪.২ এর সময় থেকে, যা প্রায় বছর দশেক আগের কথা। এছাড়া বিভিন্ন ম্যানুফ্যাকচারার তাদের ফোনের জন্য এক্সক্লুসিভ লক স্ক্রিন উইজেটস ও কাস্টমাইজেশন সুবিধা প্রদান করে থাকে। তবে এটা বলা যায় যে অ্যাপল এই ফিচারের উপর বেশ ভালোভাবে কাজ করার পর তবেই এই ফিচার সকলের জন্য উন্মুক্ত করেছে যা প্রশংসাযোগ্য।

ক্র‍্যাশ ডিটেকশন

৭ সেপ্টেম্বর হয়ে যাওয়া অ্যাপল ইভেন্টে অ্যাপল ক্র‍্যাশ ডিটেকশন ফিচার ঘোষণা করে। এই ফিচারটি মূলত সড়ক দুর্ঘটনার পরিস্থিতিতে কাজে আসবে। আইফোন ১৪ সিরিজের পাশাপাশি অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ ৮ এও এই ফিচার রয়েছে। এর মাধ্যমে গাড়িতে দুর্ঘটনা হলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে এমার্জেন্সি নম্বরে কল চলে যাবে। এদিকে অ্যান্ড্রয়েড দুনিয়াতে পিক্সেল ফোনে এই ফিচারটি রয়েছে, যা বিল্ট-ইন পার্সোনাল সেফটি অ্যাপে ২০১৯ সালে যুক্ত করে গুগল।

হাই-মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সেন্সর

বেশ অনেকবছর ধরে অ্যান্ড্রয়েড দুনিয়ায় হাই-মেগাপিক্সেল ক্যামেরা নিয়ে এক ধরনের ট্রেন্ড চলে আসছে। এদিকে এই পুরোটা সময় অ্যাপল ব্যাস্ত ছিলো তাদের হাই-মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ফিচারকে সেরা করার কাজে। যেখানে স্যামসাং ও গুগল এর মত কোম্পানি তাদের ফোনগুলোতে হাই-মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ব্যবহারের প্রচলন শুরু করে দিয়েছে, সেখানে এতোদিন পর অ্যাপল তাদের আইফোনের জন্য হাই-মেগাপিক্সেল ক্যামেরা নিয়ে আসলো।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

লাইভ ক্যাপশনস

লাইভ ক্যাপশনস ফিচার যুক্ত হয়েছে আইওএস ১৬ তে যার মাধ্যমে ভিডিও, অডিও এবং কনভার্সেশনে রিয়েল-টাইম ট্রান্সক্রিপশন ফিচার চলে এলো। এদিকে অ্যান্ড্রয়েড এর লাইভ ক্যাপশনস ফিচার প্রথম চালু হয় ২০১৯সালে।

ম্যাপে একাধিক স্টপ

অ্যাপল ম্যাপসে ন্যাভিগেট করার সময় ম্যাপিং স্টপ সেট করার ফিচার এসেছে যাতে একই পথে ফিরে যেতে সুবিধা হয়। এদিকে গুগল ম্যাপসে এই ফিচার আছে সেই ২০১৭সাল থেকেই। প্রথম যখন অ্যাপল ম্যাপস মুক্তি পায় তখন এটি তেমন সুবিধার ছিলোনা। তবে অবশেষে অ্যাপল ম্যাপস এই ফিচারসহ অন্য পরিবর্তন ও সংযোজন এর মাধ্যমে আরো উন্নত হচ্ছে।

ইমেইল

আইওএস ১৬ তে ইমেইল পাঠানোর পর আনডু বা শিডিউল করার মত প্রয়োজনীয় ফিচার অবশেষ এসে পৌছেছে ইমেইল অ্যাপে। এদিকে অ্যান্ড্রয়েড এর জিমেইল অ্যাপে এসব ফিচার আছে বেশ অনেক আগেই। 👉 ইমেইল সেন্ড করার পর তা প্রত্যাহার/আনডু করুন জিমেইলে!

👉 জিমেইল এর দারুণ কিছু ফিচার যা আপনার কাজে লাগবে

হ্যাপটিক ফিডব্যাক

ফোনে টাইপ করার সময় ট্যাপ করার সময় ফিডব্যাক আসেনা বলে ফোনে টাইপিং করে তেমন মজা নেই। প্রত্যেক ফোনে অন-স্ক্রিন কিবোর্ড ব্যবহার করলে মেকানিক্যাল কিবোর্ড এর মত ফিডব্যাক প্রদান করেনা। টাইপিং এক্সপেরিয়েন্স করতে আইওএস ১৬ তে অন-স্ক্রিন কিবোর্ডে হ্যাপটিক ফিফব্যাক যোগ করে অ্যাপল। এদিকে অ্যান্ড্রয়েডে এই ফিচার আছে বেশ অনেকদিন হলো। তবে সত্যি বলতে এই সফটওয়্যার-ভিত্তিক ফিচার তেমন একটা কাজের নয় অধিকাংশ অ্যান্ড্রয়েড ফোনের ক্ষেত্রে। 

শেয়ারড লাইব্রেরিস

আইক্লাউড শেয়ারড ফটো লাইব্রেরি ফিচারের মাধ্যমে আইওএস ১৬ চালিত ডিভাইসে শেয়ারড ফটো লাইব্রেরি তৈরী করা যাবে। এই ফিচার ব্যবহার করা যাবে ছবির তারিখ বা ছবিতে থাকা ব্যাক্তির উপর ভিত্তি করে। সর্বোচ্চ ৫জন ব্যাক্তির সাথে ফটো লাইব্রেরি শেয়ার করা যায়। অ্যান্ড্রয়েডে গুগল ফটোস ব্যবহার করে একই কাজ করা যাবে।

👉 আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করে সাথেই থাকুন। এখানে ক্লিক করে সাবস্ক্রিপশন কনফার্ম করুন!

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,562 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *