৪.৭ বিলিয়ন ডলারে বিক্রি হতে পারে ব্ল্যাকবেরি

অবশেষে বিক্রি হওয়ার কথা ভাবছে অস্তিত্বের সংগ্রামে ক্লান্ত স্মার্টফোন নির্মাতা ব্ল্যাকবেরি। কানাডিয়ান এই প্রতিষ্ঠানটি ফেয়ারফ্যাক্স ফিন্যান্সিয়াল কনসোর্টিয়ামের নিকট ৪.৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বিনিময়ে বিক্রি হওয়ার ব্যাপারে রাজী হয়েছে।

ব্ল্যাকবেরি কর্তৃক ইস্যুকৃত এক স্টেটমেন্টে কোম্পানিটি বলেছে, তাদের বৃহত্তম স্টকহোল্ডার ফেয়ারফ্যাক্স কানাডিয়ান ফার্মটি কিনে নেয়ার জন্য শেয়ারপ্রতি ৯ ডলার অফার করেছে। অবশ্য, সিক্যুরড টেলিকম সেবাদাতা এই প্রতিষ্ঠান বলছে, তারা ফেয়ারফ্যাক্সের পাশাপাশি অন্যান্য বিকল্পও বিবেচনা করবে। এমনিতে ব্ল্যাকবেরির ১০% শেয়ারের মালিক ছিল টরন্টো ভিত্তিক ফিনান্সিয়াল প্রতিষ্ঠানটি।

১০০ বিলিয়ন ডলার মূল্যের ব্ল্যাকবেরি এখন মাত্র ৪.৭ বিলিয়ন

এই খবর প্রকাশের পর পরই ব্ল্যাকবেরির শেয়ারমূল্য ১ শতাংশের বেশি (৮.২৩ ডলার/স্টক) বৃদ্ধি পায়। এর আগে, শুক্রবারে কোম্পানিটির ৪৫০০ কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা আসার পর শেয়ার মূল্য ১৭% কমে গিয়েছিল।

ব্ল্যাকবেরি জানিয়েছে, সর্বশেষ প্রান্তিকের আর্থিক ফলাফলে কোম্পানিটি প্রায় ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার লোকসানের সম্মুখীন হতে পারে। আর তারা আগস্টেই জানিয়েছিল যে, কোম্পানি বিক্রি করে দেয়ার কথা ভাবছে ব্ল্যাকবেরি।

ব্ল্যাকবেরি ও ফেয়ারফ্যাক্সের মধ্যে এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে কোন চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়নি। কেবলমাত্র প্রাথমিক কথাবার্তা সম্পন্ন হয়েছে। এটি থেকে ভাল অফার পেলে ব্ল্যাকবেরি তা বিবেচনা করতে পারবে, এবং ফেয়ারফ্যাক্স চাইলেও যেকোন সময় ব্ল্যাকবেরি কেনার চিন্তা বাদ দিতে পারে। যদিও সেই সম্ভাবনা আপাতত কম বলেই মনে হচ্ছে।

রিসার্স ইন মোশন বা রিম নাম পরিবর্তন করে তাদের একসময়কার জনপ্রিয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড ‘ব্ল্যাকবেরি’র নামানুসারে কোম্পানি নাম বেছে নেয়। ২০০৭ সালের কোম্পানিটির বাজার ব্যাপক জমজমাট ছিল। তখন এর মার্কেট ভ্যালু ১০০ বিলিয়নের বেশি পৌঁছে। কিন্তু এখন, সম্প্রতি মাইক্রোসফটের নিকট ৭.২ বিলিয়ন ডলারে বিক্রি হয়ে যাওয়া নকিয়ার মূল্যের মাত্র ২/৩ অংশে ($৪.৭বি) বিকিয়ে যেতে রাজী ব্ল্যাকবেরি।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,558 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *