ফোল্ডিং ফোনে নতুন চমক দেখালো স্যামসাং

অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো স্যামসাং আনপ্যাকড অক্টোবর ২০২২ ইভেন্ট। ইউটিউবে লাইভস্ট্রিমে স্যামসাং ঘোষণা করে নতুন গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৪ ও গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ৪।

গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৪ ও গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ৪ দেখতে যথাক্রমে গত বছরের ফ্লিপ ৩ ও ফোল্ড ৩ এর মত। স্যামসাং বলছে তাদের তৈরী ফোল্ডেবল ফোনগুলোর মধ্যে এই দুইটি সবচেয়ে সেরা। কোয়ালকম এর স্ন্যাপড্রাগন ৮+ জেন ১ প্রসেসর দ্বারা চলবে স্যামসাং এর এই নতুন ফোল্ডেবল ফোন দুইটি। অধিক শক্তিশালী অ্যালুমিনিয়াম ফ্রেম ও কর্নিং গরিলা গ্লাস এর কল্যাণে ফোনগুলো আগের চেয়ে স্ক্র‍্যাচ ও ড্রপ থেকে অধিক সুরক্ষিত।

স্যামসাং তাদের হাই-এন্ড ফোনগুলো প্রতিবছর আগস্ট মাসে ঘোষণা করে থাকে। সেপ্টেম্বর মাসে অ্যাপল তাদের নতুন আইফোন ও অন্যান্য ডিভাইস ঘোষণা করে, আগে প্রোডাক্ট বাজারে আনার মাধ্যমে সেল এর ক্ষেত্রে বাড়তি সুবিধা পেতে চায় স্যামসাং।

ফোল্ডেবল ফোনকে “মেইনস্ট্রিম” করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে স্যামসাং। নিজেদের লক্ষ্য অনেকটা সফল বলা যায় স্যামসাংকে। সেল বেড়েছে ফোল্ডেবল স্মার্টফোনগুলোর, ধীরে ধীরে আবার দামও কমিয়ে আনা সম্ভব হচ্ছে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি আনপ্যাকড ইভেন্টে দুইটি নতুন ফোল্ডেবল স্মার্টফোন এর পাশাপাশি গ্যালাক্সি ওয়াচ ৫ ও গ্যালাক্সি বাডস ২ প্রো ঘোষণা করে স্যামসাং। চলুন জেনে নেওয়া যাওয়া নতুন ঘোষণা করা এসব স্যামসাং ডিভাইসসমূহ সম্পর্কে বিস্তারিত।

স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৪

স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৩ বর্তমানে সবচেয়ে জনপ্রিয় ফোল্ডেবল ফোন, যার ফলে ফ্লিপ ৪ ফোনটি থেকে সবার আশা স্বাভাবিকভাবে অনেক বেশি।

৬.৭ইঞ্চি স্ক্রিনের গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৪ এর স্ক্রিন সাইজ আগের মত একই হলেও আগের চেয়ে ভালো ব্যাটারি ব্যাকাপ পাওয়া যাবে নতুন ফ্লিপ ফোন থেকে। গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৪ ফোনটিতে আগের জেনারেশনের চেয়ে অপেক্ষাকৃত ছোট হিঞ্জ থাকছে যা একটি অত্যাবশ্যক পরিবর্তন।

স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৪

গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৪ এর ক্যামেরা সেন্সর আপগ্রেড করা হয়েছে, নতুন সেন্সর ৬৫% অধিক ব্রাইট ছবি ক্যাপচার করতে পারে। এছাড়া পোর্ট্রেইট মোডে সেল্ফি তোলার অপশন এড করা হয়েছে। আরো যুক্ত হয়েছে হ্যান্ডস-ফ্রি ভিডিও রেকর্ড করার সুবিধা যা ফোন কিছুটা ফোল্ড করলে FlexCam একটিভেট করে ব্যবহার করা যায়। মেটা’র সাথে পার্টানারশিপ করেছে স্যামসাং, যাতে এই ফিচার হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক ও ইন্সটাগ্রামে ব্যবহার করা যায়।

ফোল্ড করা অবস্থায় ফ্লিপ ৪ ফোনটিতে আরো বিভিন্ন এক্সক্লুসিভ সুবিধা পাওয়া যাবে। ফোন খোলা ছাড়া কল করা, ভিডিও চ্যাট করা বা টেক্সট এর রিপ্লাই করা, ইত্যাদি ফোল্ড করা অবস্থায় ফ্লিপ ৪ এর কয়েকটি সুবিধা মাত্র। সুপার ফাস্ট চার্জিং এর বদৌলতে ৩০মিনিটে ৫০% পর্যন্ত চার্জ করা যাবে স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৪। এতে থাকছে ৮/১২জিবি র‍্যাম এবং ১২৮জিবি/২৫৬জিবি/৫১২জিবি/১টিবি স্টোরেজ।

স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৪ এর দাম ৯৯৯.৯৯ডলার।

স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ৪

স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ৪

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

বড় স্ক্রিনের ডিভাইসের জন্য গুগল এর তৈরী স্পেশাল অ্যান্ড্রয়েড ভার্সন, অ্যান্ড্রয়েড ১২এল (12L) দ্বারা চলবে স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ৪। গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ৪ ফোনটিতে ৫০মেগাপিক্সেল মেইন ক্যামেরা ও ৩০এক্স জুম সুবিধাযুক্ত লেন্স থাকছে। নতুন সেন্সর এর বদৌলতে অধিক লাইট ক্যাপচার করতে পারবে জেড ফোল্ড ৪, ফলস্বরূপ অপেক্ষাকৃত ভালো ছবি পাওয়া যাবে।

ফোল্ড ৩ এর মত ফোল্ড ৪ এর ইন্টেরিয়র ক্যামেরা স্ক্রিনের মধ্যে লুকানো রয়েছে যা আরো সিমলেস ভিউয়িং এক্সপেরিয়েন্স প্রদান করে। ফ্লিপ ৪ এর মত ফোল্ড ৪ ফোনটিতেও সুপার ফাস্ট চার্জিং রয়েছে যা ৩০মিনিটে ৫০% পর্যন্ত চার্জ করতে পারে।

স্যামসাং এর উভয় ফোল্ডেবল ফোন এস পেন স্টাইলাস সাপোর্ট করে, যা পূর্বে স্যামসাং এর নোট ফোনগুলোতেও কাজ করতো। তবে ফোল্ড ৪ ফোনে এই স্টাইলাস রাখার কোনো আলাদা স্পেস নেই, যা গ্যালাক্সি নোট ফোনগুলোতে ছিলো।

জেড ফোল্ড ৪ ফোনটিতে নতুন টাস্কবার রয়েছে যা ফেভারিট অ্যাপস দেখায়, অন্যদিকে নতুন সোয়াইপিং জেশ্চার এর মাধ্যমে এক অ্যাপ থেকে অন্য অ্যাপে সুইচিং এর বিষয়টি আরো উন্নত হয়েছে। ফোল্ড ৩ এর চেয়ে ফোল্ড ৪ এর ডিসপ্লে বেটার বলা চলে আগের মডেলের চেয়ে বেশি রিফ্রেশ রেট থাকার কারণে। এতে পাবেন ১২জিবি র‍্যাম এবং ২৫৬জিবি/৫১২জিবি/১টিবি স্টোরেজ।

স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ৪ এর দাম ১৭৯৯.৯৯ডলার।

স্যামসাং গ্যালাক্সি ওয়াচ ৫ সিরিজ

স্যামসাং গ্যালাক্সি ওয়াচ ৫ সিরিজ

👉 বিপদে আছে অপো এবং ওয়ানপ্লাস – কিন্তু কেন?

স্যামসাং গ্যালাক্সি ওয়াচ ৪ দুর্দশায় পড়েছিলো এর খারাপ ব্যাটারি লাইফের জন্য, তবে গ্যালাক্সি ওয়াচ ৫ সিরিজে এই সমস্যার সমাধান করেছে স্যামসাং আরো বড় ব্যাটারি যোগ করে। ফাস্টার চার্জিং ও অপেক্ষাকৃত বড় ব্যাটারি নতুন ওয়াচ সিরিজের হাইলাইটিং ফিচার। এছাড়া বডি টেম্পারেচার সেন্সর রয়েছে গ্যালাক্সি ওয়াচ ৫ সিরিজে যার গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিলো বেশ অনেকদিন ধরেই। গ্যালাক্সি ওয়াচ ৫ এর দাম ২৭৯.৯৯ডলার, যেখানে ওয়াচ ৫ প্রো এর দাম ধরা হয়েছে ৪৪৯.৯৯ডলার।

স্যামসাং গ্যালাক্সি বাডস ২ প্রো

স্যামসাং গ্যালাক্সি বাডস ২ প্রো

নতুন ডিজাইনের গ্যালাক্সি বাডস ২ প্রো এর সাইজ বাডস ২ এর চেয়ে ১৫% ছোট, যুক্ত হয়েছে ২৪-বিট হাই-ফাই অডিও সাপোর্ট। গ্যালাক্সি বাডস ২ প্রো এর দাম ২২৯.৯৯ডলার।

নতুন ডিভাইসগুলো ঘোষণার ইভেন্টে কোম্পানি হিসেবে রিসাইকেলড ম্যাটেরিয়াল ব্যবহারের সর্বোচ্চ চেষ্টা করছে বলে জানায় স্যামসাং। গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৪, জেড ফোল্ড ৪, ওয়াচ ৫ সিরিজ, ও বাডস প্রো সম্পর্কে আপনার মতামত আমাদের জানাতে পারেন কমেন্ট সেকশনে।

👉 ভিডিওঃ অনলাইন ইনকামের জন্য যে বিষয়গুলো জানা জরুরি

👉 আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করে সাথেই থাকুন। এখানে ক্লিক করে সাবস্ক্রিপশন কনফার্ম করুন!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,411 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.