যেভাবে কাজ করে আপনার ফেসবুক নিউজফিড…

mark zuckerberg on facebook newsfeed systemফেসবুক হোমপেজে আমরা বন্ধুবান্ধব, পেইজ, গ্রুপ এবং অন্যান্য পার্টির যেসব স্পন্সরড কনটেন্ট দেখতে পাই সেটিই হচ্ছে “নিউজফিড”; সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং এই কোম্পানিটির মতে নিউজফিড মূলত ব্যবহারকারীর জন্য একটি “কাস্টমাইজড নিউজপেপার”; কিন্তু কখনো ভেবেছেন, এটি কীভাবে কাজ করে? গড়ে প্রত্যেক ফেসবুক ব্যবহারকারীর নিউজফিডে দিনে প্রায় ১৫০০ সম্ভাব্য পোস্ট ফিল্টার হয়ে থাকে। কিন্তু আমরা এগুলোর মাত্র ২০% দেখতে পাই!

কেউ কেউ হয়ত ভাবতে পারেন ফেসবুকে সময়ের ক্রমানুসারে পোস্ট র‍্যাংক করা হয়। অর্থাৎ যত আগের পোস্ট তত নিচে থাকবে, এভাবে সর্বশেষ কনটেন্ট সবার উপরে দেখা যাবে।

কিন্তু এত ব্যাপারটি আসলে এত সহজ না। এভাবে চিন্তা করলে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বিশ্বজুড়ে এতগুলো মানুষেরর আবেগ-অনুভুতি নিয়ে ব্যবসা করতে পারত না। আসলে নিউজফিডে স্টোরিগুলো স্কোরের ভিত্তিতে সাজানো থাকে। এখন কথা হচ্ছে, এই স্কোরিং কে করে? কীভাবে করে?

আচ্ছা প্রথম প্রশ্নের উত্তর চোখ বন্ধ করে বলে দেয়া যায়। পোস্টের স্কোরিং বা র‍্যাংকিং করে ফেসবুকের সেন্ট্রাল সার্ভার সিস্টেম। কিন্তু এর পদ্ধতিটি অত্যন্ত জটিল এবং নিয়ত পরিবর্তনশীল।

স্টোরি র‍্যাংকিংয়ের জন্য স্কোর নির্ধারণ করতে অনেকগুলো ফ্যাক্টর বিবেচনা করা হয়, যার সবগুলো ফেসবুক জনস্মমুখে প্রকাশ করেনা। এদের মধ্যে যে কয়েকটি বিষয় জানা গেছে তা হল, ব্যাবহারকারীদের সাথে আপনার সম্পর্ক, যোগাযোগ, কমেন্ট-শেয়ার-লাইক সংখ্যা ইত্যাদি। এছাড়া একজন ব্যবহারকারীর সর্বশেষ ৫০টি ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়াও র‍্যাংকিংয়ে প্রভাব ফেলে। এক্ষেত্রে আপনি কোন বন্ধুর পোস্টে লাইক করেছেন, কার সাথে কতটা মেসেজ বিনিময় করেছেন, কার টাইমলাইনে নিয়মিত ভিজিট করেন, একসাথে কাজ করেন প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য।

যেমনটি আগেই বলেছি, নিউজফিড এলগোরিদম সবসময় ধ্রুব থাকেনা- এতে নিয়মিত বিরতিতে পরিবর্তন আসে। এই যেমন কিছুদিন আগেও হোমপেজ রিফ্রেশ করলে নতুন কনটেন্টগুলো একটু কম স্কোরড হলেও তা সবার উপরে চলে আসত। কিন্তু অতি সম্প্রতি স্কোরিং সিস্টেমে পরিবর্তন আসায় দিনের শুরুতে পোস্টকৃত স্টোরিগুলোও সন্ধ্যায় একদম উপরের দিকে দেখতে পারেন। এবং ফেসবুক সিস্টেম যতক্ষণ পর্যন্ত মনে করবে আপনি দরকারী/সম্পর্কিত পোস্টগুলো এখনো দেখেননি ততক্ষণ তা চোখের সামনে রাখবে, এজন্য কখনো কখনো একই পোস্ট একাধিকবারও নিউজফিডে উপস্থিত হতে পারে।

ফেসবুকের এই কৌশল পরিবর্তন আপাতত সাইটটির ডেস্কটপ ভার্সনে প্রয়োগ করা হয়েছে। কোম্পানিটি বলছে ইতোমধ্যেই এটা ইউজার এঙ্গেজমেন্ট বৃদ্ধি করেছে। সুতরাং দরকারী পোস্টগুলো সত্যি সত্যিই এখন আপনার নিউজফিডের প্রধান প্রধান অবস্থানে চলে আসছে। ফেসবুকের মতে, সাইটটিতে এখন আগের চেয়ে ১৩% বেশি পোস্ট দেখা হচ্ছে এবং ৫% বেশি প্রতিক্রিয়া (লাইক, কমেন্ট, শেয়ার) পাওয়া যাচ্ছে। একইভাবে নিউজফিড কিংবা সাইডবারে প্রদর্শিত বিজ্ঞাপনগুলোও আলাদা যুক্তি ব্যবহার করে ইউজারদের ওয়েব ব্রাউজিং অভ্যাস অনুযায়ী উপস্থিত হয়ে আসছে। উদাহরণস্বরূপ, আপনি কোন ওয়েবসাইট ভিজিট করছেন, কী তথ্য সার্চ করছেন পিসি থেকে এসব তথ্য নিয়েই ফেসবুক আপনাকে বিজ্ঞাপন দেখাচ্ছে।

আশা করি ফেসবুক নিউজফিডের জটিল কার্যপদ্ধতির কিছুটা হলেও সহজ ধারণা উপস্থাপন করতে পেরেছি। আপনার মন্তব্য সমাদরে গ্রহণ করা হবে। সবাইকে ঈদ মোবারক!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 4,889 other subscribers

Comments