ফেসবুক একাউন্ট ডিলিট এবং ডিএক্টিভ করার মধ্যে পার্থক্য জানুন

ফেসবুক ডিএকটিভ ও ফেসবুক ডিলিট – এই দুইটি বিষয় শুনতে কারো কারো কাছে একই মনে হতে পারে। অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারী এই দুইটি বিষয়কে একই বলে মনে করে থাকেন। তবে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হলো ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভ ও ফেসবুক একাউন্ট ডিলিট করার মধ্যে বিশাল পার্থক্য রয়েছে।

এই পোস্টে আমরা জানবো ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভ করলে কি হয় ও ফেসবুক একাউন্ট ডিলিট করলে কি হয়। উভয় ফিচার সম্পর্কে জানার মাধ্যমে আমরা বুঝার চেষ্টা করবো উক্ত বিষয় দুইটির মধ্যে মিল অমিল সম্পর্কে। চলুন জেনে নেওয়া যাক ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভেট ও ফেসবুক একাউন্ট ডিলিট করার মধ্যে পার্থক্য সম্পর্কে।

ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভ করলে কি হয়?

প্রথমে জেনে নেওয়া যাক ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভ করলে আসলে কি হয়, এর মাধ্যমে ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভ এর মূল কাজ সম্পর্কে পরিস্কার ধারণা পাওয়া যাবে।

ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভেট করা একটি টেম্পরারি (অস্থায়ী) ব্যাপার। অর্থাৎ ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভ করলে তা পুনরায় একটিভ করা যায় একাউন্টে লগিন করে। অর্থাৎ এখানে আপনার একাউন্ট ঠিকই অক্ষত থাকছে।

একাউন্ট ডিএকটিভ থাকা অবস্থায় কেউ আপনার ফেসবুক একাউন্ট দেখতে পাবেনা। এর মানে হলো আপনার ফেসবুক একাউন্টের পাশাপাশি আপনার প্রোফাইলে করা পোস্ট বা গ্রুপে করা পোস্ট ফেসবুকে প্রদর্শিত হবেনা। আবার কেউ যদি আপনার একাউন্ট সার্চ করে, তবেও তা খুঁজে পাওয়া যাবেনা।

তবে ফেসবুক প্রোফাইল খুঁজে না পেলেও আপনার পাঠানো মেসেজ ঠিকই ফেসবুকে থাকবে। অর্থাৎ ফেসবুক একাউন্টের মাধ্যমে ব্যক্তিগত বা গ্রুপ চ্যাটে পাঠানো সকল মেসেজ একাউন্ট ডিএকটিভ করার পরও প্রদর্শিত হয়। এছাড়া অকুলাস প্রোডাক্ট অ্যাকসেস করা বা অকুলাস ইনফরমেশন দেখা যাবেনা ফেসবুক একাউন্ট ছাড়া।

আপনার একাউন্ট ডিএকটিভ করলে আপনার দ্বারা চালিত ফেসবুক পেজগুলোও ডিএকটিভ হয়ে যাবে। অর্থাৎ একাউন্ট ডিএকটিভ করলে আপনার পেজগুলোও আর অন্যরা দেখতে পাবেনা। একাউন্ট ডিএকটিভেট করার পরেও যদি আপনার পেজ চালু রাখতে চান তবে পেজের কন্ট্রোল অন্য ফেসবুক ইউজারকে দিতে পারেন পেজ রোলস ফিচার এর মাধ্যমে। পেজে একাধিক এডমিন থাকা অবস্থায় একাউন্ট ডিএকটিভ করলে পেজ একটিভ থাকবে।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

ফেসবুক একাউন্ট ডিলিট এবং ডিএক্টিভ করার মধ্যে পার্থক্য জানুন

👉 ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভ করার নিয়ম

ফেসবুক একাউন্ট ডিলিট করলে কি হয়?

ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভ করলে কি হয় তা তো জানলেন। এবার চলুন জানা যাক ফেসবুক একাউন্ট ডিলেট করলে কি হয়।

ফেসবুক একাউন্ট একবার ডিলিট করে দিলে তা আর ফিরে পাওয়া যায়না। তবে ফেসবুক একাউন্ট ডিলিট করার কিছুদিন পর তা আসলে ডিলেট হয়। সাথে সাথে না। ফেসবুক একাউন্ট ডিলিট করার প্রক্রিয়া অনুসরণের কিছুদিন পর তবেই একাউন্ট ডিলিট হয়। অর্থাৎ একাউন্ট ডিলিট করার পরেও কিছুদিন সময় দেওয়া হয় একাউন্ট ডিলিট এর বিষয়টি বিবেচনা করার। এর মধ্যে যদি একাউন্ট পুনরায় লগিন করে একটিভ করা না হয়, তবে তা চিরদিনের জন্য ডিলিট হয়ে যায় ও আর ফিরে পাওয়া যায়না।

তবে মেসেজিং হিস্টোরি এর মত অনেক ফিচার ফেসবুক একাউন্টে স্টোর থাকেনা, যার ফলে একাউন্ট ডিলেট করার পরেও এগুলো থেকে যেতে পারে বন্ধুদের ইনবক্সে। অর্থাৎ একাউন্ট ডিলিট করার পরেও কিছু মেসেজ ইনবক্সে থেকে যেতে পারে।

আপনি যদি ফেসবুক একাউন্ট অকুলাস এর সাথে কানেক্ট করে থাকেন, তবে অকুলাস এর তথ্যও মুছে যাবে। এছাড়া আপনার পারচেজ ও এচিভমেন্ট ও মুছে যাবে। অর্থাৎ অকুলাস এর মাধ্যমে কেনা অ্যাপ ও স্টোর ক্রেডিট আর থাকবেনা।

👉 ফেসবুক একাউন্ট চিরতরে বন্ধ বা ডিলিট করার উপায়

শুধুমাত্র আপনার দ্বারা ম্যানেজ করার পেজসমূহ ডিলিট হয়ে যাবে। আপনার পেজ যদি ডিলিট হওয়া থেকে রক্ষা করতে চান, তবে অন্য ফেসবুক ইউজারকে পেজের এডমিন হিসেবে এড করতে পারেন। এছাড়া ফেসবুক এর মাধ্যমে যেসব একাউন্টে লগিন করতে হয়, সেসব একাউন্টেও অ্যাকসেস হারাবেন।

👉 ভিডিওঃ সফল ফ্রিল্যান্সার হওয়ার উপায়

👉 আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করে সাথেই থাকুন। এখানে ক্লিক করে সাবস্ক্রিপশন কনফার্ম করুন!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,066 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.