মিউজিক সেবা চালু করল টুইটার!

twitter music34534সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে #মিউজিক সেবা চালু করল মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটার। এর বিশেষ আইওএস এপ এবং ওয়েবসাইট ব্যবহার করে নতুন নতুন গান খুঁজে প্লে করা যাবে। পুরো সার্ভিসটি মূলত একটি রিকমেন্ডেশন ইঞ্জিনের সাহায্যে কাজ করে যা সমগ্র টুইটার নেটওয়ার্ক এবং অনুসরণকৃত লোকজনের প্রোফাইল থেকে ট্রেন্ডিং ডেটা সংগ্রহ করে ও সে অনুযায়ী গানের সাজেশন দেখায়। টুইটার মিউজিক ব্যবহার করে আপনি আপনার আইটিউনস, স্পটিফাই এবং রেডিও (Rdio) একাউন্ট থেকে গান শুনতে পারবেন।

এন্ড্রয়েড ও উইন্ডোজ ফোন ব্যবহারকারীদের আপাতত ওয়েব ভার্সনই ভরসা

অ্যাপল আইওএস ডিভাইস ব্যবহার করলে এপ স্টোর থেকে টুইটার মিউজিক ফ্রি’তে ডাউনলোড করে নিন। এছাড়া https://music.twitter.com ঠিকানায় ভিজিট করেও সেবাটি উপভোগ করতে পারবেন। টুইটারের নতুন এই সুবিধা পাঁচটি ক্যাটেগরিতে গান সংগ্রহ সাজাবে। এগুলো হচ্ছে,

> পপুলার- টুইটারে ট্রেন্ডিং লিস্টে নতুন সব গানসমূহ।

> ইমার্জিং- টুইটের মাধ্যমে পাওয়া গানের তালিকা।

> সাজেস্টেড- টুইটারের পক্ষ থেকে শিল্পী বাছাই করার পরামর্শ।

> নাউ প্লেয়িং- অনুসরিত লোকজন থেকে টুইটকৃত মিউজিক লিস্ট।

> মি- ব্যবহারকারী যেসব আর্টিস্ট ফলো করছেন তাদের মিউজিক।

এখানে জানিয়ে রাখছি, অ্যাপল আইওএসের জন্য টুইটার মিউজিক এপ্লিকেশন লঞ্চ করা হলেও এন্ড্রয়েডউইন্ডোজ ফোন ওএসের জন্য এর কোন ভার্সন রিলিজ হয়নি। তবে সকল গ্রাহকরাই সেবাটির ওয়েব সংস্করণ ব্যবহার করতে পারবেন।

একদম শুরুতে এটি যুক্তরাজ্য, আয়ারল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডে উপলভ্য হবে। শীঘ্রই আরও দেশ এই তালিকায় চলে আসবে।

অ্যাপল সহ আরও বেশ কয়েকটি কোম্পানি সোশ্যাল মিউজিক রিকমেন্ডেশন সেবা চালু করে সাফল্যের মুখ দেখতে ব্যর্থ হয়েছিল। স্টিভ জবস কর্তৃক সূচিত অ্যাপল পিং আশানুরূপ ফলাফল বয়ে আনতে না পারায় শেষ পর্যন্ত গত বছর সেবাটি বন্ধ করে দেয়া হয়।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 2,884 other subscribers

Comments