ক্রমেই “ব্র্যান্ড ইমেজ” হারাচ্ছে অ্যাপল

colorful-appleটেক জায়ান্ট অ্যাপল ক্রমেই কোম্পানিটির “উৎসাহমূলক ব্র্যান্ড” ইমেজ হারিয়ে চলছে। বর্তমানে এর সুনাম তিন বছর আগের চেয়ে কম বলে সাম্প্রতিক এক ব্র্যান্ড সার্ভের ফলাফলে প্রকাশিত হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে বর্তমানে স্যমসাং এবং অ্যাপল সমানভাবে অনুপ্রেরণামূলক কোম্পানি হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে।

কনসালটেন্সি ফার্ম “অ্যাডেড ভ্যালু” পরিচালিত এই জরিপের ফলাফল থেকে সংস্থাটির বিশ্লেষকরা আশংকা করছেন, প্রতিষ্ঠাতা স্টিভ জবসের মৃত্যুর পর থেকে অ্যাপল সঠিক পথে আগাতে পারছে না।

আইফোন নির্মাতার ব্র্যান্ড সবমিলিয়ে ভাল স্কোর পেলেও বিশ্বব্যাপী, বিশেষ করে পূর্ব এশিয়ায় স্যামসাংয়েরই বেশি সুনাম লক্ষ্য করা যায় বলে উক্ত জরিপের ফলাফলে উল্লখে রয়েছে।

অ্যাপল আইফোন ফাইভ প্রকাশের মধ্য দিয়ে স্মার্টফোন সিরিজটি তার “উদ্ভাবনী” ব্র্যান্ড ইমেজ হারায়, কেননা এর গঠন ও বৈশিষ্ট্যে পুর্ববর্তী আইফোন মডেলগুলোর সাথে খুব বেশি পার্থক্য ছিল না।

গবেষণামূলক প্রতিষ্ঠান গার্টনারের হিসেব অনুযায়ী স্যামসাং এবং অ্যাপল একত্রে বর্তমান বৈশ্বিক স্মার্টফোন বাজারের ৫২ শতাংশ দখল করে আছে। তবে ২০১২ সালের শেষ তিন মাসে স্যামসাং প্রায় ৬৪.৫ মিলিয়ন স্মার্টফোন বিক্রি করেছিল যা একই সময়ে অ্যাপলের ৪৩.৫ মিলিয়ন ইউনিট আইফোন বিক্রির চেয়ে অনেক বেশি।

এছাড়া ট্যাবলেট কম্পিউটার মার্কেটে লড়াই করার জন্য অন্যান্য কোম্পানির ছোট আকারের ট্যাবলেট ডিভাইসের জবাবে অ্যাপল আইপ্যাড মিনি বাজারে আনে, যা কোম্পানিটিকে “নেতৃত্ব দেয়ার” বদলে “অনুসরণ করা”র ছাপ দিয়েছে। এছাড়া বিশ্বব্যাপী পেটেন্ট লড়াইয়ে অবতীর্ণ অ্যাপল উল্লেখযোগ্য পরিমাণ মামলায় তাদের মেধাস্বত্বের স্বীকৃতি পেলেও ২০১২ সালের পর থেকে পুঁজিবাজারে প্রত্যাশানুযায়ী ফল ব্যর্থ হচ্ছে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,409 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.