জুঁইয়ের এই নারী দিবসের ভিডিওটি আপনাকে স্তব্ধ করে দেবে

৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষ্যে স্কয়ার টয়লেট্রিজের নারিকেল তেল ব্র্যান্ড জুঁই একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে যেটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক আলোচিত হচ্ছে। জুঁই বিউটিফুল হেয়ার নামের ইউটিউব চ্যানেল থেকে ভিডিওটি প্রকাশ করা হলেও অন্যান্য অনেকগুলো ইউটিউব চ্যানেলে ক্লিপটি ভাইরাল হয়ে গেছে। ভিডিওটিতে সমাজের এক ঘৃণ্য অধ্যায় তুলে ধরা হয়েছে।

দুই মিনিটের ঐ ভিডিও ক্লিপ একটি পার্লারে ধারণ করা হয়েছে, যেখানে প্রথমেই একজন নববধূকে দেখা যায়, যিনি সাজগোজ করে পার্লার থেকে বেরুচ্ছিলেন। পরের দৃশ্যেই পার্লারের মধ্যে অপেক্ষমাণ একটি মেয়েকে দেখানো হয় যিনি এখন পার্লারের সার্ভিস নেবেন। মেয়েটি পার্লারের নির্দিষ্ট চেয়ারে বসার পর একজন কর্মী তার চুলের প্রশংসা করে জানতে চান যে, তিনি কী ধরনের সেবা নেবেন। মেয়েটি বলল সে চুল ছোট করবে।

পার্লারের কর্মী মেয়েটির সুন্দর চুল দেখে চুলগুলো আরও ভালোভাবে পরিচর্যা করে দিতে চায়। কিন্তু মেয়েটি ক্ষোভ ও অভিমান নিয়ে বলে ‘ছোট করবো’।

পার্লারের কর্মীটি অবাক হয়ে যায়। এত সুন্দর চুল কেউ ছোট করে? কিন্তু মেয়েটি বারবার আরও ছোট করতে বলে।

এভাবে ছোট করতে করতে চুলগুলো কেটে কাঁধ পর্যন্ত নিয়ে আসা হয়। কিন্তু মেয়েটি আবারও ছোট করতে বলে।

পার্লারের কর্মীটি অবাক হয়ে বলে, ‘একদমই চুলের যত্ন নেয়ার সময় পাননা না? আপনার চুলে কিন্তু লেয়ার কাটটা খুব সুন্দর লাগত’।

চুল ছোট করে করে ঘাড় পর্যন্ত আনার পর মেয়েটি যা বলল তা আমাদের পুরো সমাজব্যবস্থাকে প্রশ্নবিদ্ধ করে দেয়।

যত্নে লালন করা লম্বা ঘন চুলগুলো এই মেয়েটি ছেঁটে এতটাই ছোট করে ফেলতে চায় যাতে চুলগুলো ধরে তাকে কেউ আর মারধর করতে না পারে। (এখানে আমি মারধর শব্দটির পরিবর্তে ‘প্রহার’ বা ‘আঘাত’ ব্যবহার করতে পারতাম, কিন্তু যে বিষয়টা ঘৃণার, সেটা প্রকাশ করতে সুন্দর শব্দ ব্যবহার করে লাভ কী? নিকৃষ্ট বিষয়গুলো স্বরূপেই প্রকাশিত হোক!)

নিজের শখের চুল কেটে ফেলে আয়নায় সেই ছবি দেখে কেঁদে ফেলে মেয়েটি। কান্না ভরা কণ্ঠে নিজের চুল হাত দিয়ে ধরে পার্লারের কর্মীটিকে বলে ‘আরো ছোট করে দিন, যাতে এভাবে আর ধরা না যায়’। তার এই বাক্যটি শুনে পার্লারের সবাই থমকে যায়। মেয়েটি কাঁদতেই থাকে। স্ক্রিনে তার কাটা চুলগুলো পড়ে থাকতে দেখা যায়।

আর লেখা আসে ‘যে চুল নারীর সৌন্দর্য, সেই চুল যেন না হয় তার দুর্বলতার কারণ। প্রতি ১০০ জনে ৮০ জন নারীই জীবনে কোনো না কোনোভাবে নির্যাতনের শিকার হন (সূত্রঃ বিবিএস)। কথা বলুন, যেকোনো পরামর্শ ও সহায়তার জন্য আমরা আছি আপনার পাশে’। এরপর একটি ফোন নম্বর দেয়া হয় যেখানে কল করলে নির্যাতনের শিকার বা ঝুঁকিতে থাকা নারীদের সহায়তা দেয়া হবে। নাম্বারটি হচ্ছে ০৮০০০৮৮৮০০০ যেখানে বিনামূল্যে কল করা যাবে।

এখানে ভিডিওটি এমবেড করে দেয়া হলঃ

নারী দিবসে সকল নারীর প্রতি শুভকামনা রইল চিরদিনের জন্য।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 4,971 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.