এই ফোনটি এক চার্জে ৩ মাস চলবে (২৮,০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি!)

ইতিমধ্যে অনেক ব্র্যান্ডকে আমরা বড় ব্যাটারির স্মার্টফোন বাজারে আনতে দেখেছি। তবে এইবার খবর আসছে Avenir Telecom এর তরফ থেকে যারা কিনা এনার্জাইজার-ব্র্যান্ডেড এন্ড্রয়েড ফোন নিয়ে এসেছে যাতে ২৮,০০০ মিলিএম্প এর ব্যাটারি রয়েছে। 

অর্থাৎ এখানে ফোনে ব্যাটারি নয়, বরং ব্যাটারিতে ফোন যুক্ত করার মত ব্যাপার ঘটেছে রীতিমত। মোবাইল ওয়ার্ল্ড কনগ্রেস-এ (MWC) এনার্জাইজার-ব্র্যান্ডেড হার্ড কেস পি২৮কে স্মার্টফোনটি প্রথম দেখা যায়। স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২৪ আলট্রার মত ফোনে যেখানে ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি রয়েছে সেখানে এই ফোনের আসল সেলিং পয়েন্ট যে ব্যাটারি তাতে কোনো সন্দেহ নাই।

Avenir জানায় এই ফোনটি মূলত সেসব দেশের কথা মাথায় রেখে তৈরি করা হয়েছে যেখানে রেগুলার পাওয়ার সাপ্লাই এর সমস্যা রয়েছে। বাংলাদেশ এর মত দেশেও এই ফোন বেশ কাজে আসতে পারে। এই ফোন দ্বারা প্র্যাক্টিকালি অন্য ফোনও চার্জ করা যাবে কোনো সমস্যা ছাড়াই। আবার ট্যুরে গেলে সেক্ষেত্রেও এই ফোনের ফুল চার্জ দ্বারা এই ফোনের পাশাপাশি অন্য ডিভাইসও চার্জ করে ফেলা যাবে কোনো সমস্যা ছাড়াই।

কি কি থাকছে পাওয়াব্যাংক ফোনে?

এনার্জাইজার পি২৮কে ফোনটির ওজন জানেন কত? ৫৭০ গ্রাম। অবশ্য এতো বিশাল ব্যাটারির বদৌলতে হাফ কিলোগ্রামের অধিক ওজনের ফোনটি নিয়ে অভিযোগ এর অপশন নেই। সাধারণ ফোনগুলো বাদ দিলেও গ্যালাক্সি জি ফোল্ড ৫ এর মত বড়সড় ফোনের ওজন মাত্র ২৫৩ গ্রাম, অর্থাৎ যেকোনো ফোনের চেয়ে ব্যাটারির পাশাপাশি ওজনে অন্তত এগিয়ে থাকবে এই ফোন।

এই ফোনে আইপি৬৯ রেটিং থাকলেও রাগেড ডিভাইস হওয়া স্বত্বেও MIL-STD রেটিং থাকছেনা। অন্য সকল দিক দিয়ে এই ফোন বাকি দশটি বাজেট এন্ড্রয়েড ফোনের মতই। মিডিয়াটেক হেলিও জি৯৯ প্রসেসর চালিত এই ফোনে ৬.৭৮ ইঞ্চি ফুলএইচডি+ স্ক্রিন রয়েছে, সাথে ২৫৬ জিবি স্টোরেজ থাকছে। ফোনের ব্যাকে ৬৪ মেগাপিক্সেল + ২০ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা এবং ফ্রন্টে ১৬ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা রয়েছে। ফোনটি একবার ফুল চার্জ করলে ৩ মাসের মত স্ট্যান্ডবাই চলবে। কথা বললে একটানা ১২২ ঘণ্টা কথা বলা যাবে

Energizer Hard Case P28K

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

পাওয়ারব্যাংক ফোন কি কেনা যাবে?

পি২৮কে ফোনটি অক্টোবর মাস থেকে বিক্রি শুরু হবে। ২৫০ ইউরো বা প্রায় ২৭১ ডলার দাম ধরা হয়েছে ফোনটির। এই বিশাল ব্যাটারি ক্যাপাসিটির ফোন ও বাকি স্পেসিফিকেশন এর দিকে তাকালে এই দাম বেশ যুক্তিযুক্ত বলা চলে।

এছাড়া আরো জানানো হয়েছে এই ফোনটির জন্য এনার্জাইজার এর ফাইনাল এপ্রুভাল এখনো পেন্ডিং রয়েছে।

এই ফোন হয়ত শীঘ্রই অধিক সংখ্যক বাজারে আসবেনা। তবে বিশ্বের অনেক দেশের গ্রাহক অবশ্যই এই ধরনের ফোন কিনতে পছন্দ করতে পারেন, দেখার বিষয় কোম্পানিটি তাদের কথা রাখতে সক্ষম হয় কিনা।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,575 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *